মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

সেকশন

 

শর্ত দিয়ে জরুরি সরকার শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় বসিয়েছিল: খন্দকার মোশাররফ

আপডেট : ২০ মার্চ ২০২৩, ২০:৩৩

বিএনপির সাবেক মহাসচিব অ্যাডভোকেট খন্দকার দেলোয়ার হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে প্রেসক্লাব অডিটরিয়ামে আয়োজিত এক স্মরণসভায় বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ছবি: আজকের পত্রিকা ২০০৭ সালের সর্বশেষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার তাদের অসাংবিধানিক কর্মকাণ্ডের বৈধতা দেওয়ার শর্তে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় বসিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। আজ সোমবার বিএনপির সাবেক মহাসচিব অ্যাডভোকেট খন্দকার দেলোয়ার হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে প্রেসক্লাব অডিটরিয়ামে আয়োজিত এক স্মরণসভায় তিনি এ কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, জরুরি সরকার এসেছে আওয়ামী লীগের আন্দোলনের ফসল হিসেবে। লগি-বৈঠা দিয়ে ঢাকা শহরে মানুষ হত্যা করে, সেই মানুষের ওপর নৃত্য করে যে আন্দোলন সৃষ্টি হয়েছিল—সেই আন্দোলনের ফসল নাকি জরুরি সরকার। আর সেই সরকার অসাংবিধানিক যা-ই করেছে, তিনি সব হালাল করে দিয়েছেন। এই শর্তেই জরুরি সরকার বর্তমান প্রধানমন্ত্রীকে ক্ষমতায় বসিয়েছিল।

এক-এগারোর সরকার বিএনপিকে ধ্বংস করে দিতে চেয়েছিল জানিয়ে খন্দকার মোশাররফ আরও বলেন, তারা মাইনাস টু ও বিরাজনীতিকরণের কথা প্রকাশ্যে বলে ক্ষমতা চালিয়ে যাচ্ছিল। মাইনাস টু বলতে তারা শেখ হাসিনার কথাও বোঝাতে চেয়েছিল। কিন্তু আসলে তা ছিল না। মাইনাস টু ফর্মুলা ছিল মাইনাস খালেদা জিয়া, মাইনাস তারেক রহমান। আর বিরাজনীতিকরণের অর্থ ছিল বিএনপিকে সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করে দেওয়া।

ক্ষমতায় আসার পর আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে উল্লেখ করে খন্দকার মোশাররফ বলেন, এই সরকার গণতন্ত্রকে হত্যা করে ২০১৪ সালে একতরফা নির্বাচন করেছিল। যে নির্বাচনে ১৫৩টি আসনে কোনো ভোট হয়নি। সে নির্বাচনে আওয়ামী লীগ গায়ের জোরে ক্ষমতায় ছিল। আবার আপনারা দেখেছেন, ২০১৮ সালে দিনের ভোট রাতে করে ক্ষমতায় এসেছে।

এই সরকার মেগা প্রকল্পে মেগা দুর্নীতি করছে জানিয়ে মোশাররফ বলেন, জনগণের প্রতি এ সরকারের কোনো দায়বদ্ধতা নাই বলে বড় বড় দুর্নীতি, মেগা প্রজেক্ট করে মেগা দুর্নীতি, ব্যাংক দুর্নীতি, ব্যাংক লুট, চাঁদাবাজি—এমন কোনো অপকর্ম নেই তারা করেনি। যার জন্য আজ দেশের অর্থনীতি ধ্বংসের পথে, ব্যাংকগুলো দেউলিয়া হয়ে গেছে। ডলারের অভাবে ব্যবসায়ীরা এলসি করতে পারছেন না। প্রতিদিন দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এই সরকার বিদ্যুতের মাধ্যমে সিন্ডিকেট করে হাজার কোটি টাকা লুট করার সুযোগ করে দিয়েছে অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, সরকার অর্থনীতিকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। বিচারব্যবস্থাকে দলীয়করণ করে ধ্বংস করে দিয়েছে। আজ দেশের জনগণ ভোট দিতে পারে না, দ্রব্যমূল্যের সীমাহীন ঊর্ধ্বগতি, অর্থনীতি ধ্বংসের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। জনগণ এই সরকারের বিদায় চায়।

খন্দকার দেলোয়ার হোসেন প্রসঙ্গে মোশাররফ বলেন, খন্দকার দেলোয়ার হোসেন বিএনপিতে যোগ দিয়ে মৃত্যুদিন পর্যন্ত তিনি বিএনপির জন্য অবদান রেখে গেছেন। বিএনপির চরম দুঃসময়ে তিনি দলের জন্য, দেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে সাহসী ভূমিকা রেখেছেন।

আব্দুল হাই শিকদারের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর ফলপ্রসূ: কাদের

    খালেদা জিয়ার হৃদ্‌যন্ত্রে বসানো হলো পেসমেকার, ২৪ ঘণ্টার আগে মন্তব্য করবেন না চিকিৎসকেরা

    খালেদা জিয়ার হৃদ্‌যন্ত্রে পেসমেকার বসানো হচ্ছে

    সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তীর আলোচনা সভা শুরু

    হত্যার উদ্দেশ্যে খালেদা জিয়াকে সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত করছে সরকার: মির্জা ফখরুল 

    রাজনৈতিক সমঝোতাই আওয়ামী লীগের চ্যালেঞ্জ

    সেমিফাইনাল করতে করতে ম্যাচই হারল বাংলাদেশ, আফগানরা গড়ল ইতিহাস

    বাগেরহাটে ২৭ মামলার আসামি অস্ত্র ও গুলিসহ পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার

    খাগড়াছড়ি পাহাড়ে রঙিন আম, বেশি দাম

    বৃষ্টি আনতে গুলবাদিনের অভিনয়, লিটনের মজা

    দেশের শীর্ষ করদাতা কাউছ মিয়া মারা গেছেন

    চাঁদপুরে দুই বাড়ি থেকে ৮৩ বস্তা প্রকল্পের চাল উদ্ধার, আটক ২