Alexa
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

রোমাঞ্চকর ফাইনালের আগে সমর্থকদের ‘চেয়ার-মিসাইল’ ছোড়াছুড়ি

আপডেট : ১৯ মে ২০২২, ১৪:১৫

৪২ বছর পর ইউরোপিয়ান শিরোপা জিতল ফ্রাঙ্কফুর্ট।  ছবি: সংগৃহীত কট্টর জার্মান সমর্থকদের ঝাঁজ ভালোই টের পেয়েছিল বার্সেলোনা। ন্যু ক্যাম্পে এসে নিজেদের দলের জয় বলতে গেলে একপ্রকার কেড়েই নিয়েছিল আইনট্রাখট ফ্রাংকফুর্টের সমর্থকেরা। দাঙ্গাবাজ এই সমর্থকদের অগ্নিমূর্তি গতকাল আরও একবার দেখা গেল স্পেনের সেভিয়াতে, ইউরোপা লিগের ফাইনালে। 

চার দশকের বেশি সময় পর ইউরোপিয়ান শিরোপাজয়ের স্বপ্ন নিয়ে সেভিয়ার স্টাডিও র‍্যামন সানচেজ-পিজুয়ানে মুখোমুখি হয়েছিল জার্মান দল ফ্রাংকফুর্ট ও স্কটিশ দল রেঞ্জারস। শিরোপা দখলে দুই দলের লড়াই হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি। সমতায় থাকা রোমাঞ্চকর ফাইনালে টাইব্রেকারে ৫-৪ ব্যবধানে শেষ হাসি হেসেছে ফ্রাংকফুর্ট। তবে এর আগে একচোট লড়াই হয়েছে দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে। 

৪২ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতাসম্পন্ন র‍্যামন সানচেজ-পিজুয়ান স্টেডিয়ামে সমান ১০ হাজার করে ফাইনালের টিকিট পেয়েছিল ফ্রাংকফুর্ট ও রেঞ্জারস সমর্থকেরা। কিন্তু পুলিশ বলছে, সব মিলিয়ে এই ম্যাচ দেখতে আন্দালুসিয়ান রাজধানীতে হাজির হয়েছিল অন্তত দেড় লাখ মানুষ! টিকিটহীন এসব সমর্থকের বেশির ভাগই দখল করেছিল সেভিয়ার ক্যাফে আর পানাশালাগুলো। ঘটনার সূত্রপাত সেখান থেকেই। 

ম্যাচের আগের রাতে রেঞ্জারসের একদল সমর্থকের ওপর হামলা চালিয়েছিল ২০০ জার্মান উগ্র সমর্থক। পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয় পাঁচ জার্মান। সেই ঘটনার প্রভাব পড়েছে গতকাল ম্যাচের আগে, অর্থাৎ বুধবার। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখা গেছে একে অপরের দিকে ক্যাফে-রেস্তোরাঁর চেয়ার ছোড়াছুড়ি করছে দুই দলের সমর্থক। প্রতিপক্ষের ছোড়া মিসাইল থেকে বাঁচতে পালাতে দেখা গেছে এক জার্মান সমর্থককে! 

ইউরোপা লিগ ফাইনালের আগে কুৎসিত হাতাহাতিতে জড়ান ফ্রাঙ্কফুর্ট-রেঞ্জারস সমর্থকেরা। ছবি: সংগৃহীত মার খেয়েছে রেঞ্জারস সমর্থকেরাও। উগ্র জার্মানদের হাতে বেশুমার ঘুষি-লাথি খেয়েছে স্কটিশ দলটির সমর্থকেরা। সম্মিলিতভাবে দুই দলের ভক্তরা রেস্তোরাঁর গ্লাস ভেঙেছে। পানশালায় হাতাহাতি করেছে। বোমবেরো ও কালে পুয়ের্তায় হওয়া দুই দলের সংঘর্ষ ঠেকাতে রাস্তায় দাঙ্গা পুলিশ নামাতে বাধ্য হন সেভিয়ার মেয়র আন্তোনিও মুনোজকে।

সমর্থকদের হামলার ঝাঁজ অবশ্য মাঠে পড়তে দেননি ফ্রাংকফুর্ট-রেঞ্জারস ফুটবলাররা। ৫৭ মিনিটে জো আরিবোর গোলে রেঞ্জারসকে হতাশায় ডুবিয়ে ৬৯ মিনিটে ফ্রাঙ্কফুর্টকে সমতায় ফেরান রাফায়েল বোর। ম্যাচ টাইব্রেকে গড়ালে গোল করতে ব্যর্থ হন ওয়েলশ তারকা অ্যারন রামসে। রাফায়েল বোরের শট জালে জড়াতেই ১৯৮০ সালের পর আবারও ইউরোপিয়ান শিরোপার স্বাদ পায় ফ্রাংকফুর্ট। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ‘মেসি বার্গারের’ স্বাদ নিচ্ছেন মেসি

    ডমিনিকায় সুস্থ আছেন শরীফুল-সোহানরা

    হঠাৎ নিজেকে কেন আড়াল করছেন নাদাল

    নতুন মাইলফলক ছুঁলেন লায়ন

    বিকেএসপিতে দিয়ার ইতিহাস 

    কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে ৪৪১ রান করে অবহেলার জবাব দিলেন ফিনলে বিন

    ‘বই নষ্ট হয়ে গেছে, পড়ব কী’

    সহযোদ্ধার শেষ বিদায়ে কাঁদলেন খাদ্যমন্ত্রী

    বুয়েটে ভর্তির সুযোগ পেলেন সৈয়দপুরের এক কলেজের ১৬ শিক্ষার্থী

    আবেদনের ৮ বছর পর লিখিত পরীক্ষার জন্য ডেকেছে বাপেক্স

    ছয় দফাকে কবর দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন হয় না: গণফোরাম

    ছাত্রলীগ নেতার মরদেহ উদ্ধার, পরিবার বলছে প্রেমের কারণে আত্মহত্যা