Alexa
সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১

সেকশন

 
ফ্যাক্টচেক

নকল শাহরুখ ও নকল আরিয়ানের ভিডিওতে বিভ্রান্তি

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৪৭

বেশ কিছু ভেরিফায়েড ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিওটি ব্যবহার করে প্রতিবেদন প্রচার করা হয়েছে। ছবি: ইউটিউব থেকে স্ক্রিনশট সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করে দাবি করা হচ্ছে, মাদক মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া আরিয়ান খানের সঙ্গে আদালত প্রাঙ্গণে শাহরুখ খানের দেখা হওয়ার মুহূর্ত এটি।

ভিডিওর ক্যাপশনে দাবি করা হচ্ছে, ‘গ্রেপ্তার হওয়ার পাঁচ দিনের মাথায় ভারতের নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) কোর্টের বাইরে শাহরুখ খানের সঙ্গে পুত্রের দেখা হয়। এ সময় এক আবেগঘন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। শাহরুখ খান তাঁর ছেলেকে জড়িয়ে ধরে কাঁদছিলেন।’

গত ২ অক্টোবর রাতে বলিউডের বাদশাহখ্যাত শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খানকে মুম্বাই থেকে গোয়াগামী একটি বিলাসবহুল প্রমোদতরিতে অভিযান চালিয়ে আটক করেন এনসিবির কর্মকর্তারা। ভারতের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযোগ, সেখানে মাদক পার্টি চলছিল।

শাহরুখপুত্রের এই কাণ্ডে যখন সমগ্র ভারতে তোলপাড় চলছে, সে সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত এই ভিডিও দ্রুত ভাইরাল হয়েছে। বলিউড সিটি ইউনিভার্সাল ইন সাইটস নামের বিনোদন-সংক্রান্ত ভেরিফায়েড ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিওটি ব্যবহার করে এ বিষয়ে প্রতিবেদন প্রচার করা হয়েছে। এসব ভিডিও কয়েক লক্ষবার দেখানো হয়েছে। ফেসবুক ও টুইটারের অসংখ্য আইডি থেকে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে।

ফেসবুক ও টুইটারের অসংখ্য আইডি থেকে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে। ছবি: টুইটার থেকে স্ক্রিনশট কী আছে ভিডিওতে
ভিডিওতে মূলত দুজন ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে। কোনো একটি প্রাঙ্গণে ওই দুই ব্যক্তি দেখা হওয়ার পরপরই একে অপরকে জড়িয়ে ধরেন। দুজনই মাস্ক পরিহিত। মুখমণ্ডল স্পষ্ট দেখা না গেলেও চুলের স্টাইল ও দেহের গড়নে প্রাথমিকভাবে কালো জ্যাকেট পরিহিত ব্যক্তিকে শাহরুখ খান বলেই মনে হচ্ছে।

ফ্যাক্টচেক
ভিডিওর উৎস যাচাইয়ের প্রাথমিক ধাপ রিভার্স ইমেজ সার্চ। তবে এই ভিডিওর ক্ষেত্রে রিভার্স সার্চে ভিডিওর উৎস সম্পর্কে কোনো নির্ভরযোগ্য সূত্র পাওয়া যায়নি।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওগুলোতে করা মন্তব্যগুলো অনুসন্ধান করে দেখা যায়, ‘শাহরুখ খানের মতো দেখতে ব্যক্তিটি শাহরুখ খান নন; ওই ব্যক্তির নাম ইব্রাহিম কাদরি’—এমন মন্তব্য করতে দেখা যায় বেশ কিছু ব্যবহারকারীকে।

অনুসন্ধানে পাওয়া যায় একটি স্ক্রিনশট। ইব্রাহিম কাদরির ইনস্টাগ্রাম আইডি থেকে নেওয়া ওই স্ক্রিনশটে সর্বশেষ আপলোড করা ভিডিওটির থাম্বনেইলে সম্প্রতি ভাইরাল ভিডিওর একটি অংশ দেখতে পাওয়া যায়। তবে ইব্রাহিম কাদরির ইনস্টাগ্রাম আইডিতে ঢুকে ওই ভিডিও পাওয়া যায়নি।

 

ইব্রাহিম কাদরির ইনস্টাগ্রাম আইডিতে ভিডিওটি পোস্ট করা হলেও পরে মুছে দেওয়া হয়। ছবি: সংগৃহীত সংবাদমাধ্যমে এ-সংক্রান্ত প্রতিবেদন অনুসন্ধান করে গত ৮ অক্টোবর ইন্ডিয়া টুডেতে প্রকাশিত একটি ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। ওই প্রতিবেদন থেকে নিশ্চিত হওয়া যায়, ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি শাহরুখ খান ও আরিয়ান খানের নয়। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে মূলত ইব্রাহিম কাদরি ও তাঁর বন্ধু গুফরান রুমিকে দেখা যাচ্ছে।

