প্রতীকী ছবি

নাটোরের বড়াইগ্রামে রসূল আলম (১৭) নামের এক বখাটের বিরুদ্ধে স্কুলে যাবার পথে ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় শনিবার রাতে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অভিযুক্ত রসূল আলম উপজেলার বড়াইগ্রাম সদর ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে। সে এবার উপশহর উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন অনিয়মিত এসএসসি পরীক্ষার্থী।

বড়াইগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক আহসান হাবীব জানান, শনিবার সকালে ঐ ছাত্রী বাড়ি থেকে স্কুলে যাচ্ছিল।

পথে সম্প্রতি বন্ধ হয়ে যাওয়া বাজিতপুর দাখিল মাদ্রাসার কাছে আসলে রসূল তার পথ রোধ করে। পরে তাকে মাদ্রাসার একটি পরিত্যক্ত কক্ষে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

এ সময় পথচারীরা মেয়েটির কান্নাকাটি শুনে এগিয়ে গেলে রসূল দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে স্বজনেরা তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেন।

মামলা দায়েরের পর মেয়েটির মেডিকেল চেকআপ সম্পন্ন করা হয়েছে।

বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস জানান, অভিযুক্ত বর্তমানে পলাতক রয়েছে। তবে তাকে আটকের সর্বাত্মক চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

-আসাদুল ইসলাম আসমত