Alexa
রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

বাজারে এল অ্যাপলের ম্যাকবুক প্রো

আপডেট : ২৪ জানুয়ারি ২০২৩, ১৮:২৪

অ্যাপল ম্যাকবুক প্রো। ছবি: সংগৃহীত ল্যাপটপের জগতে অ্যাপলের ম্যাকবুক প্রো প্রতিবছর সেট করে দেয় নতুন স্ট্যান্ডার্ড। তারই ধারাবাহিকতায় নতুন জেনারেশনের ম্যাকবুক প্রো লঞ্চ করল অ্যাপল।

১৪ ও ১৬ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই ল্যাপটপগুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে শক্তিশালী এম২ সিরিজের চিপস। এ ছাড়া নতুন বছরের শুরুতেই ম্যাক মিনি ডেস্কটপ কম্পিউটার এনেছে মার্কিন সংস্থাটি। এই কম্পিউটারেও এম২ সিরিজের চিপস আছে। এম২ ছাড়াও এম২ প্রো চিপসে কেনা যাবে ম্যাক মিনি। অন্যদিকে ১৪ ও ১৬ ইঞ্চি মডেলের অ্যাপল ম্যাকবুক প্রো-তে থাকছে এম২ প্রো ও এম২ ম্যাক্স চিপস। ২৪ জানুয়ারি থেকে কোম্পানিটির অফিশিয়াল স্টোর থেকে ২৭টি দেশে এই ল্যাপটপ ও কম্পিউটার বিক্রি শুরু করবে অ্যাপল।

এম২ প্রো ও এম২ ম্যাক্স চিপ-চালিত ম্যাকবুক প্রো ১৪ ও ১৬ ইঞ্চি সংস্করণ পাওয়া যাবে। এটি এম১ ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে ২০ শতাংশ বেশি দ্রুত গতির সিপিইউ পারফরম্যান্স দেবে। এ ছাড়া ৩০ শতাংশ বেশি দ্রুতগতির জিপিইউ পারফরম্যান্স পাওয়া যাবে নতুন চিপগুলোতে। উভয় আকারের জন্য তিনটি করে প্রিসেট অপশন রেখেছে অ্যাপল, যা কিনতে পারবেন ক্রেতারা। আবার চাইলে নিজের সুবিধামতো প্রসেসর, মেমোরি ও স্টোরেজ অপশন বেছে নেওয়ার সুযোগও রয়েছে।

এম২ প্রো চিপে চলা ম্যাকবুকটিতে ৮ কোর সিপিইউ, ১০ কোর জিপিইউ বা গ্রাফিকস প্রসেসিং ইউনিট, ৮ গিগাবাইট র‍্যাম এবং ২৫৬ গিগাবাইট ধারণক্ষমতা রয়েছে। অন্য দিকে এম২ ম্যাক্স চিপে চলা ম্যাকবুকে রয়েছে ১০ কোর সিপিইউ, ১৬ কোর জিপিইউসহ ১৬ গিগাবাইট র‍্যাম এবং ৫১২ গিগাবাইট ধারণক্ষমতা। ১৪ ও ১৬ ইঞ্চি পর্দার ম্যাকবুকগুলোতে থান্ডারবোল্ট ৪ পোর্টের পাশাপাশি একটি করে ইউএসবি এবং এইচডিএমআই পোর্ট রয়েছে।

এম২ প্রো চিপ অ্যানিমেশনকে পূর্ববর্তী প্রজন্মের তুলনায় ২০ শতাংশ দ্রুত উপস্থাপন করে। ম্যাকবুক প্রোর ২০২৩ মডেলে ব্যাটারি লাইফের উন্নতি এসেছে নতুন প্রসেসরের কল্যাণে। ১৪ ইঞ্চি ম্যাকবুক মডেলে ১৮ ঘণ্টা ভিডিও প্লেব্যাক ও ১২ ঘণ্টা ওয়্যারলেস ওয়েব ব্রাউজিং উপভোগ করা যাবে একবার ফুল চার্জে। অন্যদিকে ১৬ ইঞ্চি মডেলে ২২ ঘণ্টা ভিডিও প্লেব্যাক ও ১৫ ঘণ্টা ওয়্যারলেস ওয়েব ব্রাউজিং পাওয়া যাবে।

নতুন ম্যাকবুক প্রো মডেলগুলোতে উন্নত কানেকটিভিটি ফিচার পাওয়া যাবে। ওয়াই-ফাই-৬-এর কল্যাণে এখানে ফাস্টার ওয়্যারলেস কানেকটিভিটি পাওয়া যাবে। আবার এদের এইচডিএমআই ২ দশমিক ১ স্ট্যান্ডার্ডে আপগ্রেড করা হয়েছে, যা ৮কে ৬০ হার্জ ও ৪কে ২৪০ হার্জ সাপোর্ট করবে। ভ্যারিয়েন্টভেদে ম্যাকবুক প্রো ১৪ ইঞ্চি পাওয়া যাবে আনুমানিক ২ লাখ ২০ হাজার, ২ লাখ ৭৫ হাজার ও ৩ লাখ ২০ হাজার টাকার মধ্যে। আর বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্টের ১৬ ইঞ্চি ম্যাকবুক প্রো পাওয়া যাবে ২ লাখ ৭৫ হাজার, ৩ লাখ এবং ৩ লাখ ৯০ হাজার টাকার মধ্যে। সব মডেল অ্যাপল অনলাইন স্টোরের মাধ্যমে কনফিগার করা যাবে।

সূত্র: অ্যাপল

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     
    জানেন কি

    প্রতিদিন ছড়িয়ে পড়ছে নতুন ৪ লাখ কম্পিউটার ভাইরাস

    চাকরির সাক্ষাৎকার নেওয়ার সময় বরখাস্তের খবর পেলেন গুগলের কর্মকর্তা

    জানেন কি

    প্রথম ডিজিটাল কম্পিউটারের ওজন ছিল ৩০ টন

    বেশি নম্বর না পেলেও স্নাতক পাস করল ‘চ্যাটজিপিটি’

    জুমে গ্রাহকসেবায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা

    জানেন কি

    প্রতিবছর ২০০ ছাগলকে চাকরি দেয় গুগল

    চলমান আন্দোলনে বড় মাত্রা যোগ করেছে যুগপৎ কর্মসূচি: মির্জা ফখরুল 

    বালতিতে উপুড় হয়ে পড়েছিল শিশু আফিফা, হাসপাতালে মৃত্যু

    মোহনগঞ্জে সাবেক ইউপি সদস্যের দরজার সামনে কাফনের কাপড়, এলাকায় আতঙ্ক

    ফাওয়াদ বাদ পড়ায় অবাক আফ্রিদি 

    লক্ষ্মীপুরে বিএনপির ৫৫ নেতা-কর্মীর জামিন মঞ্জুর

    এবার ব্যোমকেশ হচ্ছেন দেব