Alexa
শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

মেম্বার পদপ্রার্থীকে জেতাতে আওয়ামী লীগ নেতা নিলেন ২০ লাখ টাকা, অডিও ভাইরাল

আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ২১:৫০

জিতিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক মেম্বার প্রার্থীর কাছ থেকে ২০ লক্ষাধিক টাকা নিয়েছেন ইউসুফ আলী চৌধুরী সেলিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ। ছবি: আজকের পত্রিকা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এক মেম্বার পদপ্রার্থীকে জিতিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ২০ লক্ষাধিক টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত কেরানীগঞ্জ মডেল থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ইউসুফ আলী চৌধুরী সেলিম। সদ্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনে মেম্বার পদপ্রার্থী হারুনুর রশীদের কাছ থেকে কয়েক দফায় তিনি এই টাকা নিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নির্বাচনে হেরে গিয়ে ওই প্রার্থী এখন টাকা ফেরত চাইছেন। দুজনের মধ্যে এসংক্রান্ত কথোপকথনের একটি অডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাক্তা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ওই মেম্বার পদপ্রার্থী হারুনুর রশীদ বলেন, ‘নির্বাচনে আমাকে জিতিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ইউসুফ আলী চৌধুরী কয়েক দফায় আমার কাছ থেকে ২০ লক্ষাধিক টাকা নিয়েছেন। ২০ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত তিনি আমার কাছ থেকে ৪ লাখ, মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর ৩ লাখ এবং নির্বাচনের আগের দিন (২৭ নভেম্বর) ১২ লাখ নিয়েছেন। আমি নিজে গিয়ে তাঁর ঘাটারচর অফিসে টাকাগুলো পৌঁছে দিয়েছি। এ ছাড়া বিভিন্ন সময়ে তিনি আমার কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা নিয়েছেন। নির্বাচন ছাড়াও তিনি আমার কাছ থেকে ৪৮ লাখ টাকা নিয়েছেন। আমি জমি বিক্রি করে তাঁকে টাকা দিয়েছি। তিনি মুখোশের আড়ালে ভালো মানুষ সেজে শুধু প্রতিশ্রুতি দিয়ে গেছেন।’ 

ভাইরাল হওয়া অডিওতে শোনা যায় হারুন বলছেন, ‘চাঁন রাইতের দিন (নির্বাচনের আগের দিন) ১২ লাখ টাকা নিলেন। কিন্তু আমার জন্য কী করলেন?’ জবাবে ইউসুফ আলী চৌধুরী সেলিম বলেন, ‘প্রশাসন কারচুপি করতে দেয় নাই।’ এ সময় হারুন বলেন, ‘ভাই, যা হওয়ার হইছে, আপনি আমার টাকাগুলা ফেরত দেন।’ ইউসুফ আলী বলেন, ‘রাজনৈতিক সংগঠনে মানুষ কোটি কোটি টাকা খরচ করে মেম্বার-চেয়ারম্যান নির্বাচন করে। রাজনীতি করতে গেলে টাকা লাগে। টাকা দিছস। আগামীতেও দিবি।’ এ সময় উত্তেজিত কণ্ঠে হারুন বলেন, ‘আপনি আমার কাছ থেকে টাকা নিছেন, আবার প্রতিপক্ষের কাছ থেকেও দুই কোটি টাকা নিছেন। লোকজন বাজারে তাই বলাবলি করছে। ভাই, আমি অত কিছু বুঝি না। আমার টাকা ফেরত দেন।’ 

অপর একটি অডিওতে শোনা যায় হারুন বলছেন, ‘আপনারে যে ১২টা দিমু (১২ লাখ) এইডা লইয়া টেনশনে আছি।’ জবাবে ইউসুফ আলী চৌধুরী সেলিম বলেন, ‘তোর কোনো টেনশন নাই, তুই ঘুমা। কালকে তুই আমারে ১২টা (১২ লাখ) দিয়া ঘুমা। ২৯ তারিখ সকালে উঠিস (নির্বাচনের পরের দিন)। ওই দিন তুই পারলে আমার কাছ থেকে ফুলের মালা লইয়া যাইস।’ 

মেম্বার প্রার্থীর কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউসুফ আলী চৌধুরী সেলিম বলেন, ‘এগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট। আমার প্রতিপক্ষ মিথ্যা নাটক সাজিয়ে এটা করেছে। আমি দীর্ঘদিন রাজনীতি করি। ওই রকম স্বভাবের হলে অনেক টাকা কামাতে পারতাম। আমার ঢাকা শহরে কোনো বাড়ি নাই, ব্যক্তিগত গাড়ি নাই। ব্যাংক ব্যালান্সও নাই।’ 

অডিও ফাঁস হওয়ার পর থেকে ইউসুফ আলী চৌধুরী বিভিন্নভাবে হত্যার হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন হারুনুর রশীদ।

 

 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    রোববার সংসদে উঠছে ইসি নিয়োগের আইন

    মনোহরদীতে মোটরসাইকেলচালকের মৃত্যু

    পরীক্ষা শুরুর ২ মিনিটেই প্রশ্ন ফাঁস, ভাইস চেয়ারম্যানসহ গ্রেপ্তার ১০ 

    দেশ উন্নত হলে কারওয়ান বাজারের চেহারা পাল্টাবে: মেয়র আতিক

    সিপিবি ময়মনসিংহের নতুন কমিটিতে সভাপতি মিল্লাত, সাধারণ সম্পাদক বাহার

    সকাল থেকে সূর্যের দেখা নেই, হতে পারে বৃষ্টি

    ১৩ বছর পর আইপিএল হতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকায়

    রাস্তা নিয়ে বিরোধ, সংঘর্ষে আহত ৫০

    রোববার সংসদে উঠছে ইসি নিয়োগের আইন

    কুষ্টিয়ায় তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ করোনা রোগী শনাক্ত

    রাজশাহী বোর্ডে ‘ফেল’ থেকে ‘এ প্লাস’ পেল ১৮ শিক্ষার্থী