গত ৭ অক্টোবর ইব্রাহিম কাদরি তাঁর ইনস্টাগ্রাম আইডিতে ভিডিওটি পোস্ট করেন। শাহরুখ খানের মতো দেহাবয়ব, কণ্ঠ ও স্টাইলের কারণে কাদরি বেশ জনপ্রিয়। সামাজিক মাধ্যমে জনপ্রিয় গুজরাটের এই ব্যক্তি ভিডিওটি পোস্ট করলে শাহরুখ ভক্তরা তাঁকে ট্রল করা শুরু করেন। বিতর্কের মুখে তিনি ভিডিওটি ওই আইডি থেকে মুছে ফেলেন।

শাহরুখ খানের মতো দেহাবয়ব, কণ্ঠ ও স্টাইলের কারণে ইব্রাহিম কাদরি বেশ জনপ্রিয়। ছবি: সংগৃহীত ইন্ডিয়া টুডেতে প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে ইব্রাহিম কাদরি তাঁর অবস্থান ব্যাখ্যা করে একটি ভিডিও বার্তা পাঠিয়েছেন। কাদরি বলেন, ‘ভিডিওটি কয়েক দিন আগে গুজরাটে ধারণ করা হয়েছিল। কাউকে উপহাস করার জন্য নয়, বিনোদন দেওয়াই ছিল উদ্দেশ্য। যখন দেখলাম আমার ভিডিওটি অনেক লোক ভুল বুঝছেন, তখন আমি এটি মুছে ফেলেছি। আমি শাহরুখ খানকে ভালোবাসি। আমি কেন এমন কিছু করব, যা তার বিরুদ্ধে যায়?’

ভাইরাল ভিডিওতে ইব্রাহিমের সঙ্গে তাঁর বন্ধু গুফরান রুমিকে দেখা যাচ্ছে। তাঁর ইনস্টাগ্রাম আইডিতেও বিষয়টি স্পষ্ট করে একটি স্টোরি দেখতে পাওয়া যায়। ইব্রাহিম কাদরির সঙ্গে আরেকটি ভিডিও তৈরি করে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, ‘এটি শাহরুখ নয়, আরিয়ানও নয়। এটি তাঁদের মতোই দেখতে ইব্রাহিম কাদরি ও গুফরান রুমি।’ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এ-সংক্রান্ত সংবাদের স্ক্রিনশটও পোস্ট করতে দেখা যায় ওই আইডিতে।

গুফরান রুমির ইনস্টাগ্রাম আইডিতে বিষয়টি স্পষ্ট করে স্টোরি দেখতে পাওয়া যায়। ছবি: সংগৃহীত সিদ্ধান্ত
গ্রেপ্তারের পর ‘শাহরুখ খানের সঙ্গে আরিয়ান খানের দেখা হওয়ার আবেগঘন মুহূর্তের ভিডিও’ দাবিতে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি মূলত মজা করে তৈরি করা। শাহরুখ খানের মতো দেখতে ইব্রাহিম কাদরি তাঁর বন্ধু গুফরান রুমিকে নিয়ে ভিডিওটি তৈরি করেন। পরে এটি বিভ্রান্তিকর দাবিসহ ভাইরাল হয়। বিষয়টি তাঁরা দুজনই স্বীকার করেছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, সংবাদমাধ্যম বা যেকোনো মাধ্যমে প্রচারিত কোনো ছবি, ভিডিও বা তথ্য বিভ্রান্তিকর মনে হলে, তার স্ক্রিনশট বা লিংক কিংবা সে সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য আমাদের ই-মেইল করুন। আমাদের ই-মেইল ঠিকানা—[email protected]

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    ফ্যাক্টচেক

    ‘অন্ধকারের রানী’কে গিনেস বুকে খুঁজে পাওয়া যায়নি

    ফ্যাক্টচেক

    তাসমিয়া নয়, ছবিটি এক ভারতীয় শিশুর

    ফ্যাক্টচেক

    ফেসবুকে প্রাইভেসি রক্ষার এটাই কি শেষ সুযোগ

    ধুনটে ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হলেন যারা

    দেশে তামাক কোম্পানির হস্তক্ষেপ বেড়েছে

    ডিএসইতে সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন

    চলতি বছরে ঢাকার সড়কে প্রাণ ঝরেছে ১১৯টি

    নরসিংদীতে নির্বাচনী সহিংসতায় আরও একজনের মৃত্যু  

    উত্তরখানে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ও পুলিশ ক্যাম্প তৈরির নির্দেশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর