Alexa
মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

নতুন শিক্ষাবর্ষের বিতরণের বই ফেরিওয়ালার গাড়িতে

আপডেট : ২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬:২৫

নতুন শিক্ষা বছরের বিনা মূল্যে বিতরণের বই পাওয়া গেছে ভাঙারি ফেরিওয়ালার গাড়িতে। ছবি: আজকের পত্রিকা গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে নতুন শিক্ষাবর্ষের বিনা মূল্যে বিতরণের বই পাওয়া গেছে ভাঙারি ফেরিওয়ালার গাড়িতে। কেজি দরে ওই বই এক প্রধান শিক্ষক বিক্রি করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল সোমবার কাশিয়ানীর মাহমুদপুর ইউনিয়নের বই বিক্রির এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বইগুলো জব্দ করেন।

বিক্রি করা বইগুলোর মধ্যে রয়েছে-মাধ্যমিক স্তরের বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ বিজ্ঞান, বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচিতি, ইসলাম ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা, হিন্দু ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা, ক্যারিয়ার শিক্ষা, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, চারুপাঠ, কৃষি শিক্ষা, আনন্দপাঠ, গার্হস্থসহ বিভিন্ন বিষয়ের বই। 

স্থানীয়রা জানান, গতকাল দুপুর ২টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের ছুটি দিয়ে গোপনে ২০২২ ও ২০২৩ শিক্ষাবর্ষের ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির বিভিন্ন বিষয়ের সরকারি বিনা মূল্যে বিতরণের বই ৩০ টাকা কেজি দরে দুই ফেরিওয়ালার কাছে বিক্রি করেন মাহমুদপুর ইউনিয়নের শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জগবন্ধু বিশ্বাস। দুই ফেরিওয়ালার কাছে ওই বই দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজন তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এ সময় ফেরিওয়ালারা জানান, তাঁরা প্রধান শিক্ষকের কাছ থেকে বইগুলো ৩০ টাকা কেজি দরে কিনে এনেছেন।

শ্রীপুর এলাকার বাসিন্দা ইমদাদুল হক আজকের পত্রিকাকে জানান, তিনি স্কুলের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় ভাঙারিবোঝাই ফেরিওয়ালাদের একটি ভ্যান ও দুজন লোককে দেখতে পায়। তাঁরা সেখানে কি করছেন বলে জানতে চান তিনি। এ সময় তাঁরা জানান, ওই স্কুল থেকে কিছু বই কিনে সেখানে দাঁড়ায়ে আছেন। পরে তাঁরা কিনে আনা বইগুলো দেখান। বইগুলোর ওপরে ২০২২ শিক্ষাবর্ষ ও ২০২৩ শিক্ষাবর্ষ লেখা রয়েছে দেখতে পেয়ে তাঁদের আটক করে ৯৯৯ এ কল করে বিষয়টি জানান কাওছার শেখ। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার গ্রামপুলিশ পাঠালে ফেরিওয়ালাদের কাছ থেকে বইগুলো জব্দ করা হয়। 

এ বিষয়ে কাওছার শেখ নামে এক ফেরিওয়ালা বলেন, ‘বইগুলো শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জগবন্ধু বিশ্বাসের কাছ থেকে ৩০ টাকা কেজি দরে কিনেছি। তাঁর কাছ থেকে মোট ৩০ কেজি বই কেনা হয়েছে।’ 

অভিযোগের বিষয়ে প্রধান শিক্ষক জগবন্ধু বিশ্বাসের মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি কোনো বই বিক্রি করিনি। আমি এখন কাজে ব্যস্ত আছি। পরে কথা বলব।’ এ কথা বলে কলটি কেটে দেন তিনি। 

নতুন শিক্ষা বছরের বিনা মূল্যে বিতরণের বই পাওয়া গেছে ভাঙারি ফেরিওয়ালার গাড়িতে। ছবি: আজকের পত্রিকা কাশিয়ানী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মাহফুজা বেগম বলেন, বিক্রি করা বইগুলো জব্দ করা হয়েছে। এ বিষয়ে ওই প্রধান শিক্ষককে কারণ দর্শানো নোটিশ দিয়ে তিন দিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে। পরে তাঁর বিরুদ্ধে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মেহেদী হাসান বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে তাৎক্ষণিক গ্রামপুলিশ পাঠানো হয়। পরে বইগুলো জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) এ. কে. এম হেদায়েতুল ইসলাম আজকের পত্রিকাকে বলেন, বই বিক্রির বিষয়টি তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ঝিনাইদহে আগুনে পুড়ে নারীর মৃত্যু

    সাটুরিয়ায় সড়কের কাজে ধীর গতি, জনদুর্ভোগ চরমে

    বাকি খাইয়ে প্রায় দেউলিয়া, ঢাবির জসীমউদ্দিন হলের ক্যানটিন বন্ধ

    বাঘায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এক যুবক গ্রেপ্তার

    সংবাদ প্রকাশের পর চট্টগ্রামে রেলের সেই কর্মচারীর অবৈধ দোকান উচ্ছেদ

    মাছ কাটা নিয়ে ঝগড়া, গায়ে আগুন দিয়ে গৃহবধূর ‘আত্মহত্যা’

    আবারও বাড়াল বিদ্যুতের দাম, কার্যকর কাল থেকে

    বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    চাকরি দেবে কর কমিশনারের কার্যালয়, পদসংখ্যা ৩০

    ইউক্রেনে যুদ্ধবিমান পাঠাবেন না বাইডেন

    ভবিষ্যৎ স্মার্ট বাংলাদেশের জন্য

    শিল্পের পথ রুদ্ধ করা যায় না