Alexa
রোববার, ২২ মে ২০২২

সেকশন

epaper
 

টানটান উত্তেজনায় ত্রিপুরায় চলছে পৌর নির্বাচন

আপডেট : ২৫ নভেম্বর ২০২১, ১৩:১০

ত্রিপুরায় পৌর ও নগর পঞ্চায়েতের নির্বাচন চলছে। ছবি: আজকের পত্রিকা ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরায় পৌর ও নগর পঞ্চায়েতের নির্বাচন চলছে। আগরতলা পৌর নিগম ছাড়াও ভোট রাজ্যের সাতটি পৌর পরিষদ এবং পাঁচটি নগর পঞ্চায়েতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট হচ্ছে। ভোট গণনা করা হবে আগামী ২৮ নভেম্বর। 

আজ বৃহস্পতিবার ভোট গ্রহণ শুরু হতে না হতেই শাসক দল বিজেপির বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল। তাঁদের অভিযোগ, ২১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী লিটন দেব এবং ৫ নম্বর ওয়ার্ডের শ্যামল পালের ওপর হামলা চালিয়েছে বিজেপি। পোলিং এজেন্টদেরও মারধর করা হয়েছে। 

ত্রিপুরায় পৌর ও নগর পঞ্চায়েতের নির্বাচন চলছে। ছবি: আজকের পত্রিকা টানটান উত্তেজনার মধ্যে ব্যাপক পুলিশি পাহারায় ভোটগ্রহণ হচ্ছে। আগরতলার বেশির ভাগ বুথেই মোতায়েন করা হয়েছে আধা সেনা। শাসক দল বিজেপির দাবি, ভোট হচ্ছে উৎসবমুখর পরিবেশে। 

বিজেপি শাসিত শহরাঞ্চলের ভোটকে ঘিরে এবার রাজনৈতিক উত্তেজনা তুঙ্গে। শাসক দলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগকে কেন্দ্র করে সুপ্রিম কোর্টকেও কড়া ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিতে হয়েছে। বিজেপির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে নালিশও জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। 

আগরতলা পুর নিগমের ৫১টি ওয়ার্ডসহ রাজ্যের মোট আটটি জেলার ২২২টি ওয়ার্ডে ভোট চলছে। ১২২টি ওয়ার্ডে শাসক দলের প্রার্থীরা বিনা ভোটে জিতে গেছেন। শহরাঞ্চলের ছয়টি পৌর পরিষদ ও একটি নগর পঞ্চায়েত এরই মধ্যে বিজেপির দখলে। 

ভোট শুরু হতেই রক্তাক্ত আগরতলায় পোলিং এজেন্টকে মারধরের অভিযোগ। ছবি: আজকের পত্রিকা রাজধানী আগরতলার ৫১টি ওয়ার্ডেই বিজেপির বিরুদ্ধে প্রার্থী দিয়েছে তৃণমূল। বামেরা প্রার্থী দিয়েছে ৪৬ আসনে। আগরতলায় কংগ্রেসের প্রার্থীর সংখ্যা ৩৩। এছাড়া স্বতন্ত্র বা অন্যরা প্রার্থী দিয়েছে ২০টি ওয়ার্ডে। 

এবারের পৌর নির্বাচন ঘিরে ব্যাপক বিশৃঙ্খলার অভিযোগ উঠেছে। শাসক দলের বিরুদ্ধে প্রতিহিংসার অভিযোগে সোচ্চার তৃণমূল। সুপ্রিম কোর্টে মামলা, প্রধানমন্ত্রীর কাছে নালিশ করার পরও হামলা থামছে না বলে রাজ্য তৃণমূলের আহ্বায়ক সুবল ভৌমিক অভিযোগ করেছেন। 

সুবল ভৌমিক বলেন, ত্রিপুরায় গণতন্ত্র নেই। মানুষের ভোটাধিকার লুণ্ঠন করছে বিজেপি আশ্রিত দুর্বৃত্তরা। মানুষ ভোট দিতে পারলে বিজেপি হারবেই। একই অভিযোগ সিপিএমেরও। দলের রাজ্য সম্পাদক জিতেন চৌধুরী বলেন, এমন সন্ত্রাস কখনো হয়নি। 

ত্রিপুরায় পৌর ও নগর পঞ্চায়েতের নির্বাচন চলছে। ছবি: আজকের পত্রিকা বিজেপির বিধায়কেরাও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের বিরুদ্ধে। দলের তিন বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন, আশিস সাহা ও আশিস দাস সন্ত্রাস নিয়ে নিজের দলের সরকারের সমালোচনা করেছেন।

তবে বিরোধীদের অভিযোগ মানতে নারাজ শাসক দল। বিজেপির মুখপাত্র নবেন্দু ভট্টাচার্যের মতে, বিরোধীদের কোনো রাজনৈতিক ভিত্তি নেই। মানুষ তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে। জনবিচ্ছিন্ন নেতারাই বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ করছেন। 

এরই মধ্যে বিজেপি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আমবাসা, মোহনপুর, রানীরবাজার, বিশালগড়, উদয়পুর, শান্তিরবাজার পৌর পরিষদ এবং জিরানিয়া নগর পঞ্চায়েতের সব কটি ওয়ার্ডে বিনা ভোটে জয়ী হয়েছে। বিরোধীরা সেখানে প্রার্থীই দিতে পারেনি।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    জম্মু-কাশ্মীরে টানেল ধসে ১০ জনের মৃত্যু

    ভারতে কমল জ্বালানি তেল ও গ্যাসের দাম

    জামিন পেয়েছেন জ্ঞানবাপী মসজিদ নিয়ে মন্তব্য করা সেই অধ্যাপক 

    ভারতে বাংলাদেশি নারীকে ধর্ষণের দায়ে ১১ জনের কারাদণ্ড

    কে হচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী? 

    জ্ঞানবাপী নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ায় দিল্লিতে অধ্যাপক গ্রেপ্তার

    বাঁধ ভেঙে ডুবল পাকা ধান

    ধানের সংকটে বন্ধ হচ্ছে চট্টগ্রামের অনেক চালকল

    রিয়ালকে নিরাশ করে পিএসজিতেই থেকে গেলেন এমবাপ্পে

    দাম বেড়েছে কীটনাশকেরও

    স্বামীকে ভিডিও কল দিয়ে স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

    জম্মু-কাশ্মীরে টানেল ধসে ১০ জনের মৃত্যু