Alexa
শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

লক্ষ্মীপুরে দুই প্রার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষে ৬ জন আহত, গ্রেপ্তার ৩০ 

আপডেট : ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৫:৩৬

লক্ষ্মীপুরে ভোটকেন্দ্রে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ছবি: আজকের পত্রিকা  লক্ষ্মীপুরে রায়পুরে দক্ষিণ চরবংশীর পশ্চিম চরলক্ষ্মী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে ৬ জন আহত হয়েছেন। আজ রোববার সাড়ে ৯টার দিকে ইউপি সদস্য প্রার্থী আলমগীর হোসেন মোহাম্মদ আলী ও খালেকুজ্জান খালেকের সমর্থকদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। এ ছাড়া বাদুর ইউপিতে আরও দুইটি ঘটনায় গাড়িতে হামলা-ভাঙচুর এবং ৩০ জনকে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করা হয়। 

জানা যায়, আলমগীর হোসেন মোহাম্মদ আলী তাঁর সমর্থকদের নিয়ে ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার সময় অপর প্রার্থী খালেকুজ্জামান খালেক বাধা দেয়। এতে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। 

অপরদিকে, একই সময়ে রামগঞ্জর বাদুর ইউপির আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহিদ হোসেনের গাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়েছে। আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে হানুবাইশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ছাড়া নির্বাচনী সহিংসতার আশঙ্কায় বাদুর ইউপির বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৩০ জনকে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করা হয়। আজ ভোরে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে দেশীয় তৈরি একটি এলজি, চোরা, রামদা উদ্ধার করা হয়।

ভোট বিষয়ে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর পৌরসভা ও রায়পুর ও রামগঞ্জ উপজেলার ২০ ইউনিয়ন পরিষদে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। সকাল ৮টায় থেকে শুরু হয় এ ভোট। তবে পুরুষের চেয়ে নারী ভোটারদের উপস্থিতি বেশি রয়েছে। এ ছাড়া নৌকার এজেন্ট ছাড়া অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী। 

লক্ষ্মীপুরে ভোটকেন্দ্রে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ছবি: আজকের পত্রিকা  প্রতিটি কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণের লক্ষ্য ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ২৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ২৫টি অতি গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়া রায়পুর ও রামগঞ্জ উপজেলার ২০টি ইউনিয়নের ১৯২টি কেন্দ্রের মধ্যে বেশির ভাগ কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ। প্রতিটি কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের টহল অব্যাহত রয়েছে। 

এরই মধ্যে রায়পুর উপজেলায় তিন ইউপিতে চেয়ারম্যান এবং দুই উপজেলায় সংরক্ষিত মহিলা ও পুরুষ পদে ১৬ জন সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এ ছাড়া ১৭ ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৭৮ জন, ২০টি ইউপিতে সংরক্ষিত মহিলা ও পুরুষ সদস্য পদে ৯৮৫ জন প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ছাড়া লক্ষ্মীপুর পৌরসভায় ৪ জন মেয়র ও ১০০ সংরক্ষিত মহিলা ও পুরুষ কাউন্সিলর মাঠে রয়েছেন। 

এ বিষয়ে রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নির্বাচনে সহিংসতার জন্য বাদুর ইউনিয়নের মধ্য বাদুরসহ বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেয়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩০ জনকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে এলজিসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    চট্টগ্রামে অটোরিকশায় কিউআর কোড স্টিকার লাগানো ‍শুরু

    সীতাকুণ্ডে প্রাইভেট কার চাপায় যুবকের মৃত্যু

    আবারও কর্মবিরতির ঘোষণা রেল শ্রমিকদের

    শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উত্ত্যক্ত করায় যুবকের কারাদণ্ড

    সিরাজদিখানে ৩ দিনেও থামেনি উত্তেজনা, থেমে থেমে চলছে টেঁটা-বল্লমের সংঘর্ষ

    চসিক ভবন ঘেরাওয়ের হুমকি বিএনপির

    ‘বাহে এবার জারোত থাকি মুই বাঁচিম বাবা’

    গৃহযুদ্ধের কিনারায় যুক্তরাষ্ট্র!

    দক্ষিণখানে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

    সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে মেম্বর প্রার্থী গ্রেপ্তার 

    দক্ষিণখানে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

    রাবিতে সশরীরেই চলবে ক্লাস-পরীক্ষা