Alexa
রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

টুইটার কার্যালয়ের জিনিসপত্র নিলামে তুলেছেন ইলন মাস্ক

আপডেট : ২১ জানুয়ারি ২০২৩, ২০:০৯

আর্থিক সংকটে টুইটার। ছবি: ফাইল ছবি ইলন মাস্ক মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটার অধিগ্রহণের পর থেকেই আর্থিক সংকটে ভুগছে প্রতিষ্ঠানটি। অনেক বিজ্ঞাপন দাতা প্ল্যাটফর্মটি থেকে মুখ ফিরিয়ে নেওয়ার কারণেই মূলত আয় কমেছে টুইটারের। ব্যয় কমাতে মাস্ক যেমন কর্মী ছাঁটাইসহ নিয়েছেন নানা পদক্ষেপ, তেমনি আয় বাড়াতেও নিয়েছেন নতুন অনেক সিদ্ধান্ত। এবার টুইটারের সানফ্রান্সিসকো হেডকোয়ার্টারের বিভিন্ন জিনিসপত্র অনলাইন নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। 

ওয়াশিংটন পোস্টের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, টুইটারের ২৬৫টি রান্নাঘর সামগ্রী ও আসবাবপত্র নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাস্ক। এই অনলাইন নিলামটি পরিচালনা করছে হেরিটেজ গ্লোবাল পার্টনার্স নামের একটি সংস্থা। ন্যূনতম ২৫ ডলার দিয়ে অংশ নেওয়া যাচ্ছে নিলামে। প্রতিবেদনে আরও জানা গেছে, টুইটারের নিষ্ক্রিয় অ্যাকাউন্টগুলোর হ্যান্ডল নেমও অনলাইনে নিলামে তোলা হবে। 

এক বছরে টুইটারের আয় প্রায় ৪০ শতাংশ কমেছে বলে সম্প্রতি প্রতিবেদনে জানিয়েছিল দ্য গার্ডিয়ান। গত অক্টোবর থেকে ৫০০–এর বেশি বিজ্ঞাপনদাতা প্রতিষ্ঠান বিজ্ঞাপন দেওয়া স্থগিত করায় টুইটারের আয়ে ধস নেমেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

আর্থিক সংকটের কারণে সারা বিশ্বে টুইটারের একাধিক অফিসে এখনো ভাড়া বকেয়া রয়েছে। সান ফ্রান্সিসকো কার্যালয়ের ভাড়া পরিশোধ না করায় টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ভবনের মালিক কলম্বিয়া রেইট। মোট ১ লাখ ৩৬ হাজার ২৬০ ডলার ভাড়া বকেয়া রয়েছে বলে জানা গেছে। গত ডিসেম্বরে প্রকাশিত নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, টুইটার সান ফ্রান্সিসকোর মার্কেট স্ট্রিটের সদর দপ্তর এবং অন্যান্য বৈশ্বিক কার্যালয়ের ভাড়া পরিশোধের সময়সীমারও কয়েক সপ্তাহ পিছিয়ে ছিল। 

জেনারেল মিলস এবং আমেরিকার গাড়ি নির্মাতা অডির মতো প্রতিষ্ঠানগুলো টুইটারে বিজ্ঞাপন দেওয়া বন্ধ করেছে। তবে গত ডিসেম্বরে টুইটারে আবার বিজ্ঞাপন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বিজ্ঞাপনদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো। আবার বিজ্ঞাপন দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে বিশ্ববিখ্যাত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আমাজনও। টুইটারে প্রতিবছর বিজ্ঞাপন দিতে আমাজন খরচ করবে ১০০ কোটি ডলার। 

গত বছরের প্রথম প্রান্তিকে টুইটারের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপনদাতা ছিল অ্যাপল। এ সময়ে টুইটারে বিজ্ঞাপনের জন্য ৪ কোটি ৮০ লাখ ডলার খরচ করেছিল অ্যাপল। তবে গত নভেম্বর থেকেই টুইটারে বিজ্ঞাপন দেওয়ার পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছে এই টেক জায়ান্ট।

অ্যাপল গত ১০ থেকে ১৬ নভেম্বরের মধ্যে টুইটারে বিজ্ঞাপনের পেছনে খরচ করে আনুমানিক ১ লাখ ৩১ হাজার ডলার, যেখানে ১৬ থেকে ২২ অক্টোবর খরচ করে ২ লাখ ২০ হাজার ডলারের কিছু বেশি।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     
    জানেন কি

    প্রতিদিন ছড়িয়ে পড়ছে নতুন ৪ লাখ কম্পিউটার ভাইরাস

    চাকরির সাক্ষাৎকার নেওয়ার সময় বরখাস্তের খবর পেলেন গুগলের কর্মকর্তা

    জানেন কি

    প্রথম ডিজিটাল কম্পিউটারের ওজন ছিল ৩০ টন

    বেশি নম্বর না পেলেও স্নাতক পাস করল ‘চ্যাটজিপিটি’

    জুমে গ্রাহকসেবায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা

    জানেন কি

    প্রতিবছর ২০০ ছাগলকে চাকরি দেয় গুগল

    তিন জুটির কাছে আসার গল্প

    ওই দেখা যায় ঝিনুক স্টেশন

    স্মার্ট পোশাকের ঝলক

    আজ রাজশাহীতে ২৫ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

    মুজার সঙ্গে জেফারের নতুন গান

    জানেন কি

    প্রতিদিন ছড়িয়ে পড়ছে নতুন ৪ লাখ কম্পিউটার ভাইরাস