সোমবার, ২৭ মে ২০২৪

সেকশন

 

বিএনপির প্রচেষ্টা মুক্তিযুদ্ধকে প্রশ্নবিদ্ধ করা: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী

আপডেট : ২৩ মার্চ ২০২৩, ১৮:১৩

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক। ছবি: আজকের পত্রিকা  বিএনপির প্রচেষ্টা মুক্তিযুদ্ধকে প্রশ্নবিদ্ধ করা, অস্বীকার করা বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে ২৩ মার্চ ঐতিহাসিক পতাকা দিবস উপলক্ষে ‘একটি পতাকার জন্য’ শিরোনামে আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। ‘উঠোন—সংস্কৃতি চর্চা প্রতিষ্ঠান’ এটির আয়োজন করে। 

মন্ত্রী বলেন, ‘পতাকা দিবস হিসেবে ২৩ তারিখ বেছে নেওয়ার কারণ এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে পতাকা ওঠানো হয়েছিল, বিচ্ছিন্নভাবে এক তারিখ দুই তারিখে উঠেছিল পতাকা—২৩ তারিখ ছিল পাকিস্তান সৃষ্টির প্রস্তাব যেটাকে লাহোর প্রস্তাব বলা হয়। ১৯৪০ সালের ২৩ মার্চ যে প্রস্তাবের ভিত্তিতে পাকিস্তান কায়েম হয়েছিল সেটার জন্য পাকিস্তান আমলে ২৩ মার্চকে রিপাবলিক ডে অব পাকিস্তান হিসেবে পালন করা হতো, সেদিনেই আমরা পাকিস্তান ভাঙার জন্য এই দিনটিকে বেছে নিয়েছি। সেদিন পতাকা উত্তোলন করেছি, ঐতিহাসিক কারণে এই দিনটা ছিল। সে জন্য বলব এটা ইতিহাসের একটা বড় অংশ এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের টার্নিং পয়েন্ট বলতে পারি।’ 

৭ই মার্চ তো আছেই, ৭ মার্চের পরে বঙ্গবন্ধুর হাতে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করার পরে ঘোষণার দরকার থাকে না বলে উল্লেখ করেন মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী। 

মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী আরও বলেন, ‘বাবু গয়েশ্বর রায় (বিএনপি নেতা) বললেন, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার জন্য কোনো পূর্বপ্রস্তুতি ছিল না। উনি কবে কোথায় রাজনীতি করেছেন আমরা আগে থেকে শুনিনি। যাক, তারপরেও করতে পারেন। আপনারা না শুনলে কেউ করেনি এটাতো বলা যাবে না। আমি তাঁর (গয়েশ্বর) রাজনৈতিক পিতা আইয়ুব খানকে সাক্ষী মানতে চাই। আইয়ুব খান তাঁর আগরতলা কেসে শেখ মুজিবের বিরুদ্ধে কী বলেছেন। শেখ মুজিব পূর্ব পাকিস্তান করতে চান, অনেক কথা—সংক্ষিপ্তভাবে বলতে গেলে ওদের (পাকিস্তান) কাছে বিচ্ছিন্নতা মানে আমাদের কাছে স্বাধীনতা। তাঁর (গয়েশ্বর) বাবাতো কইয়ে গেছে, শুধু অভিযোগ আনে নাই, তথ্য উপাত্ত দিয়ে কইয়ে গেছে—আবার সে বলে পূর্বপ্রস্তুতি ছিল না। বঙ্গবন্ধু ২৩ বছর পাকিস্তানের ১৩ বছর জেলে ছিলেন, প্রতিদিন কোথায় কী বলেছেন, কী করেছেন, সেগুলো বলেছেন, পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্ট রয়েছে, আমাদের তৈরি করা না, ওটা পড়ার জন্য আমি গয়েশ্বর বাবুকে অনুরোধ করব। দলিল পড়েন, আপনার মুরব্বিরা শেখ মুজিবকে কী উপাধি দিয়েছিল—শেখ মুজিব পাকিস্তান বিরোধী বিচ্ছিন্নতাবাদী।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপির সাধারণ সম্পাদক (মির্জা ফখরুল) এক মাসে আগে বলেছেন পাকিস্তান আমল নাকি এর চেয়ে ভালো ছিল। কারণ পাকিস্তানের কথা তাঁরা ভুলে নাই, কোন সূচকে তারা ভালো ছিল জাতি তা জানতে চায়। এটা বুঝতে হলে আরেকটু পেছনে যান, কাদের মোল্লার যখন ফাঁসি দেওয়া হলো যুদ্ধাপরাধী হিসেবে তখন পাকিস্তানের পার্লামেন্টে সাচ্চা ইমানদার পাকিস্তানি হিসেবে তাঁর জন্য একটা শোকপ্রস্তাব এনেছিল এবং তাঁর (কাদের মোল্লা) ফাঁসি দিলাম, বিচার করে যুদ্ধাপরাধী হিসেবে; আর তাঁরা দেশপ্রেমিক হিসেবে সম্মান জানিয়েছে। যা যা পাকিস্তান পার্লামেন্ট বলছে ঠিক এর পরদিন বেগম খালেদা জিয়া বিএনপির এক বৈঠকে তা তা বলেছেন—তাঁদের (বিএনপি) প্রচেষ্টা হলো আমাদের মুক্তিযুদ্ধকে প্রশ্নবিদ্ধ করা এবং মুক্তিযুদ্ধকে অস্বীকার করা, সরাসরি অস্বীকার করতে পারে না তাই যখনই সুযোগ পায় তখনই কখনো প্রত্যক্ষ আবার কখনো পরোক্ষভাবে অপপ্রচার চালিয়ে যায়। তাঁরা মুক্তিযুদ্ধকে মেনে নিতে পারে না।’ 

