Alexa
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 
ফ্যাক্টচেক

ইউক্রেনের সেনাদের হত্যাকাণ্ডের নয়, চলচ্চিত্র থেকে নেওয়া ভিডিও এটি

আপডেট : ২২ মার্চ ২০২২, ১২:২৬

ফেসবুকে দাবি করা হচ্ছে ইউক্রেনের সেনা সদস্যরা ১৯৯৯ সালে এক ব্যক্তিকে তাঁর স্ত্রীর সামনে নির্মমভাবে হত্যা করেছিলেন। ছবি: ফেসবুক থেকে স্ক্রিনশট ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যকার চলমান যুদ্ধকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীদের অনেকেই একটি মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের ভিডিও পোস্ট করছেন। দাবি করা হচ্ছে, ১৯৯৯ সালে ইউক্রেন সেনারা একজন মুসলিমকে তাঁর স্ত্রীর সামনে গুলি করে হত্যা করেছিল। এটি সেই ঘটনার ভিডিও। 

১ মিনিট ৫৩ সেকেন্ড দৈর্ঘ্যের ভিডিওটিতে দেখা যায়, কিছু সেনাসদস্য রাইফেল হাতে হাস্যোজ্জ্বল ভঙ্গিতে একে অপরের সঙ্গে কথা বলছেন। এ সময় তিন ব্যক্তি একজন আরেকজনকে ঘিরে দাঁড়িয়ে আছেন এবং আহাজারি করছেন।

ভিডিওর ১ মিনিট ১৮ সেকেন্ডের সময় একজন সেনাসদস্য পুরুষ ব্যক্তিকে গুলি করেন। নারীটি সে সময় চিৎকার করতে থাকেন। ভিডিওটিতে ওই নারীর মাথায় হিজাব ও পুরুষের মাথায় টুপি দেখা যাচ্ছে।

ফ্যাক্টচেক
ফ্যাক্টচেকের নির্ভরযোগ্য সফটওয়্যার ইনভিডের মাধ্যমে রিভার্স ইমেজ সার্চ প্রযুক্তির সহায়তায় ভিডিওটির মূল ভার্সন খুঁজে পাওয়া যায় ইউটিউবে।

গুগল ট্রান্সলেটরের মাধ্যমে অনুবাদ করে জানা যায় এটি ১৯৯৯ সালের যুদ্ধবিধ্বস্ত চেচনিয়ার প্রেক্ষাপটে নির্মিত একটি ফরাসি চলচ্চিত্রের অংশ। ছবি: গুগল থেকে স্ক্রিনশট ২০২১ সালের ২৯ মার্চ আপলোড করা ইউটিউবের ওই ভিডিওর ক্যাপশনটি গুগল ট্রান্সলেটরের মাধ্যমে অনুবাদ করে জানা যায় এটি ১৯৯৯ সালের যুদ্ধবিধ্বস্ত চেচনিয়ার প্রেক্ষাপটে নির্মিত একটি ফরাসি চলচ্চিত্রের অংশ। ইউটিউবের ক্যাপশনটি রুশ ভাষায় লেখা হয়েছে।

অস্কার জয়ী ফরাসি পরিচালক মাইকেল হ্যাজানাভিকাস (Michel Hazanavicius) ২০১৪ সালে দ্য সার্চ নামের এই চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন। ইউটিউবে প্রকাশিত ২ ঘণ্টা ১৪ মিনিট দৈর্ঘ্যের এ চলচ্চিত্রের শুরুর দিকেই (৩ মিনিট ৫০ সেকেন্ড) সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়। চলচ্চিত্রের এই অংশ সত্য ঘটনা অবলম্বনে ফুটেজ আকারে যুক্ত করা হয়েছে।

ফরাসি চলচ্চিত্র দ্য সার্চের পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত প্রসঙ্গত, ইসলামিক ইন্টারন্যশনাল পিস কিপিং ব্রিগেড (IIPB) দাগেস্তান দখলে নেওয়ার চেষ্টা করলে রাশিয়ান ফেডারেশন ১৯৯৯ সালের ২৬ আগস্ট দ্বিতীয় চেচেন যুদ্ধ শুরু করে। ২০০০ সালের মে মাসে চেচনিয়ায় প্রত্যক্ষ শাসন প্রতিষ্ঠা করে রাশিয়া। কিন্তু ককেশাস অঞ্চলজুড়ে চেচেন মুজাহিদদের তীব্র প্রতিরোধ সংগ্রামের কারণে রাশিয়ার ক্ষয়ক্ষতি দিনে দিনে বৃদ্ধি পেতে থাকে, যার ফলশ্রুতিতে ১৬ এপ্রিল ২০০৯ সালে রাশিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে তথাকথিত ‘সন্ত্রাসবাদ নির্মূল অভিযান’ শেষ করে।

সিদ্ধান্ত
সম্প্রতি ফেসবুকে ১৯৯৯ সালে ইউক্রেন সেনাদের দ্বারা একজন ব্যক্তিকে হত্যা করার দৃশ্য বলে যে ভিডিওটি প্রচার করা হচ্ছে, সেটি মূলত একটি চলচ্চিত্র থেকে নেওয়া। চলচ্চিত্রটি ১৯৯৯ সালের যুদ্ধবিধ্বস্ত চেচনিয়ার প্রেক্ষাপটে নির্মিত।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, সংবাদমাধ্যম বা যে কোনো মাধ্যমে প্রচারিত কোনো ছবি, ভিডিও বা তথ্য বিভ্রান্তিকর মনে হলে, তার স্ক্রিনশট বা লিংক কিংবা সে সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য আমাদের ই-মেইল করুন। আমাদের ই-মেইল ঠিকানা—[email protected]

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     
    ফ্যাক্টচেক

    মঞ্চ ভেঙে শিল্পী অদৃশ্য: কোক স্টুডিও বাংলা কনসার্টে নয়

    ফ্যাক্টচেক

    পুরোটাই গুজব: পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠান স্থগিত

    ফ্যাক্টচেক

    ওই সাত শিশু এক মায়ের নয়

    ফ্যাক্টচেক

    মৃতদেহ পানিতে পড়ে যাওয়ার ভিডিওটি টিভি নাটকের দৃশ্য

    ফ্যাক্টচেক

    ‘যে মাদক অফার করে, সে কখনো বন্ধু হতে পারে না’

    ফ্যাক্টচেক

    ‘ইভিএমে নৌকা ছাড়া মার্কা নেই’ দাবিতে ভাইরাল ভিডিওটি নাসিক নির্বাচনের নয়

    বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক পদে পদোন্নতি পেলেন সাঈদা খানম

    উজবেকিস্তানে সরকার বিরোধী আন্দোলনে বিশৃঙ্খলায় নিহত ১৮, আহত ২৪৩ 

    ডিএমপিতে তিন থানার ওসিসহ ১৭ কর্মকর্তার বদলি

    কারাগারে দল গঠনের পর মহাসড়কে ডাকাতি করতেন তাঁরা

    প্রথম স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা, দ্বিতীয় স্ত্রীসহ যুবক গ্রেপ্তার 

    আ.লীগ জনগণের সেবক হয়ে থাকতে চায়: কাদের