Alexa
রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সেকশন

epaper
 

চেক ডিজঅনার মামলায় হাইকোর্টের দেওয়া নিষেধাজ্ঞা স্থগিত

আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮:৩১

চেক ডিজঅনার মামলায় হাইকোর্টের দেওয়া নিষেধাজ্ঞা স্থগিত কোনো ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান ঋণ আদায়ের জন্য চেক ডিজঅনার মামলা করতে পারবে না—এই মর্মে হাইকোর্টের দেওয়া রায় দুই মাসের জন্য স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ।

ব্র্যাক ব্যাংকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আজ বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

গত ২৩ নভেম্বর চেক ডিজঅনার মামলা করা যাবে না বলে রায় দেন হাইকোর্ট। পরে হাইকোর্টের রায় স্থগিত চেয়ে আবেদন করলে চেম্বার বিচারপতি বিষয়টি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠান। ব্র্যাক ব্যাংকের পক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন। রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আবদুল্লাহ আল বাকী।

এদিকে হাইকোর্টের দেওয়া ওই রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি আজ প্রকাশিত হয়েছে। রায়ে বলা হয়েছে, ব্যাংকের টাকা জনগণের। জনগণের টাকা আর্থিক প্রতিষ্ঠান বা ব্যাংক কাকে দিচ্ছে তা জনগণের জানার অধিকার আছে। তাই প্রত্যেক ঋণ মঞ্জুরের সঙ্গে সঙ্গে মঞ্জুরের অনুমতিপত্র সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। আর এ বিষয়ে নির্দেশনা জারি করতে বাংলাদেশ ব্যাংককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রায়ে বলা হয়, প্রতিটি ঋণের বিপরীতে ইনস্যুরেন্স বাধ্যতামূলক করে আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রতি অনতিবিলম্বে বাংলাদেশ ব্যাংক নির্দেশনা জারি করবে। আর খেলাপি ঋণ আর্থিক প্রতিষ্ঠান কী পদ্ধতিতে আদায় করবে তার বিষয়ে অনুমতিপত্রে বিস্তারিত বর্ণনা দিতে হবে। আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক সব ঋণ প্রদানে সর্বোচ্চ স্বচ্ছতা ও আধুনিকীকরণের পদক্ষেপ নেওয়ার পরামর্শ দেবে এবং নিয়মিত তা তদারকি করবে।

রায়ে আরও বলা হয়, আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ঋণের বিপরীতে জামানত হিসেবে গৃহীত চেক বিনিময়যোগ্য দলিল নয়, তাই এমন চেক ডিজঅনারের (প্রত্যাখ্যান) মামলা গ্রহণে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। আর যদি কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠান চেক প্রত্যাখ্যানের মামলা করে, তবে তা বিচারিক আদালতকে সরাসরি প্রত্যাখ্যান করতে বলা হয়।

হাইকোর্ট বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে বর্তমানে দেখা যাচ্ছে যে, আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো জাতীয় সংসদ কর্তৃক প্রণীত অর্থঋণ আদালত আইন, ২০০৩-কে পাশ কাটিয়ে ঋণ গ্রহীতা থেকে তাদের খেয়ালখুশি মতো বেআইনিভাবে জামানতস্বরূপ ব্লাঙ্ক চেক গ্রহণ করছে। আর ওই চেকে টাকার অঙ্ক বসিয়ে চেক প্রত্যাখ্যান করে ঋণ গ্রহীতার বিরুদ্ধে মামলা করে জেলে পাঠাচ্ছে। যেহেতু আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো অর্থঋণ আদালতে ঋণ আদায়ে পদক্ষেপ নিতে পারে, তাই চেক প্রত্যাখ্যানের মামলা করার কোনো সুযোগ নেই।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    কমল স্বর্ণের দাম, ভরি ৯২ হাজার

    রমজানের জন্য পণ্যের এলসি খুলতে সমস্যা নেই: বাংলাদেশ ব্যাংক

    আইএমএফের ঋণ: প্রথম কিস্তির ৪৭ কোটি ৬২ লাখ ডলার পেল বাংলাদেশ 

    রেমিট্যান্সে ঊর্ধ্বমুখী হাওয়া

    ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক পিএলসির (ইউসিবি) সঙ্গে অ্যাসেট ডেভেলপমেন্টসের দুটি চুক্তি স্বাক্ষর

    বাণিজ্য মেলায় রপ্তানি আদেশ পাওয়া গেছে ৩০০ কোটি টাকার: বাণিজ্যমন্ত্রী

    ৫ ইউনিটের চেষ্টায় পাহাড়তলী বাজারের আগুন নিয়ন্ত্রণে

    ‘তুর কলিজায় এতবল আসে কোত্থেকে, সামনাসামনি আয়’

    শিবগঞ্জে ট্রাক-প্রাইভেট কারের মুখোমুখি সংঘর্ষ, ভাই-বোন নিহত

    ‘হিরোকে যারা জিরো বানাতে এসেছে, তারাই জিরো হয়েছে’

    আঙিনায় জোড়া বাঘ, বনরক্ষীদের শ্বাসরুদ্ধকর ২০ ঘণ্টা

    আগারগাঁওয়ের চাপ কমাতে ঢাকায় পাসপোর্ট অফিসের সীমানা পুনর্নির্ধারণ