Alexa
শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২

সেকশন

epaper
 

কুড়িগ্রামে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার জমি দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট : ১৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:২৭

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দিচ্ছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলিমুদ্দিনের পুত্রবধূ আনজিনা বেগম। ছবি: আজকের পত্রিকা কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার সোনাহাট ইউনিয়নে এক মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের প্রায় কোটি টাকা মূল্যের ৩৫ শতক জমি জবর দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগীরা।  সংবাদ সম্মেলনে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক রাকিনুল হক চৌধুরী ছোটনের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ করা হয়। 

শনিবার দুপুরে কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সৈয়দ শামসুল হক মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলিমুদ্দিনের পুত্রবধূ আনজিনা বেগম। এ সময় তাঁর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন শাশুড়ি আনোয়ারা বেগম, স্বামী মিজানুর রহমান মিজু ও জমি বিক্রেতা মুক্তিযোদ্ধা মেহের আলী। 

সংবাদ সম্মেলনে কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট আহসান হাবীব নীলু, সাধারণ সম্পাদক খ ম আতাউর রহমান বিপ্লবসহ জেলায় কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন। 

অভিযোগে বলা হয়, ‘কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এবং উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরন্নবী চৌধুরী খোকনের ছেলে রাকিনুল হক চৌধুরী ছোটন রাজনৈতিক প্রভাব খাঁটিয়ে অর্ধশতাধিক ছাত্রলীগের কর্মীকে নিয়ে আদালতের নিষেধাজ্ঞার জমি জবরদখল করেন। জবরদখলকৃত জমি গত তিন দিন ধরে ট্রাক্টর দিয়ে মাটি ফেলে ভরাট করছেন। জমিতে লাগানো বিভিন্ন প্রজাতির গাছপালা কেটে ফেলেন। থানায় অভিযোগ করা হলেও পুলিশ কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে এই অন্যায়ের সুষ্ঠু বিচার চাই।’  

অভিযোগে আরও বলা হয়, ২০১৭ সালে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা মেহের আলীর কাছ থেকে ৫৯ শতক জমি রেজিস্ট্রি মূলে ক্রয় করেন আনজিনা বেগম। গত সাড়ে ৪ বছর ধরে সেই জমি ভোগদখল করে আসছেন তাঁরা।  

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে জমিদাতা (বিক্রেতা) মুক্তিযোদ্ধা মেহের আলী জানান, তিনি ৪০ বছর পূর্বে ওই জমি ক্রয় সূত্রে মালিক হন। কিন্তু ছোটন তাঁর ভাই ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি শোভনসহ এদের সাঙ্গপাঙ্গ এবং ক্যাডাররা বাড়ি দখলে ভাঙচুর করে। সে কারণে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলিমুদ্দিনের পুত্রবধূ আনজিনা বেগমের কাছে জমি রেজিস্ট্রি মূলে বিক্রি করে দেন। অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে অনেক দূরে গিয়ে বাড়ি করে বাস করছেন বলে জানান তিনি। 

তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ‘সরকার এদেরকে পদ দিতেছে। আর এরা পদ নিয়া সন্ত্রাসী কার্যক্রম করতেছে। এরা ভূরুঙ্গামারী উপজেলা জ্বলে পুড়ে খাচ্ছে।  সরকার কী এসব দেখে না!’ 

এ বিষয়ে অভিযোগ অস্বীকার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক রাকিনুল হক চৌধুরী ছোটন বলেন, ‘অভিযোগকারীর স্বামী মিজানুর রহমান মিজু নিজেই একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও ভূমি দস্যু। তাঁর বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। জেলও খেটেছে। বিরোধপূর্ণ জমির সাথে আমি বা ছাত্রলীগের কারও সম্পৃক্ততা নেই। আমার নেতৃত্বে কোনো ঘটনা ঘটেনি। প্রকৃত জমির মালিক নজরুল ইসলাম নিজেই সেখানে ঘর তুলছে। অভিযোগকারীরা জাল দলিল করে জমিটি দখলে নেয়।’ 

এ ব্যাপারে ভূরুঙ্গামারী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ‘আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই পক্ষের সাথে বসে সমঝোতার জন্য কোর্টের মাধ্যমে সমাধান নিতে পরামর্শ দিয়েছি। সেখানে নোটিশ টানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও কোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করেছি।’ 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    পাড়া দিয়ে টেনে ছিঁড়ে ফেলব: ইডেন কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির অডিও

    টোল দিতে রাজি নয় ছাত্রলীগ, টোলপ্লাজার কর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষ

    থানা থেকে ঢাবি শিক্ষার্থীকে ছাড়িয়ে আনার সময় ছাত্রলীগের হামলায় দুইজন আহত 

    স্কুলছাত্রী ইভা হত্যাকাণ্ডে আরও এক যুবক গ্রেপ্তার 

    মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে স্ত্রীর মামলা, স্বামী গ্রেপ্তার

    ছাত্রীদের ওয়াশ রুমে ঢুকে ছাত্রলীগ নেতার কাণ্ড 

    তোপের মুখে মাদক পরীক্ষা করালেন ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

    জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক কেন্দ্র পরিদর্শনের অনুমতি দেওয়া হবে: পুতিন

    তকদীর সিরিজের চেয়ে ভিন্ন কিছু বানাতে পেরেছি

    আষাঢ়ে নয়

    এ লড়াই এগিয়ে যাওয়ার

    বিতর্কে বিভক্ত ঢাকাই সিনেমা