মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

সেকশন

 

ব্যাটার মন খারাপ করবেন বলে উইকেট উদ্‌যাপন করেন না হাসান

আপডেট : ২৩ মার্চ ২০২৩, ২০:৩২

প্রথমবার ওয়ানডেতে ৫ উইকেট শিকার করেছেন হাসান মাহমুদ। ছবি: এএফপি আয়ারল্যান্ডকে ১০ উইকেটে হারিয়ে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতেছে বাংলাদেশ। সিরিজজুড়ে ব্যাটিং-বোলিংয়ে একচেটিয়া আধিপত্য দেখিয়েছে তারা। সিলেটে আজ শেষ ওয়ানডেতে আইরিশদের বিপক্ষে রীতিমতো রেকর্ডই গড়েছেন তামিম ইকবালরা। প্রথমবারের মতো ওয়ানডেতে কোনো দলকে ১০ উইকেটে হারিয়েছেন তাঁরা। 

প্রথম ওয়ানডেতেও আয়ারল্যান্ডকে ১৮৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে এ সংস্করণে নিজেদের সর্বোচ্চ ৩৪৯ রানও করেছিল তারা। বৃষ্টি বাগড়া দেওয়ায় ওই ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়। তাই সিরিজ জয়ের জন্য শেষ ওয়ানডে পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে বাংলাদেশকে। সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে পেসারদের তোপ দাগানো বোলিং আর তামিম ও লিটন দাসের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের দিনে খুব সহজেই সেটি করে দেখিয়েছে তারা। 

সব মিলিয়ে এ সিরিজে বাংলাদেশ যে পারফরম্যান্স করেছে, তাতে সাকিব আল হাসান-তাসকিন আহমেদরা পূর্ণ নম্বরই পাচ্ছেন। অধিনায়ক তামিমের কাছে তো এ সিরিজের পারফরম্যান্স এক কথায় ‘অবিশ্বাস্য’। ম্যাচ শেষে অধিনায়ক বললেন, ‘অবিশ্বাস্য! আমরা যেভাবে পুরো সিরিজ খেলেছি, তা খুবই দুর্দান্ত ছিল।’ 

এই ম্যাচে বাংলাদেশের পেস বোলাররা আয়ারল্যান্ডের সব কটি উইকেট শিকার করেছেন। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে এটাই প্রথম ঘটনা, কোনো ম্যাচের ১০ উইকেটই নিয়েছেন পেসাররা। তাসকিন আহমেদ, হাসান মাহমুদ, মোস্তাফিজুর রহমান ও ইবাদত হোসেনরা গত কয়েক সিরিজ ধরে দারুণ বোলিং করছেন। এক সময় পেস বোলিং নিয়েও অনেক দুর্দশা পোহাতে হয়েছে বাংলাদেশকে। 

এখন বাংলাদেশের পেস বোলিং নিয়েও গর্ব হচ্ছে তামিমের, ‘এখন আমি গর্ব করে বলতে পারি, আমাদের একটি শক্তশালী ফাস্ট বোলিং ইউনিট রয়েছে। মিরাজের মতো খেলোয়াড়রা যখন ব্যাট হাতে পারফর্ম করতে শুরু করে, তখন আমরা আরও ভালো শর্ট খেলতে পারি।’ 

তামিম বলেন, ‘খেলোয়াড়দের প্রতি বিশ্বাস রাখতে হবে, উত্থান-পতন থাকবেই কিন্তু বিশ্বের সেরা হওয়ার জন্য আমাদের ইউনিট আছে।’ 

শেষ ওয়ানডেতে সুযোগ পেয়েই অসাধারণ বোলিং করেছেন হাসান মাহমুদ। ৮.১ ওভারে ৩২ রান দিয়ে এ পেসারের শিকার ৫ উইকেট। এটাই ওয়ানডেতে তাঁর সেরা বোলিং। পেস বোলারদের এমন পারফরম্যান্সের পেছনে পেস বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ডকেই কৃতিত্ব দিয়েছেন হাসান, ‘আবহাওয়া ও পরিস্থিতি ফাস্ট বোলারদের সাহায্য করেছিল। এখানে সবাই বোলিং উপভোগ করেছ। অ্যালান ডোনাল্ড একজন ব্যক্তি যিনি আমাদের উন্নতির পেছনে ছিলেন, বোলাররাও ধীরে ধীরে উন্নতি করেছে। আমরা নতুন বলে সুইং এবং লেংথ ও সঠিক জায়গা বোলিং করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করছি।’ 

হাসান আরও বলেন, ‘এটা আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে আমার প্রথম পাঁচ উইকেট। ঘরোয়াতেও পাঁচ উইকেট পাওয়া হয়নি। আরও যারা পেস বোলার আছে বিগত কয়েক বছর ধরে অনেক পরিশ্রম করছি ডোনাল্ডের সঙ্গে। সবা চেষ্টা করছি এটা আরও কীভাবে উন্নতি করা যায়।’ 

উইকেট নেওয়ার পর সেভাবে উদ্‌যাপন করতে দেখা যায়নি হাসানকে। ম্যাচ শেষে পর এর পেছনের কারণ স্পষ্ট করলেন, ‘এমনিতে করি না। ব্যাটারকে আউট করে উদ্‌যাপন করলে মনে হয় ও আরেকটু মন খারাপ বেশি করবে, তাই উদ্‌যাপন করি না।’

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     

    আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকার প্রাথমিক দলে নেই দিবালা

    ‘সে দলের অধিনায়ক নয়’ আম্পায়ারের সঙ্গে কোহলির তর্ক নিয়ে হেইডেন

    বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সিরিজ দেখবেন কোন টিভিতে 

    ‘পাকিস্তানের বিপক্ষে জ্বলে উঠলে সবাই পান্ডিয়াকে মাথায় তুলে নাচবে’ 

    ক্রিকেট নয়, অলিম্পিক পদক দিয়ে বাংলাদেশকে চিনবে বিশ্ব

    আইপিএলের কারণে রাসেল-পুরানদের পাচ্ছে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ

    টাটা ইলেকট্রিক ট্রাক এস ইভি ১০০০

    চাঁদে যাচ্ছে ২৭৫টি ভাষার মেমোরি ডিস্ক

    এয়ারপডে পানি ঢুকলে

    দুঃস্বপ্ন দেখলে পাঁচ করণীয়

    ভূমধ্যসাগরে ভাসতে থাকা ৩৫ বাংলাদেশি উদ্ধার

    সিলেটে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, ৩টি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