বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

সেকশন

 

সূর্যগ্রহণ লিখে সার্চ দিলেই গুগলে আলো-আঁধারির খেলা 

আপডেট : ০৮ এপ্রিল ২০২৪, ১৭:২৯

রুশ ভাষায় সূর্যগ্রহণ লিখে সার্চ দেওয়ার পর গুগলের ইন্টারফেস। ছবি: সংগৃহীত  বিগত ৫০ বছরের মধ্যে দীর্ঘতম সূর্যগ্রহণ ঘটতে যাচ্ছে আজ সোমবার। সংগত কারণেই জ্যোতির্বিদ থেকে শুরু করে সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে এটি নিয়ে প্রবল আগ্রহ তৈরি হয়েছে। বিরল এ ঘটনাকে আলোচিত করে রাখতে এক দারুণ উদ্যোগ নিয়েছে সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগল। বিশ্বের প্রধান প্রধান ভাষায় ‘সূর্যগ্রহণ’ লিখে সার্চ দিলেই আলো-আঁধারির মতো ঘটনা ঘটছে গুগলের ইন্টারফেসে। 

বাংলা ভাষায় সূর্যগ্রহণ, ইংরেজিতে Solar eclipse, স্প্যানিশে Eclipse solar, চীনা ভাষায় 日食, ফরাসি ভাষায় éclipse solaire, জার্মান ভাষায় Sonnenfinsternis, আরবিতে كسوف الشمس, হিন্দিতে सूर्यग्रहण, উর্দুতে سورج گرہن, জাপানি ভাষায় 日食 এবং রুশ ভাষায় солнечное затмение লিখে সার্চ দিলেই সূর্যগ্রহণের মতো পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে গুগলে। 

উল্লিখিত ভাষাসহ আরও বেশ কয়েকটি ভাষায় গুগল এই মজার সুবিধা দিচ্ছে। গুগলে সূর্যগ্রহণ বা এর বিভিন্ন বিদেশি ভাষার প্রতিশব্দ লিখে সার্চ দিলে ঠিক সূর্যগ্রহণের মতো করে একটি আলোর বলয় একটু একটু করে অন্ধকারে ঢেকে যাচ্ছে। অল্প কিছুক্ষণ পরেই আবার পুরো ইন্টারফেস আলোকিত হয়ে উঠছে। 

এদিকে, সারা বিশ্বের সব প্রান্ত থেকেই গুগলের বদৌলতে ভার্চুয়াল সূর্যগ্রহণ দেখা গেলেও বাস্তবে এই বিরল ঘটনা শুধু যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো ও কানাডা থেকে দেখা যাবে। তবে প্রযুক্তির কল্যাণে বাংলাদেশের মানুষও এ ঘটনা লাইভ উপভোগ করতে পারবেন। 

সূর্যগ্রহণের স্থায়িত্ব ও দৃশ্যমানতা পর্যবেক্ষকের ভৌগোলিক অবস্থানের ওপর নির্ভর করে। যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস, ওকলাহোমা, আরকানসাস, মিসৌরি, ইলিনয়, কেনটাকি, ইন্ডিয়ানা, ওহাইও, পেনসিলভানিয়া, নিউইয়র্ক, ভার্মন্ট, নিউ হ্যাম্পশায়ার ও মেইন অঙ্গরাজ্য থেকে পূর্ণগ্রাস এই সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে। 

মেক্সিকোর প্রশান্ত মহাসাগরীয় উপকূলে অবস্থিত সৈকত শহর মাজাটলানের কাছে দর্শক ভালোভাবে পূর্ণগ্রাস গ্রহণ উপভোগ করতে পারবে। যেসব জায়গায় সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে, সেখানে অন্যান্য দেশের উৎসাহী ব্যক্তিরা জড়ো হচ্ছেন। 

সূর্যগ্রহণের ঘটনাটি নাসা সরাসরি সম্প্রচার করবে। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট ম্যাশাবলের মতে, ইস্টার্ন স্ট্যান্ডার্ড টাইম অনুযায়ী ৮ এপ্রিল বেলা ১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত নাসা এ ঘটনা লাইভ সম্প্রচার করবে। অর্থাৎ বাংলাদেশ থেকে ৮ এপ্রিল রাত ১১টা থেকে রাত ২টা পর্যন্ত দেখা যাবে। এ ঘটনার লাইভ স্ট্রিম নাসার ইউটিউব চ্যানেলে ও নাসাপ্লাস ওয়েবসাইটে সম্প্রচার করবে। 

এবারের সূর্যগ্রহণ ৭ দশমিক ৫ মিনিট পর্যন্ত স্থায়ী হবে। এত দীর্ঘ সূর্যগ্রহণ ৫০ বছরের মধ্যে একবার ঘটে। সর্বশেষ ১৯৭৩-এ রকম দীর্ঘ সূর্যগ্রহণ দেখা গিয়েছিল। আবার ২১৫০ সালে এই বিরল সূর্যগ্রহণের দেখা মিলবে। সূর্যগ্রহণের আরেকটি আকর্ষণীয় দিক হলো—ঘটনার সময়। সূর্যের ১১ বছরের ঘটনাচক্রের চূড়ান্ত পর্যায়ের সঙ্গে সূর্যগ্রহণটি মিলে যাবে। অর্থাৎ, এ সময় সৌর ঘটনা বেড়ে যাওয়ার কারণে আরও বেশি সৌর কলঙ্ক এবং করোনা (সূর্যের বাইরের শ্বেত অংশ) দেখা যাবে। 

কক্ষপথে চাঁদ ও সূর্য একই সারিতে এসে পড়ার ফলে ঘটে সূর্যগ্রহণ। এমন পরিস্থিতিতে সূর্যের আলো সরাসরি চাঁদের গায়ে পড়ে, ফলে পৃথিবীতে চাঁদের ছায়া পড়ে। সে সময় পৃথিবীর একাংশের দর্শকের চোখে সূর্য সম্পূর্ণরূপে চাঁদের আড়ালে থাকে। ফলে এ সময় পৃথিবীর ওই অংশ অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    অপেরা ব্রাউজারে যুক্ত হচ্ছে গুগলের জেমিনি 

    বেশিরভাগ সম্পদ দাতব্য প্রতিষ্ঠানে দান করবেন স্যাম অল্টম্যান

    স্টারবাকসের যে শাখায় খাবার পরিবেশন করে ১০০ রোবট

    চোখের পলকে রুবিক’স কিউব সমাধান করে বিশ্ব রেকর্ড গড়ল রোবট 

    হোয়াটসঅ্যাপের টু স্টেপ ভ্যারিফিকেশন পিন রিসেট করবেন যেভাবে 

    ঘূর্ণিঝড়ে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন: ২৬ হাজার মোবাইল টাওয়ার এখনো সচল হয়নি

    পাবনার ৩ উপজেলায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা

    ১১ ব্যাংকে আটকা হজযাত্রীদের ৫৬ কোটি টাকা

    খালি হচ্ছে জনপ্রশাসনের শীর্ষ দুই পদ, আলোচনায় ৫ নাম

    নেতানিয়াহু রক্তখেকো ভ্যাম্পায়ার, মন্তব্য এরদোয়ানের

    নীল নদের উৎস জিঞ্জা