Alexa
রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

এমপির বিচার চেয়ে রাস্তায় আওয়ামী লীগ নেতা

আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬:৩৬

বুকে প্ল্যাকার্ড ঝোলানো সুরঞ্জিত সরকার। ছবি: আজকের পত্রিকা রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের এমপি আয়েন উদ্দিনের বিচার চেয়ে বুকে প্ল্যাকার্ড নিয়ে রাস্তায় দাঁড়িয়েছেন এক আওয়ামী লীগ নেতা। তাঁর নাম সুরঞ্জিত সরকার (৪৩)। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের মোহনপুর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক। উপজেলা আওয়ামী লীগের আগের কমিটির শ্রমবিষয়ক সম্পাদক ছিলেন তিনি।

গত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন পেয়ে পরাজিত হন সুরঞ্জিত। এমপি আয়েন উদ্দিনই তাঁকে ফেল করিয়েছেন বলে সুরঞ্জিতের অভিযোগ। তাই প্রধানমন্ত্রীর কাছে এমপির বিচার চেয়ে আজ বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর প্রাণকেন্দ্র সাহেববাজার জিরো পয়েন্টে দাঁড়ান সুরঞ্জিত। বেলা ৩টা পর্যন্ত তিনি সেখানেই ছিলেন।

সুরঞ্জিতের বুকে ঝোলানো প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট বিচার চাই। রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) এমপি আয়েন উদ্দিন ও তার দুলাভাই উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নির্যাতনের শিকার। ১. ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন পেলে বিরোধিতা করে ফেল করানো। ২. এমপির ক্যাডার বাহিনী দিয়ে হামলা করে হত্যার চেষ্টা ও অর্ধ পঙ্গু বানানো এবং ৩. ২০২১ সালে ইউনিয়ন নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন চাইলে হিন্দু জাতি ধর্ম তুলে কটূক্তি ও অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করা। এই নির্যাতনের বিচারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি।’

সুরঞ্জিত সরকার বলেন, ‘এমপি আয়েন উদ্দিন ও তাঁর দুলাভাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুস সালাম প্রকাশ্যে নৌকার বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন। তাই আমি নৌকা পেয়েও ফেল করি। পরের নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন চাইলে এমপি আমাকে জাত-ধর্ম তুলে গালাগাল করেন। এমপি তাঁর ক্যাডার বাহিনী দিয়ে আমার ওপর হামলা করে। সেই হামলায় আমি প্রায় মারাই যাচ্ছিলাম। ভারতে গিয়ে চিকিৎসা করে কোনোরকমে বেঁচে আছি। এখনো বছরে কয়েকবার চিকিৎসা করতে যেতে হয়।’

সুরঞ্জিত আরও বলেন, ‘চিকিৎসার ব্যয় বহন করতে গিয়ে আমি একেবারে শেষ হয়ে গেছি। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছেই এমপি ও তাঁর দুলাভাইয়ের বিচার চাই। তাই রাস্তায় দাঁড়িয়েছি।’

এ বিষয়ে এমপি আয়েন উদ্দিন বলেন, ‘মানসিকভাবে অসুস্থ একটা মানুষকে নিয়ে দয়া করে এগুলো (সংবাদ) করবেন না। তাঁকে নির্যাতন যারা করেছে, সেই সময় থানায় মামলা করেছে। আসামিরা কে দেখেন। একটা পুকুর নিয়ে গন্ডগোল করে মার খেয়েছে। এখন দায় চাপাচ্ছে আমার ওপর। অথচ তাঁর চিকিৎসায় আমি টাকা দিয়েছি। ভারতে পাঠিয়েছি।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে তামার তার চুরির সময় আটক ২ 

    ভুয়া কাগজ বানিয়ে বাসা দখলের অভিযোগ আ. লীগ নেত্রীর বিরুদ্ধে

    দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে ধাক্কা, মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

    বাকৃবি সাংবাদিক সমিতির সভাপতি আশিক, সম্পাদক আতিক

    শুধু সেলফি না, একতারা মার্কায় ভোটটা দিয়েন: হিরো আলম

    শেখ হাসিনাকে বরণে প্রস্তুত রাজশাহী

    বিতর্কের জাদুকর

    ইংরেজি ভয়, করব জয়

    আন্তর্জাতিক অ্যাফিলিয়েশনে গ্রিন ইউনিভার্সিটি

    কঠিন চ্যালেঞ্জে খোমেনিদের কর্তৃত্ব, ঘনীভূত পরমাণু সংকট

    তিন জুটির কাছে আসার গল্প