মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

সেকশন

 

বঙ্গবন্ধুর সৈনিকেরা সারা দেশে সোচ্চার: হাবিব হাসান

আপডেট : ২৪ মে ২০২৩, ২৩:৪৯

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি–বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত। ছবি: আজকের পত্রিকা  ঢাকা–১৮ আসনের সংসদ সদস্য হাবিব হাসান বলেছেন, যারা শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দেয়, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিল তাঁদের ভাবা উচিত এটা ১৯৭৫ সাল না। এই ২০২৩ সালে বঙ্গবন্ধুর সৈনিকেরা সারা দেশে সোচ্চার। প্রধানমন্ত্রীকে নতুন করে আক্রমণের চেষ্টা, হুমকি দেওয়া হলে তাঁদের বাংলার মাটি থেকে চিরতরে উচ্ছেদ করা হবে।

আজ বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর কাওলায় ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি–বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু। সভাপতিত্ব করেন দলটির মহানগর উত্তরের সভাপতি মো. ইসহাক মিয়া ইসহাক।

হাবিব হাসান বলেন, শেখ হাসিনা দেশে একের পর এক উন্নয়ন করে যাচ্ছেন। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, মেট্রোরেল, পাতাল রেল ও দুটি উড়াল সেতু উদ্বোধন করেছেন। যার কারণে আজকে বিমানবন্দর, টঙ্গীতে যানজট নেই। এগুলো প্রধানমন্ত্রী করেছেন বাংলার মানুষ ও বাংলাদেশের মানুষের জন্য। শেখ হাসিনা ইউরোপের থেকেও বাংলাদেশে বেশি উন্নয়ন করেছেন।

তিনি আরও বলেন, ‘এ দেশে একটা জঞ্জাল দল আছে, যারা ১৯৭১ সালে আমাদের মা-বোনের ইজ্জত নষ্ট করেছিল। যারা স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছিল। যে দলের জন্ম হয়েছে আগাছা থেকে। যে দলের জন্মদাতা জিয়াউর রহমান জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করেছিল।’

বিএনপির তারেক জিয়া ও খালেদা জিয়া নতুন করে আবার দেশকে অস্থিতিশীল করে উন্নয়ন বন্ধ করার ফন্দি করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু বলেন, ‘যাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ আছে, সমাজের অবহেলিত ব্যক্তি, যারা এক ভাই আওয়ামী লীগ করেন এক ভাই বিএনপি করেন, আরেক ভাই জামায়াত করেন, তাঁরা কেউ ক্যানডিডেট হবেন না। হলেও নেতা হতে পারবেন না। যদি কেউ মাদক ব্যবসা করেন, যারা মাদক সেবন করেন তাঁরাও নেতা হতে পারবেন না। অবাঞ্ছিত কাউকে কোথাও নেতা করিও নাই, করবও না।’

প্রধান বক্তার বক্তব্যে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম আফজালুর রহমান বাবু বলেন, আজকের এই সমাগম হঠাৎ করে হয়নি। এই ১১টি ওয়ার্ডে ১১ জন কেন্দ্রীয় নেতা এসেছিলেন। তাঁরা মহানগরের সঙ্গে সদস্য সংগ্রহ করেছিলেন, মিটিংয়ের পর মিটিং করেছেন। তাঁদের উদ্যোগে আজ এ ব্যাপক সাড়া পড়েছে।

দলটির মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান নাঈম বলেন, ‘আমি এমন নেতা চাই না, সারা রাতে স্লোগান দেবেন, কিন্তু সকালে রাজপথে থাকবেন না। যারা প্রকৃত অর্থে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে রাজনীতি করেন, যারা দলের প্রতিটি কর্মসূচিতেই অংশগ্রহণ করেন তাঁদেরকেই চাই।’

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন—সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য শবনম জাহান শীলা, বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোবাশ্বের চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফরিদপুর রহমান খান ইমরান। মহানগর উত্তরের বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ডের হাজার হাজার নেতা–কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    পাসপোর্ট অফিসের কর্মচারী ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

    ব্যক্তিগত কাজে অফিসের গাড়ি, অগ্রণী ব্যাংক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

    গজারিয়ায় আওয়মী লীগের ২ পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে গুলি, আহত ৯

    স্বাধীনতার পরাজিত শক্তিরা ষড়যন্ত্র করে চলছে: ক্রীড়া মন্ত্রী 

    বুয়েট উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা

    এমপি আনোয়ারুল হত্যা: কামালকে ১০ দিনের মধ্যে ঝিনাইদহ কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

    সীমান্তে চিনি চোরাচালানে সিলেট ছাত্রলীগ

    ‘বিপদে’ সাহায্য চাওয়া অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশকে ডাকে না ১৬ বছর

    প্রভাসে আশায় বুক বাঁধছে ভারতীয় বক্স অফিস 

    আশ্রয়ণের ঘর বরাদ্দ আছে, পরিবার নেই

    অবশেষে কারামুক্ত হলেন উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