Alexa
শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

সরকারের পতন শুরু হয়ে গেছে: মির্জা ফখরুল

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৮:০৯

নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বক্তব্য দেন মির্জা ফখরুল। ছবি: ইন্দ্রজিৎ কুমার ঘোষ  সরকারের পতন শুরু হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, 'ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের অর্ধেকের বেশি প্রার্থী হেরেছে। এতে প্রমাণিত হয় তাদের পতন শুরু হয়ে গেছে।' 

মঙ্গলবার বিকেলে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

আগামী দুই একদিনের মধ্যেই দাবি আদায়ে নতুন কর্মসূচির ঘোষণা আসবে বলে জানান তিনি। দাবি আদায়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ' আন্দোলন আন্দোলন এবং আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সরকারের পতন ঘটাতে হবে। আসুন আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হই।' 

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সরকারের উদ্দেশ্যে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, 'খালেদা জিয়ার কিছু হলে তার সব দায় সরকারের। যদি তার কিছু হয়ে যায়, এই দেশের মানুষ কোনোদিনই আপনাদের (সরকার) রেহাই দেবে না।' 

 মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে লাখো জনতার ঢল নেমেছে। এই ঢলেই প্রমাণিত হয় দেশের মানুষ খালেদা জিয়ার মুক্তি চায়। সবাই চায় খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হোক। তাকে মুক্ত করে দেশের বাইরে চিকিৎসার ব্যবস্থা না করলে এই দেশের মানুষ কখনই চুপ করে বসে থাকবে না। তারা সরকারকে উৎখাত করে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবে।' 

'খালেদা জিয়ার চিকিৎসকেরা বিএনপি'র শিখিয়ে দেওয়া কথা বলছেন' এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ধিক্কার জানাই সেই মন্ত্রীকে। দেশের নামীদামি চিকিৎসকদের নিয়ে এমন বিদ্রূপ করে কথা বলার জন্য। 

আবারও খালেদা জিয়ার রক্তক্ষরণ
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন, গতকাল সোমবার (২৯ নভেম্বর) আবারও খালেদা জিয়ার রক্তক্ষরণ হয়েছে। মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির সমাবেশে তিনি এ কথা জানান। এ নিয়ে খালেদা জিয়ার চতুর্থ দফায় রক্তক্ষরণ হয়েছে। এর আগে, গত রোববার তার চিকিৎসকেরা সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, ১৭ নভেম্বর থেকে তার তিন দফায় রক্তক্ষরণ হয়েছে। 

 মির্জা ফখরুল বলেন, ‘গতকাল (সোমবার) রাত ১২টার দিকে হঠাৎ করে ডা. জাহিদ হোসেন আমাকে ফোন করে বলেন, দ্রুত হাসপাতালে আসেন। আমি সেখানে গিয়ে দেখি অন্তত ১০ জন চিকিৎসক বসে আছেন। ঘরে ঢুকে আমি জানতে চাই কী হয়েছে। তাদের চিন্তিত দেখাচ্ছিল। তারা জানালেন, যেটা ভয় পাচ্ছিলাম, সেটাই হয়েছে। আবারও আজ (সোমবার) সন্ধ্যায় তার রক্তক্ষরণ হয়েছে।’
 
তিনি জানান, চিকিৎসকদের অক্লান্ত পরিশ্রমে খালেদা জিয়া রক্তক্ষরণ বন্ধ হয়েছে। এখন আগের চেয়ে অনেকটা ভালো আছেন। তবে এই ভালো ভালো নয় বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে সরকার আরেক নাটক করছে: খন্দকার মোশাররফ

    ইভিএম বক্স বঙ্গোপসাগরে ফেলে দেওয়া হবে: গয়েশ্বর

    আমেরিকার এই নিষেধাজ্ঞা একটা সুযোগ: নুর

    শাবিপ্রবির আন্দোলনে অন্য কারও ইন্ধন দেখছেন শিক্ষামন্ত্রী

    পুলিশি অ্যাকশন দুঃখজনক, আলোচনার আহ্বান শিক্ষামন্ত্রীর

    লোহাগাড়ায় টমেটোবাহী ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে, নিহত ২ 

    রাজধানীতে যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্যু

    রূপগঞ্জে যমুনা টেলিভিশনের গাড়িতে হামলা, সাংবাদিককে মারধর

    প্রথম নাসিক নির্বাচনের আগে পদত্যাগ করতে চেয়েছিলেন ৩ নির্বাচন কমিশনার