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর তাঁদের (বিএনপি) রাজনৈতিক অভিভাবক জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিদের বিদেশে যাওয়ার পথ সুগম করে দিয়েছেন নিরাপদে। শুধু তাই নয়, তাঁদের পদায়ন করেছেন উচ্চপদে, বৈদেশিক দূতাবাসে পদায়ন করেছেন, চাকরি দিয়েছেন, জাতির জনকের হত্যাকারীদের বিচার করা যাবে না মর্মে ইনডেমনিটি আইনও করেছেন। একটা অপরাধীকেও মারলেও বিচার হবে কিন্তু জাতির জনকের হত্যাকরীদের বিচার হবে না। তাতে কী বোঝা যায়? এখানেই শেষ করেন নাই, ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের সংবিধান, পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ সংবিধান বাহাত্তরের সংবিধান আস্তাকুঁড়ে নিক্ষেপ করে পাকিস্তানি কায়দায় ধর্মনিরপেক্ষতা বাদ দিয়ে সাম্প্রদায়িকতা ঢুকিয়ে ধর্মভিত্তিক রাজনীতি ঢুকিয়েছে। গোলাম আজমকে নাগরিকত্ব দিলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের কোনো লোক না রেখে মুক্তিযুদ্ধ বিরোধীদের নিয়ে মন্ত্রিসভা বানিয়েছেন।’ 

উঠোন—সংস্কৃতি চর্চা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি অলক দাশগুপ্তের সভাপতিত্বে আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ। সূচনা বক্তব্য রাখেন উঠোন-এর সাধারণ সম্পাদক অনিকেত রাজেশ। আলোচনা সভা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    গুমের ঘটনা বন্ধে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ চায় বিএনপি 

    উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় এ পর্যন্ত বহিষ্কার ২১৭ বিএনপি নেতা

    খালেদা জিয়াকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে সরকার: মির্জা আব্বাস

    আজিজ-বেনজীরদের অপরাধী বানাল কারা, প্রশ্ন গয়েশ্বরের

    কারাগারে গেলেই কাজী নজরুল ইসলামকে স্মরণ করি: রিজভী

    অপরাধে জড়িতরা কোনো রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মী নন, দুর্বৃত্ত: ওবায়দুল কাদের

    উপকূল জুড়ে চলছে রিমালের তাণ্ডব

    এবার কাতার এয়ারওয়েজের বিমান ঝোড়ো বাতাসের কবলে, আহত ১২

    শর্ত পূরণ না করায় সহজ ডটকমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

    চলতি বছর ডেঙ্গু দেশের জন্য অশনিসংকেত

    এমআরসিপিতে সর্বোচ্চ নম্বরের রেকর্ড গড়লেন ডা. হালিম

    ঢাকার প্রধান প্রধান সড়কে ব্যাটারিচালিত রিকশা চলবে না: ডিএমপি