Alexa
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১

সেকশন

 

রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাইলে বিদেশে যেতে পারবেন খালেদা: হানিফ

আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২১, ১৭:১৭

আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ। ফাইল ছবি  খালেদা জিয়াকে সাজাপ্রাপ্ত আসামি উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাইলে বিদেশে যেতে পারবেন খালেদা জিয়া। তাঁর অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি না করে ক্ষমা চেয়ে স্বাধীনভাবে যেকোনোখানেই যেতে পারেন তিনি। শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট ফোরামের (বোয়াফ) আয়োজনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

বিএনপি এখন খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনৈতিক স্ট্যান্ডবাজি করছে উল্লেখ করে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, উনি অত্যন্ত সৌভাগ্যবান যে কারাগারে ওনার সেবার জন্য একজন নিরপরাধ মানুষকে নিয়োজিত করা হয়েছিল। পৃথিবীতে এমন ঘটনার কোনো নজির নেই। খালেদা জিয়ার অসুস্থতাকে কাজে লাগিয়ে, মাঠ গরম না করে তাঁর সুস্থতা জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিন। 

জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে পাকিস্তানের দোসরদের গাড়িতে বাংলাদেশের পতাকা তুলে দিয়েছিল বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালে জাতির পিতাকে হত্যার মধ্য দিয়েই দেশে জঙ্গিবাদের উত্থান হয়েছিল। আমরা অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়েই মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম। সেই স্বাধীনতার ওপর আঘাত মুক্তিযুদ্ধের পরেই আনা হয়। কিন্তু পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়েই এর চূড়ান্ত রূপ নেয়। এর পরবর্তীতে যারা ক্ষমতায় আসে, সেই অপশক্তিকেই তারা মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার সাহস দিয়েছিল। 

২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সারা দেশে সিরিজ বোমা হামলা  চালিয়ে দেশে জঙ্গিদের একটা শক্ত অবস্থান জানান দিয়েছিল বিএনপি। আমরা দেখেছি, বাংলা ভাই প্রকাশ্যে তাঁর এলাকায় মিছিল করেছিল। বিএনপি জোটের মদদেই এটা ঘটেছিল। খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় হাওয়া ভবনে বসে রাষ্ট্রের ওপর জঙ্গি হামলার পরিকল্পনা করেছিল। গ্রেনেড হামলা চালিয়ে তারা ২৪ জনকে হত্যা করেছিল। বাংলাদেশ প্রায় একটা জঙ্গি দেশেই রূপান্তরিত হয়ে গিয়েছিল মন্তব্য করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর সেই অবস্থা থেকে বাংলাদেশকে রক্ষা করেছেন। 

বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের ধারাবাহিকতা হলি আর্টিজানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে, যা একধরনের ধর্মীয় উগ্রবাদ থেকেই ঘটিয়েছিল। জঙ্গিবাদ শুধু বাংলাদেশেই নয়। এটা বিশ্বব্যাপী উল্লেখ করে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, `আমাদের আত্মতুষ্টিতে যাওয়ার সুযোগ নেই। জঙ্গিবাদ এখনো বিশ্বব্যাপী রয়েছে। আফগানিস্তান, মিয়ানমার—সবখানেই তারা শক্তিশালী। পাকিস্তান তো এদের ঘাঁটি। বাংলাদেশেও এর কিছুটা ছোঁয়া রয়েছে। শিক্ষার আলোই পারে, আমাদের উদ্ধার করতে।'

পাকিস্তানকে দক্ষিণ এশিয়ার জন্য বিপজ্জনক উল্লেখ করে বাংলাদেশ-ভারতসহ বিশ্বনেতাদের কাছে পাকিস্তানের বিপক্ষে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানানো হয় বোয়াফের পক্ষ থেকে। বোয়াফ সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময়ের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন পরিষদের সাবেক সদস্য অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম এমপি, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি এবংং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সদস্য মুহাম্মদ শফিকুর রহমান এমপিসহ আরও অনেকে। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    তথ্যমন্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

    সরকারের পতন শুরু হয়ে গেছে: মির্জা ফখরুল

    আ.লীগ হাইকমান্ডের নির্দেশে ঢাকা উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতিকে অব্যাহতি

    শেরপুরে স্বেচ্ছাসেবক দলের মশাল মিছিলে পুলিশের বাধা

    ট্রাক-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে কলেজছাত্র নিহত

    উড়োজাহাজের ধাক্কায় কক্সবাজারে ২ গরুর মৃত্যু, রক্ষা পেলেন ৯৪ জন যাত্রী

    পটুয়াখালীতে ইউনিয়ন আ. লীগের কমিটি নিয়ে উত্তাপ, কাল অর্ধদিবস হরতাল

    তথ্যমন্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

    পরের ব্যালন ডি’অর বেনজেমার হাতে দেখছেন রিয়াল কোচ