বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪

সেকশন

 

বহির্শক্তির হস্তক্ষেপ চীন-তাইওয়ানের পুনরেকত্রীকরণ ঠেকাতে পারবে না: সি

আপডেট : ১০ এপ্রিল ২০২৪, ১৬:৫৩

চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের সঙ্গে তাইওয়ানের সাবেক প্রেসিডেন্ট মা ইং-জোও। ছবি: ব্লুমবার্গ  চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং বলেছেন, বহির্শক্তির হস্তক্ষেপ চীনের সঙ্গে তাইওয়ানের পুনরেকত্রীকরণ ঠেকাতে পারবে না। আজ বুধবার তাইওয়ানের সাবেক প্রেসিডেন্টের মা ইং-জোওয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তিনি এই কথা বলেন। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। 

চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সি চিন পিং বলেন, ‘আমাদের সিস্টেমের মধ্যে থাকা পার্থক্য বস্তুনিষ্ঠ সত্যকে পরিবর্তন করতে পারে না যে আমরা একই জাতি এবং একই জনগোষ্ঠী।’ এ সময় সি আরও বলেন, ‘বহিরাগত হস্তক্ষেপ আমাদের পুনরেকত্রীকরণের ঐতিহাসিক কারণকে ঠেকাতে পারবে না।’ 

এদিকে, সপ্তাহখানেক আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপকালে সি চিন পিং বলেছিলেন, তাইওয়ান ইস্যু চীন-যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কে প্রথম বিপৎসীমা এবং যুক্তরাষ্ট্রের উচিত হবে না সেই রেখা অতিক্রম করা। তিনি আরও বলেন, ‘তাইওয়ানের স্বাধীনতা’ একধরনের বিচ্ছিন্নতাবাদী তৎপরতা। যদি কোনো বাহ্যিক শক্তি উৎসাহ ও সমর্থন দেয়, তবে চীন ‘হাত ধুয়ে বসে থাকবে না’। 

সি চিন পিং এ সময় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানান, দেশটির প্রেসিডেন্ট বাইডেন ‘তাইওয়ানের স্বাধীনতাকে সমর্থন করে না’ মর্মে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সেটিকে কাজে পরিণত করতে। এ সময় তিনি বাইডেনের সঙ্গে হংকং, মানবাধিকার, দক্ষিণ চীন সাগর ও অন্যান্য ইস্যুতেও কথা বলেন। 

এর আগে, গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের প্রেসিডেন্ট এক ভাষণে বলেন, ‘মাতৃভূমির (চীনের) সঙ্গে সম্পূর্ণভাবে একীভূত হয়ে যাওয়ার উপলব্ধির বিষয়টি উন্নয়নের একটি অনিবার্য ধারা। দেশের ন্যায়পরায়ণ জনগণও এটি চায়।’ ভাষণে চীনের প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, ‘মাতৃভূমি (চীন ও তাইওয়ান) অবশ্যই আবারও একীভূত হবে।’ 

তাইওয়ানকে অনেক আগে থেকেই নিজেদের ভূখণ্ড বলে দাবি করে আসছে চীন। তাইওয়ানকে কেন্দ্র করে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে দফায় দফায় কূটনৈতিক দ্বন্দ্ব তৈরি হয়েছে। সর্বশেষ তাইওয়ানকে নিয়ে চীনের পরিকল্পনার কথা মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে জানিয়েছেন সি চিন পিং। তিনি বাইডেনকে বলেছেন, চীন অবশ্যই তাইওয়ানকে নিজের সঙ্গে একীভূত করে নেবেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    সৌদি-ইসরায়েল সম্পর্ক স্বাভাবিক না হওয়ার শঙ্কা ব্লিঙ্কেনের

    সংক্রমিত রক্ত কেলেঙ্কারি: যুক্তরাজ্যে আক্রান্ত ৩০ হাজার, মৃত ৩ হাজার

    নিজেকে ‘গোপন প্রেমের ফসল’ দাবি করলেন ফিলিপিনো শহরের সেই অচেনা মেয়র

    শাবকের ক্ষতির আশঙ্কায় বৃদ্ধকে হত্যা করল হরিণ

    রাইসিকে উদ্ধারে যোগ না দেওয়ার কারণ জানাল যুক্তরাষ্ট্র 

    গাজায় দুই সপ্তাহে ফের বাস্তুচ্যুত ৯ লাখ ফিলিস্তিনি: জাতিসংঘ

    উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

    দ্বিতীয় ধাপের ভোটে যাঁরা চেয়ারম্যান হলেন

    সিলেটে নির্বাচনে হেরে আ.লীগ নেতাকে বেইজ্জতি করার হুমকি

    সিলেট থেকে সরাসরি হজ ফ্লাইট চালু

    পুনের পোর্শেকাণ্ড: আড়াই হাজার টাকার জন্য লাইসেন্স ছিল না সাড়ে ৩ কোটির গাড়িটির

    এমপি আনোয়ারুল আজীমকে খুন করতে ৫ কোটি টাকার চুক্তি

    যেসব কারণে ভ্রমণ ও পর্যটন সূচকে তলানিতে বাংলাদেশ