মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

সেকশন

 

আনচেলত্তির কীর্তির ম্যাচে ভিনিসিয়ুসের জয়গান

আপডেট : ২৫ মে ২০২৩, ১১:৪০

মাঠে ঢোকার সময় ভিনিসিয়ুসের সতীর্থদের গায়ে তাঁর নাম ও নম্বরসহ জার্সি ছিল। ছবি: এএফপি রায়ো ভায়েকানোর ম্যাচের আগে ভিনিসিয়ুসের লাল কার্ডের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হলেও ব্রাজিলিয়ান তারকাকে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুয়ের ম্যাচে রাখেননি কার্লো আনচেলত্তি। স্কোয়াডে না থাকলেও রিয়াল ফরোয়ার্ড ছিলেন পুরো ম্যাচেই।

শুরু থেকে শেষ ভিনিসিয়ুসের জয়গানই হয়েছে বার্নাব্যুতে। মাঠে তাঁর নাম ও নম্বর সংবলিত জার্সি পরে সতীর্থরা ছিলেন পাশে। আর ম্যাচ শুরুর অনেক আগেই ভিনিকে নিয়ে প্ল্যাকার্ড লেখায় গ্যালারিতে এসেছিলেন সমর্থকেরা। প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল—আমরা সবাই ভিনিসিয়ুস, অনেক হয়েছে। অর্থাৎ, ভিনির পাশে সবাই দাঁড়িয়েছেন। আর ‘বর্ণবাদ নিপাত যাক’ চিৎকার ছিল সমর্থকদের মুখে। শুধু বার্নাব্যুতেই নয়, রিয়াল মাদ্রিদের নারী ফুটবল দল ও খেলার ক্লাবগুলোও গতকাল তাঁর নাম ও নম্বর সংবলিত জার্সি পরে তাঁকে বিশেষ ট্রিবিউট দিয়েছেন।

গ্যালারিতে রিয়াল মাদ্রিদের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের পাশে বসে দলের জয় দেখেছেন ভিনিসিয়ুস। করিম বেনজেমা ও রদ্রিগোর গোলে ২-১ ব্যবধানে ভায়েকানোকে হারিয়েছে রিয়াল। প্রতিপক্ষের হয়ে ব্যবধান কমানো গোলটি করেছেন রাউল দে টমাস। ম্যাচের ২০ মিনিটের সময় ভিনিসিয়ুসকে দাঁড়িয়ে অভিবাদনও জানিয়েছেন সমর্থকেরা।

বার্সেলোনা পাঁচ ম্যাচ আগেই চ্যাম্পিয়ন হয়ে যাওয়ায় নিয়ম রক্ষার ম্যাচে রিয়ালকে প্রথম লিড এনে দেন বেনজেমা। ৩১ মিনিটে করা গোলটি এবারের লিগে তাঁর ১৮তম। আর সব মিলিয়ে ৩০তম গোল। এ নিয়ে সর্বশেষ ৩ মৌসুমে ৩০ কিংবা তার বেশি গোল করলেন তিনি। অথচ এর আগের ১১ মৌসুমে মাত্র দ্বিতীয়বার এমন কীর্তি গড়েছিলেন সাবেক ফরাসি স্ট্রাইকার।

ম্যাচের ৮৪ মিনিটে গোল করে ভায়েকানোকে ১ পয়েন্ট এনে দেওয়ার আশা জাগিয়েছিলেন টমাস। কিন্তু একদম শেষ মুহূর্তে গোল করে ভিনি ও কার্লো আনচেলত্তির ম্যাচকে স্মরনীয় করে রাখেন রদ্রিগো। ৮৯ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের করা গোলেই ২-১ ব্যবধানের জয় পায় রিয়াল। 

বার্নাব্যুতে গতকালের ম্যাচটি ছিল আনচেলত্তির জন্য স্মরণীয় এক ম্যাচ। লস ব্ল্যাংকোসদের চতুর্থ কোচ হিসেবে লা লিগায় ১৫০ ম্যাচে ডাগআউটে দাঁড়িয়েছেন তিনি। ১০৬ জয়ের বিপরীতে ২১ ড্র ও ২৩ ম্যাচ হেরেছেন রিয়াল বস। ইতালিয়ান কোচের আগে ভিনস্টেন্ট দেল বক্স (১৫৩), জিনেদিন জিদান (১৮৩) ও মিগুয়েল মুনোজ (৪২৪) এই মাইলফলক অর্জন করেছেন।

লা লিগার অন্য ম্যাচে রিয়ালের নগর প্রতিদ্বন্দ্বী আতলেতিকো মাদ্রিদ ৩-৩ গোলে ড্র করেছে এস্পানিওলের বিপক্ষে। ৩ গোলে এগিয়ে থেকেও ড্রয়ের হতাশায় পুড়তে হয়েছে ডিয়েগো সিমিওনের দলকে। লিড এনে দেওয়া গোল ৩টি করেছিলেন সাউল নিগুয়েজ, আঁতোয়ান গ্রিজমান ও ইয়ানিক কারাসকো। অন্যদিকে এস্পানিওলকে সমতায় ফেরান চেসার মনটেস, জোসেলু ও ভিনিসিয়ুস সৌজা।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    ভক্তদের কাছে ক্ষমা চাইলেন শান্ত

    সেমিফাইনাল করতে করতে ম্যাচই হারল বাংলাদেশ, আফগানরা গড়ল ইতিহাস

    বৃষ্টি আনতে গুলবাদিনের অভিনয়, লিটনের মজা

    ‘বিপদে’ সাহায্য চাওয়া অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশকে ডাকে না ১৬ বছর

    কোপা আমেরিকার শুরুটা সুখকর হলো না ব্রাজিলের 

    বাংলাদেশের বোলিংয়ে উন্নতি চোখের প্রশান্তি, অনুপ্রেরণাদায়ক

    ভক্তদের কাছে ক্ষমা চাইলেন শান্ত

    ঝিনাইদহে রেলস্টেশনের কাছে পড়ে ছিল যুবকের দ্বিখণ্ডিত মরদেহ

    শেখ হাসিনা দেশকে বিক্রি করে না, সমালোচনার জবাবে প্রধানমন্ত্রী

    আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন পেলেন পরীমণি 

    উত্তরা ব্যাংকে চাকরির সুযোগ

    যে শঙ্কায় বিয়ে করছেন না সালমান, জানালেন বাবা সেলিম খান