Alexa
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

এক কেন্দ্রের ভোটে জিতে গেছে নৌকা

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৬:২৪

প্রতীকী ছবি নৌকায় সিল মারতে বাধ্য করা হয় মোহনপুরের রায়ঘাটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের একটি কেন্দ্রে। এই কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে বাবলু পেয়েছেন ৭৯৯ ভোট। আর চশমা প্রতীকে সুরঞ্জিত পেয়েছেন মাত্র ১৬৩ ভোট।

৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ৬টিতেই স্বতন্ত্র প্রার্থী সুরঞ্জিত সরকারের কাছে হেরেছেন বাবলু হোসেন।রিমন রহমান, রাজশাহীরাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার রায়ঘাটি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে একটি কেন্দ্রে ভোটারদের প্রকাশ্যেই নৌকায় সিল মারতে বাধ্য করা হচ্ছিল। অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর কোনো এজেন্ট না থাকায় নৌকার এজেন্টরা ভোটারদের তাঁদের সামনেই নৌকায় সিল মারতে বাধ্য করছিলেন।

এই এক কেন্দ্রের ভোটেই জিতে গেছে নৌকা। চেয়ারম্যান হয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বাবলু হোসেন। দলীয় কোনো পদ-পদবি না থাকলেও সদ্য পড়াশোনা শেষ করা বাবলু আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে এবার প্রথম নির্বাচনে অংশ নেন। তাঁর বাবা খলিলুর রহমান বর্তমানে রায়ঘাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।

২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে খলিলুর রহমান দলীয় মনোনয়ন না পেলেও ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী হয়ে ভোটে অংশ নেন। খলিলুরের কাছে পরাজিত হন নৌকার প্রার্থী সুরঞ্জিত সরকার। এবার সুরঞ্জিতকে মনোনয়ন না দিয়ে বাবলুর ছেলেকে দেওয়া হয়। মনোনয়ন না পেয়ে সুরঞ্জিত স্বতন্ত্র প্রার্থী হন। ভোটের আগে তিনি সংবাদ সম্মেলন করে অভিযোগ করেছিলেন, তাঁকে প্রচারে বাধা দেওয়া হচ্ছে। কেউ যেন তাঁর এজেন্ট না হন, এ জন্য ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। ভোট সুষ্ঠু হবে না বলেও তাঁর অভিযোগ ছিল।

ভোটের দিন গত রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় রায়ঘাটির পারিলাডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর কোনো এজেন্ট নেই। নৌকার এজেন্টরা ভোটারদের তাঁদের সামনেই নৌকায় সিল দিতে বাধ্য করছিলেন। সাংবাদিকেরা যাওয়ার পর প্রকাশ্যে সিল মারা বন্ধ হলেও ব্যালট বাক্সে ঢোকানোর সময় এজেন্টদের দেখিয়ে নিশ্চিত করতে হচ্ছিল যে ভোটারেরা নৌকায় ভোট দিয়েছেন।

গণনা শেষে নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যায়, ৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ৬টিতেই স্বতন্ত্র প্রার্থী সুরঞ্জিত সরকারের কাছে হেরেছেন নৌকার প্রার্থী বাবলু হোসেন। ৯টি কেন্দ্রে বাবলু পেয়েছেন ৩ হাজার ৮০৫ ভোট। আর সুরঞ্জিত পেয়েছেন ৩ হাজার ২৮৬ ভোট। ফলে ৫১৯ ভোটে বাবলুই জিতেছেন। এর মধ্যে পারিলাডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রেই সুরঞ্জিতের চেয়ে ৬৩৬ ভোট বেশি পেয়েছেন বাবলু।

এ কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে বাবলু পেয়েছেন ৭৯৯ ভোট। আর চশমা প্রতীকে সুরঞ্জিত পেয়েছেন মাত্র ১৬৩ ভোট। এই কেন্দ্রে অন্য দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে আনারস প্রতীকের আরাছ আলী সরদার মাত্র ১টি এবং ঘোড়া প্রতীকের রোস্তম আলী পেয়েছেন ৫৭ ভোট।ভোটের এই ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী সুরঞ্জিত সরকার। তিনি বলেন, ‘প্রাণের ভয়ে আমার এজেন্টরা কেন্দ্রে যেতে পারেননি। নৌকার এজেন্টরা যা খুশি তাই করেছেন। ভোট সুষ্ঠু হয়নি। আমাকে জোর করে হারানো হয়েছে।’ তবে ভোট শান্তিপূর্ণ হয়েছে বলে দাবি করেছেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জয়নুল আবেদীন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    অস্তিত্ব সংকটে বংশাই নদ

    আত্মনির্ভরশীল হচ্ছেন আশ্রয়ণের বাসিন্দারা

    হেলে পড়া সেতু সংস্কার হয়নি চার বছরেও

    সখীপুরে দুই ইটভাটা মালিককে জরিমানা

    স্বর্ণের কয়েন বিক্রির নামে প্রতারণা, আটক ১

    গারো পাহাড়ে পানির সংকট

    প্রধান শিক্ষক ও স্কুল কমিটির বিরুদ্ধে অভিভাবকদের মানববন্ধন

    রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছাদ থেকে পড়ে শিশুসহ দুজনের মৃত্যু

    আগামী নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে সংলাপ করার আহ্বান হারুনের 

    নাচ শেখার অনুষ্ঠান ‘নাচের ইশকুল’

    দ্বিতীয়বার করোনায় আক্রান্ত আফ্রিদি

    করোনা আক্রান্ত সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, গুরুতর অসুস্থ