Alexa
শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 
ফ্যাক্টচেক

‘অন্ধকারের রানী’কে গিনেস বুকে খুঁজে পাওয়া যায়নি

আপডেট : ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১১:৩৫

ফেসবুকে দাবি করা হচ্ছে, তিনি পৃথিবীর সবচেয়ে কালো ত্বকের অধিকারী হিসেবে গিনেস বুকে নাম লিখিয়েছেন। ছবি: ফেসবুক থেকে স্ক্রিনশট সম্প্রতি ফেসবুকে এক নারীর ছবি পোস্ট করে দাবি করা হচ্ছে, তিনি পৃথিবীর সবচেয়ে কালো ত্বকের অধিকারী হিসেবে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন। পোস্টগুলোতে ওই নারীকে মডেল নায়াকিম গাতওয়েচ নামে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, ঘন কৃষ্ণবর্ণের এক নারী পত্রিকা হাতে বিছানায় বসে রয়েছেন। ছবির পাশে লেখা—‘এটি কালো পাথর বা গ্রানাইটের শিল্পকর্ম নয়। তিনি সুদানি মডেল নায়াকিম গাতওয়েচ। বিরল কালো সৌন্দর্য। তিনি পৃথিবীতে দেখা সবচেয়ে অন্ধকার ত্বকের জন্য গিনেস বুক অব অয়ার্ল্ড রেকর্ডে প্রবেশ করেছেন। তিনি অন্ধকারের রানী নামে পরিচিত।’

ফেসবুকে অনেকেই ওই নারীর ছবি পোস্ট করছেন। ছবি: ফেসবুক থেকে স্ক্রিনশট ফ্যাক্টচেক
রিভার্স ইমেজ সার্চে মূল ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায় মডেল নায়াকিম গাতওয়েচের ভেরিফায়েড ইনস্টাগ্রাম আইডিতে২০২০ সালের ৬ জানুয়ারি তিনি ছবিটি পোস্ট করেন।

২০২০ সালের ৬ জানুয়ারি মডেল নায়াকিম গাতওয়েচ তাঁর ভেরিফায়েড ইনস্টাগ্রাম আইডিতে ছবিটি পোস্ট করেন। ছবি: ইনস্টাগ্রাম থেকে স্ক্রিনশট গুগলে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে নায়াকিম গাতওয়েচ নামের একটি উইকিপিডিয়া পেজ খুঁজে পাওয়া যায়। ওই পেজ থেকে জানা যায়, নায়াকিম গাতওয়েচ ইথিওপিয়ায় জন্ম নেওয়া আমেরিকাপ্রবাসী মডেল।

ত্বকের রং গাঢ় কালো হওয়ায় ইনস্টাগ্রামসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে তাঁর বেশ জনপ্রিয়তা রয়েছে। তবে ওই উইকিপিডিয়া পেজে নায়াকিমের গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে জায়গা পাওয়ার ব্যাপারে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

গিনেস বুকে এ রকম কোনো ক্যাটাগরি নেই
গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে শরীরের ত্বক বা অঙ্গ কালো হওয়া-সংক্রান্ত কোনো বিভাগ খুঁজে পাওয়া যায়নি। শরীরের অঙ্গ বা ত্বক কালো হওয়ার জন্য এখন পর্যন্ত কোনো নাম নথিভুক্ত করা হয়নি গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড বুকে।

মডেল নায়াকিম গাতওয়েচ। ছবি: ইনস্টাগ্রাম থেকে ২০২০ সাল থেকে নায়াকিমের নাম দিয়ে এমন তথ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত হয়ে আসছিল। এর পরিপ্রেক্ষিতে ‘গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ড’-এর অফিশিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে ২০২০ সালের ২৮ এপ্রিল এক সতর্কতামূলক টুইটে জানানো হয়, ‘গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড স্কিন টোনে বা ত্বকের রঙের জন্য কোনো রেকর্ড নিরীক্ষণ করে না।’

ওই টুইটের কমেন্ট সেকশনে এক ব্যবহারকারী একটি স্ক্রিনশট শেয়ার করে জানান, তিনি মডেল নায়াকিম গাতওয়েচের সঙ্গে এ প্রসঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি বিষয়টি সম্পর্কে অবগত ছিলেন না।

সিদ্ধান্ত
ফেসবুকে কৃষ্ণবর্ণের যে নারীর ছবি ব্যবহার করে তাঁকে ‘অন্ধকারের রানী’ হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হচ্ছে, তিনি একজন মার্কিন মডেল—এটি সত্য। তবে কৃষ্ণবর্ণের জন্য তিনি গিনেস বুকে জায়গা করে নিয়েছেন—এই দাবি অসত্য।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, সংবাদমাধ্যম বা যেকোনো মাধ্যমে প্রচারিত কোনো ছবি, ভিডিও বা তথ্য বিভ্রান্তিকর মনে হলে, তার স্ক্রিনশট বা লিংক কিংবা সে সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য আমাদের ই-মেইল করুন। আমাদের ই-মেইল ঠিকানা—[email protected]

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     
    ফ্যাক্টচেক

    ‘ইভিএমে নৌকা ছাড়া মার্কা নেই’ দাবিতে ভাইরাল ভিডিওটি নাসিক নির্বাচনের নয়

    ফ্যাক্টচেক

    ব্যালট পেপার হাতে শামীম ওসমানের ছবিটি আজকের নাসিক নির্বাচনের নয়

    ফ্যাক্টচেক

    ভারতীয় হাইকমিশনারের টিকা গ্রহণকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতি নিয়ে বিভ্রান্তি

    ফ্যাক্টচেক

    আইভীর মাথায় শামীম ওসমানের হাত রাখার ছবিটি সাম্প্রতিক নয়

    পরীক্ষা শুরুর ২ মিনিটেই প্রশ্ন ফাঁস, ভাইস চেয়ারম্যানসহ গ্রেপ্তার ১০ 

    স্ট্রিমিং ব্যবসায় বাদ যাবে না কোনো শিশু

    দেশ উন্নত হলে কারওয়ান বাজারের চেহারা পাল্টাবে: মেয়র আতিক

    ইভিএম বক্স বঙ্গোপসাগরে ফেলে দেওয়া হবে: গয়েশ্বর

    কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট সেন্টারে চাকরি

    ক্ষেতলালে বাসের চাপায় পিকআপের চালক নিহত