Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

সরবরাহ বাড়াতে ডাল, তেল ও সার কিনছে সরকার

আপডেট : ২০ অক্টোবর ২০২২, ১০:৫৬

সরবরাহ বাড়াতে ডাল, তেল ও সার কিনছে সরকার ১ কোটি ৬৫ লাখ লিটার সয়াবিন তেল ও ৮ হাজার টন মসুর ডাল কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সয়াবিন তেল কেনার জন্য সরকারের ব্যয় হবে ২৭৭ কোটি ৭৫ হাজার টাকা আর মসুর ডাল কিনতে ব্যয় হবে ৭১ কোটি টাকা। ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) জন্য কেনা হবে এ দুটি পণ্য।

এ ছাড়া কানাডা ও মরক্কো থেকে ৯০ হাজার মেট্রিক টন এমওপি ও ডিএপি সার কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এতে খরচ হবে ৭৩৯ কোটি ৪৩ লাখ ৪১ হাজার ৫০০ টাকা। গতকাল অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়। অর্থমন্ত্রী এ সভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়েছিলেন। সভা শেষে সভার সিদ্ধান্তের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানান মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. রাহাত আনোয়ার।

অতিরিক্ত সচিব জানান, টিসিবির মাধ্যমে ১ কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কেনার অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। মেঘনা এডিবল অয়েল রিফাইনারি লিমিটেডের কাছ থেকে এই তেল কেনা হবে। এ জন্য খরচ হবে ১৮৯ কোটি ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা। প্রতি লিটার ১৭১ দশমিক ৮৫ টাকা দরে এই তেল কেনা হবে। এর আগে প্রতি লিটার কেনা হয়েছিল ১৮৫ টাকা দরে।

এই তেল ভর্তুকি মূল্যে স্বল্প আয়ের মানুষদের কাছে বিক্রি করবে টিসিবি। প্রতি লিটারের দাম রাখা হবে ১১০ টাকা। এ ক্ষেত্রে মেঘনা এডিবল অয়েল থেকে কেনা তেলে লিটারে ৬২ টাকা আর সুপার অয়েলের তেলে লিটারে ৫০ টাকা ভর্তুকি দেওয়া হবে। বিপণন খরচ, ডিলারদের কমিশন বাবদও টিসিবির আরও কিছু টাকা খরচ হবে। বর্তমানে এই তেলের বাজারমূল্য ১৭৮ টাকা।

গতকালের বৈঠকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের দুটি প্রস্তাব টেবিলে উত্থাপন করা হয়। সেগুলো হলো টিসিবির মাধ্যমে স্থানীয়ভাবে উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতিতে ৫৫ লাখ লিটার সয়াবিন তেল সুপার অয়েল রিফাইনারি লিমিটেডের কাছ থেকে ক্রয়ের অনুমোদন। এতে মোট খরচ হবে ৮৭ কোটি ৯৭ লাখ ২৫ হাজার টাকা। প্রতি লিটার ১৫৯ দশমিক ৯৫ টাকা করে এ তেল কেনা হবে; আগে এর মূল্য ছিল ১৮৫ টাকা।

এ ছাড়া টিসিবি কর্তৃক স্থানীয়ভাবে উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতিতে ৮ হাজার মেট্রিক টন মসুর ডাল ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে খরচ হবে ৭০ কোটি ৯৮ লাখ ৬৬ হাজার টাকা। প্রতি কেজির দাম পড়বে ৮৮ দশমিক ৭৩ টাকা। সভায় বিএডিসির মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির আওতায় কানাডার কানাডিয়ান কমার্শিয়াল করপোরেশন থেকে ষষ্ঠ লটে ৪৩৭ কোটি ৫ লাখ ৯৪ হাজার টাকায় ৫০ হাজার মেট্রিক টন এমওপি সার এবং ৩০২ কোটি ৩৭ লাখ ৪৮ হাজার টাকায় মরক্কো থেকে নবম লটে ৪০ হাজার মেট্রিক টন ডিএপি সার আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব জানান, গতকাল অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২৩তম এবং সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ৩১তম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    কান্না থামেনি সেই মায়ের

    বালু তোলায় তীরে ভাঙন নদীতে যাচ্ছে ফসলি জমি

    প্রচার ও দক্ষতার অভাবে বাড়ছে না প্রবাসী শ্রমিক

    আজকের রাশিফল

    রাষ্ট্র ও রাষ্ট্রভাষা

    কৃষিজমি সুরক্ষায় অঙ্গীকার ও তৎপরতা

    ঢাকায় বিএনপির পদযাত্রা স্থগিত

    ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে অন্তঃসত্ত্বা ‘প্রেমিকার’ ধর্ষণ মামলা

    রিংকুসহ ২২ বাংলাদেশিকে আঙ্কারায় আনা হচ্ছে: কনসাল জেনারেল

    পা দিয়ে লিখে এইচএসসি পাস, হতে চান বিসিএস কর্মকর্তা

    ভূমিকম্প: তুরস্কে তীব্র ঠান্ডায় উদ্ধার ব্যাহত, বাড়ছে ক্ষোভ

    না.গঞ্জে রেস্তোরাঁয় ঢুকে গুলির ঘটনায় মালিকদের বিক্ষোভ