Alexa
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

সিঙ্গাপুরে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে আন্তর্জাতিক বৃত্তি

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১১:২৭

 ছবি: পিক্সাবে গবেষণা ও প্রযুক্তিতে এশিয়া মহাদেশের যে কয়টি দেশ অগ্রসর, সেগুলোর মধ্যে অন্যতম সিঙ্গাপুর। দেশটি প্রতিবছর আন্তর্জাতিক মেধাবী শিক্ষার্থীদের আকৃষ্ট করতে বিভিন্ন বৃত্তি দিয়ে থাকে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে সিঙ্গাপুর আন্তর্জাতিক স্নাতক বৃত্তি (এসআইএনজিএ)। যেসব শিক্ষার্থী গবেষণায় আগ্রহী ও অসাধারণ ফলাফলের অধিকারী, মূলত তাদেরকেই এ বৃত্তি দেওয়া হয়।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক– বায়োমেডিকেল সায়েন্স, ফিজিক্যাল সায়েন্স এবং ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে পিএইচডির জন্য এসআইএনজিএ বৃত্তি দেওয়া হয়।

বৃত্তির আর্থিক মূল্য

  • চার বছরমেয়াদি পিএইচডি ডিগ্রির সময় বৃত্তির আওতায় একজন শিক্ষার্থী নিচের সুযোগ-সুবিধা পাবেন।
  • সম্পূর্ণ টিউশন ফি।
  • প্রতি মাসে দুই হাজার ২০০ ডলার দেওয়া হবে। কোয়ালিফায়িং পরীক্ষায় পাস করলে বৃত্তি বেড়ে দুই হাজার ৭০০ ডলার হবে।
  • এককালীন বিমান ভাড়া সর্বোচ্চ ১ হাজার ৫০০ ডলার।
  • এককালীন আবাসন খরচ ১০০০ ডলার।

বৃত্তির সংখ্যা: প্রতিবছর ২৪০টি বৃত্তি দেওয়া হয়।

কোর্সের মেয়াদ: চার বছর।

কোর্স শুরু: আগামী বছরের আগস্ট থেকে নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হবে।

যোগ্যতা: এসআইএনজিএ বৃত্তির জন্য আবেদনকারীর নিচের যোগ্যতা থাকতে হবে:

  • আবেদনকারীকে অবশ্যই সিঙ্গাপুরের বাইরের নাগরিক হতে হবে।
  • প্রাতিষ্ঠানিক পরীক্ষার ফলাফল অসাধারণ হতে হবে এবং গবেষণার প্রতি আগ্রহ থাকতে হবে।
  •  ইংরেজি ভাষায় বিশেষভাবে বলা ও লেখায় দক্ষ হতে হবে।
  • বৃত্তির জন্য ইংরেজি ভাষার দক্ষতাবিষয়ক পরীক্ষা আইইএলটিএস বা টোফেল সার্টিফিকেটের প্রয়োজন নেই। কর্তৃপক্ষ সাক্ষাৎকারে শিক্ষার্থীর ইংরেজি ভাষার দক্ষতা যাচাই করবে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে সার্টিফিকেট প্রয়োজন হতে পারে।
  •  যদি কোনো শিক্ষার্থী মাস্টার্সে ভর্তির জন্য আগ্রহী হন, তিনি বৃত্তির জন্য বিবেচিত হবেন না।
  • শুধু বিজ্ঞান এবং ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে যাঁরা পিএইচডি করতে আগ্রহী, তাঁরাই বৃত্তির জন্য বিবেচিত হবেন।
  • সামাজিক বিজ্ঞান, অর্থনীতি, মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা এসআইএনজিএ বৃত্তির আওতাভুক্ত নয়।

আবেদনের প্রক্রিয়া: নিচের প্রক্রিয়া অনুযায়ী বৃত্তির আবেদন করতে হবে।

  • এসআইএনজিএ বৃত্তির জন্য প্রয়োজনীয় সব কাগজপত্র অনলাইনে জমা দিতে হবে।
  • যে শিক্ষক (রেফারি) আবেদনকারীর প্রশংসাপত্র লিখবেন, তাঁকে সরাসরি বৃত্তির সাইটে প্রশংসাপত্র পাঠাতে হবে।
  • এসআইএনজিএ বৃত্তি কমিটি আবেদনকারীর দুটি রেফারেন্স লেটার পাওয়ার পরেই আবেদন যাচাই-বাছাই শুরু করবেন।
  • অনলাইন আবেদনের সময় অবশ্যই প্রয়োজনীয় সব কাগজপত্রের সফট কপি আপলোড করতে হবে।
  • এসআইএনজিএ বৃত্তি পোর্টালে আবেদন করার পরে পৃথকভাবে বৃত্তির জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের পোর্টালে আবেদনের প্রয়োজন নেই।
  •  ডেডলাইনের অন্তত দুই সপ্তাহ আগে আবেদন করা উচিত। কারণ আবেদন জমা দেওয়ার পরে এসআইএনজিএ থেকে আবেদনকারীর রেফারিকে ই-মেইল পাঠানো হবে। বাকি কাজ শেষ করতে রেফারির অন্তত ৭ দিন সময় লাগতে পারে।
  • আবেদনের সময় কী বিষয়ে গবেষণা করতে আগ্রহী, তা বিস্তারিত প্রোপোজাল আকারে লিখতে হবে।
  • একজন আবেদনকারী ১ থেকে সর্বোচ্চ ৩টি গবেষণা প্রোপোজাল জমা দিতে পারবেন।
  •  

আবেদনের ডেডলাইন: আগামী বছরের আগস্ট মাসে নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হবে। ওই শিক্ষাবর্ষের জন্য চলতি বছরের ১ ডিসেম্বরের ভেতরে আবেদন করতে হবে। যারা আবেদন প্রক্রিয়া শুরু করেছেন, তাদের আগামীকালের মধ্যে শেষ করতে হবে। তাই আর সময়ক্ষেপণ না করে আজই শেষ করে ফেলুন। আর যারা ভবিষ্যতে আবেদন করতে আগ্রহী, তারা অনলাইন থেকে আরও বিস্তারিত জানতে পারেন।

রকিবুল হাসান রবিন

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    অস্তিত্ব সংকটে বংশাই নদ

    আত্মনির্ভরশীল হচ্ছেন আশ্রয়ণের বাসিন্দারা

    হেলে পড়া সেতু সংস্কার হয়নি চার বছরেও

    সখীপুরে দুই ইটভাটা মালিককে জরিমানা

    স্বর্ণের কয়েন বিক্রির নামে প্রতারণা, আটক ১

    গারো পাহাড়ে পানির সংকট

    রাউজানে আড়াই হাজার টাকার বিনিময়ে ভুয়া জন্মনিবন্ধন, যুবকের কারাদণ্ড

    ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি চক্রের মূলে বুকিং সহকারী

    ২০২২ সাল হবে রাজনীতির সংকটকাল: সুলতান মনসুর

    প্রধান শিক্ষক ও স্কুল কমিটির বিরুদ্ধে অভিভাবকদের মানববন্ধন

    রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছাদ থেকে পড়ে শিশুসহ দুজনের মৃত্যু

    আগামী নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে সংলাপ করার আহ্বান হারুনের