বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

সেকশন

 

ইরানি হামলা শিগগির, ইসরায়েলকে সতর্ক করল যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট : ১১ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৫

সিরিয়ায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত কমান্ডারদের জানাজায় ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর সদস্যরা। ছবি: এএফপি  যুক্তরাষ্ট্রসহ ইসরায়েলের পশ্চিমা মিত্র দেশগুলো মনে করছে, ইসরায়েলে বড় ধরনের ইরানি ক্ষেপণাস্ত্র বা ড্রোন হামলা অত্যাসন্ন। এ ক্ষেত্রে ইসরায়েলের সরকারি ও সামরিক স্থাপনাকে লক্ষ্যবস্তু করতে পারে ইরান। বিভিন্ন গোয়েন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে মার্কিন সম্প্রচারমাধ্যম ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সূত্র ইসরায়েলি ও মার্কিন গোয়েন্দা মূল্যায়নের ভিত্তিতে জানিয়েছে, ইরান সম্ভাব্য হামলার ক্ষেত্রে উচ্চ নির্ভুল লক্ষ্যমাত্রার ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করতে পারে। এবং আগামী কয়েক দিনের মধ্যে এই হামলা সংঘটিত হতে পারে। 

সিরিয়ায় ইরানি কনস্যুলেটে ইসরায়েলি হামলায় দেশটির বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) দুই শীর্ষ জেনারেল নিহত হন। সেই ঘটনার পর ইরান ইসরায়েলের ওপর প্রতিশোধ নেওয়ার প্রতিজ্ঞা করে। তারপর থেকেই অঞ্চলটিতে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। 

অপর একটি সূত্র জানিয়েছে, ইসরায়েলের পশ্চিমা মিত্ররা দেশটির সরকারকে জানিয়েছে, ইসরায়েলের সামরিক স্থাপনাকে লক্ষ্যবস্তু করলেও বেসামরিক স্থাপনায় ইরান হামলা চালাবে না বলেই মনে হয়। এ ব্যাপারে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো ইসরায়েলকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করছে। 

সূত্রটি আরও জানিয়েছে, ইসরায়েল তার মিত্র দেশগুলোকে জানিয়েছে, গাজায় আরও একটি বড় ধরনে অভিযান শুরুর আগে তারা ইরানি হামলার অপেক্ষা করছে। তবে ইরানি হামলা বা গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর স্থল অভিযান কবে শুরু হবে, সে বিষয়ে কোনো তথ্য জানা যায়নি। 

ইসরায়েলের মিত্র দেশগুলোর গোয়েন্দারা জানিয়েছে, ইসরায়েলে সরাসরি ইরান থেকেই হামলা করা হবে এমন কোনো নিশ্চয়তা নেই। বরং লেবাননে থাকা ইরানের প্রক্সি গোষ্ঠী হিজবুল্লাহও এই হামলা চালাতে পারে। একটি সূত্র জানিয়েছে, ইসরায়েলি কর্মকর্তারা মিত্র দেশগুলোর গোয়েন্দা মূল্যায়নকে আমলে নিয়েছে।

এদিকে, ইরানি প্রতিশোধের ভয়ে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা ইসরায়েলি দূতাবাসগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এমনকি কয়েকটি দূতাবাসের কার্যক্রম স্থগিতও করা হয়েছে। তবে কোন কোন দেশের দূতাবাস বন্ধ করা হয়েছে, সে বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়নি ব্লুমবার্গ।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    ৪৩ বছর জেলে থাকার পর প্রমাণ হলো নির্দোষ এই নারী

    আক্রান্ত হলে পরস্পরকে রক্ষা করবে পিয়ংইয়ং-মস্কো, কিম-পুতিন চুক্তি

    বেঁচে আছেন নোম চমস্কি, ছাড়া পেলেন হাসপাতাল থেকে 

    নির্বাচনের আগে ৫ লাখ অভিবাসীকে বৈধতা দিতে যাচ্ছেন বাইডেন

    নেতানিয়াহুর সরকারকে উৎখাত করা সম্ভব: ইয়ার লাপিদ

    পাকিস্তান বনাম ভারত: কোন দেশের পারমাণবিক অস্ত্র বেশি 

    বাংলাদেশের সুপার এইটের ম্যাচ দেখবেন কোথায় 

    রোহিঙ্গাদের কারণে এনআইডি পেতে ৩২ উপজেলার মানুষের ভোগান্তি

    রাজধানীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

    ম্যাচসেরা

    ইংলিশ সল্টের ঝাঁজ ভালোই টের পেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

    দুদিনেও উইকেটের দেখা পাননি শান্তরা

    কোটিপতি কমলেও ক্ষুদ্র হিসাব বেড়েছে