Alexa
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনে ঝুলন্ত সেতু ইস্যুতে ধাক্কা খেল বিজেপি

আপডেট : ১৫ নভেম্বর ২০২২, ১৯:৫১

গুজরাটের বিধানসভা নির্বাচনে ঝুলন্ত সেতু ইস্যুতে ধাক্কা খেয়েছে বিজেপি। ছবি: সংগৃহীত  ভারতের গুজরাট রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে বড় ধরনের ধাক্কা খেল বিজেপি। গত ৩০ অক্টোবর সেতু দুর্ঘটনায় ১৩৫ জনের মৃত্যুর জন্য বিজেপি পরিচালিত পৌর কর্তৃপক্ষের কড়া সমালোচনা করেছেন গুজরাট হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি অরবিন্দ কুমার। বিষয়টিকে ইস্যু করেছে বিরোধীরাও। 

গুজরাটে বিধানসভার নির্বাচন আগামী ১ ও ৫ ডিসেম্বর। তার আগে সেতু দুর্ঘটনার কারণে টানা প্রায় ৩ দশক ধরে ক্ষমতায় থেকেও স্বস্তিতে নেই বিজেপি। আজ হাইকোর্ট রাজ্য সরকারের ভূমিকার সমালোচনা করায় প্রচারে বাড়তি সুবিধা পাচ্ছে বিরোধীরা। গুজরাট হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি অরবিন্দ কুমারের মতে, সেতু মেরামতের বিষয়টিতে আরও সতর্ক হওয়া উচিত ছিল রাজ্য সরকারের। 

এদিকে, নির্বাচনের ভোট গ্রহণের আগেই সব সরকারি দপ্তর থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি সরাতে হবে, কোনো সরকারি বিজ্ঞাপনেও ব্যবহার করা যাবে না তাঁর ছবি। এমনটাই দাবি তুলেছে আম আদমি পার্টি। দলটির যুক্তি, বিজেপির প্রচার তালিকায় স্টার ক্যাম্পেইনার হিসেবে মোদির নাম সবার আগে। ফলে এই নির্বাচনে তিনিই দলের প্রধান প্রচারক। এই বিষয়ে আম আদমি পার্টির গুজরাট শাখার আইনি শাখার সম্পাদক পুনিত জুনেজার বক্তব্য, ‘নির্বাচনী আচরণবিধি অনুযায়ী কোনো দলীয় প্রচারকের প্রচার নির্বাচন চলাকালে সরকার করতে পারে না। 

আম আদমি পার্টির সভাপতি ও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল স্বচ্ছ প্রশাসনের স্বার্থে ১৮২টি আসনের মধ্যে ১৫০টি আসনেই দলীয় প্রার্থীদের জয়ী করতে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে গুজরাটবাসীর প্রতি। তিনি বলেছেন, ‘কংগ্রেসকে ভোট দেওয়া মানে ভোট নষ্ট করা।’ অরবিন্দ কেজরিওয়ালের এই দাবির বিপরীতে কংগ্রেসের অভিযোগ, আম আদমি পার্টি বিরোধীদের ভোটে ভাগ বসিয়ে বিজেপির সুবিধা করতেই গুজরাটে লড়ছে। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

     
     

    সস্তায় রাশিয়ার তেল কিনে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে রপ্তানি করছে ভারত

    ৫৮ বছরের নারীকে ধর্ষণের পর হত্যা করল কিশোর

    ৩ মাসের শিশুকে ৫১ বার গরম রডের সেঁক, অবশেষে মৃত্যু 

    বাল্যবিবাহের অভিযোগে আসামে ১৮০০ পুরুষ গ্রেপ্তার

    আদানির শেয়ার ডুবছে, লোকসভায় তোলপাড়ও চলছে  

    আদানির সঙ্গে বাংলাদেশের চুক্তি সংশোধন প্রশ্নে ভারত বলল— সরকার জড়িত নয়

    চালুর ৯ দিন পর যমুনা সার কারখানার উৎপাদন ফের বন্ধ

    ‘পলিটিকস করে ছুটির ঘণ্টা ছিনিয়ে নিয়েছিলেন শাবানা’

    শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসীর মানববন্ধন 

    তিন ফসলি জমিতে কোনো প্রকল্প নয়, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা

    এক বছর ধরে হল প্রস্তুত, উদ্বোধন না হওয়ায় উঠতে পারছেন না ববির ছাত্রীরা

    বগুড়ায় ছেলের বন্ধুরা খুন করে সাবেক নারী ইউপি সদস্যকে: পুলিশ