Alexa
মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

টিকা পেয়ে উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা

আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০২১, ১৭:৫১

মোল্লাহাটে গতকাল এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের করোনার টিকা নেওয়ার লাইন। উপজেলা পরিষদের অপরাজিতা মিলনায়তনে।  ছবি: আজকের পত্রিকা আগামী ২ ডিসেম্বর শুরু হবে উচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা। এই পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য নিবন্ধন করা শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার আগেই করোনা প্রতিরোধক টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল মঙ্গলবার বাগেরহাটের ফকিরহাট, মোরেলগঞ্জ ও মোল্লাহাটে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। টিকা পেয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন এসব শিক্ষার্থী।

গতকাল বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের করোনাভাইরাস প্রতিরোধে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া শুরু হয়। সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা দেওয়া হয়।

ফকিরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অফিসের তথ্য অনুযায়ী, উপজেলার ১০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ২ হাজার ৭০ জন পরীক্ষার্থীকে মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার পর্যায়ক্রমে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া হবে। সে অনুযায়ী গতকাল সকালে প্রথম দিনে কাজি আজহার আলি কলেজ ও সরকারি ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজের ৭৪৬ জন পরীক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হয়। বাকি ৮টি প্রতিষ্ঠানের পরীক্ষার্থীদের বুধ ও বৃহস্পতিবার টিকা দেওয়া হবে।

প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে পাঠানো উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ফরম পূরণ তালিকার তথ্য অনুযায়ী পরীক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হয়। টিকা কার্যক্রমে শৃঙ্খলা, নিরাপত্তা ও সহযোগিতা করেন ফকিরহাট কাজি আজহার আলি কলেজের রোভার স্কাউট সদস্যরা।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. অসীম কুমার সমাদ্দার বলেন, এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের দ্রুত টিকা দেওয়ার জন্য একাধিক বুথ স্থাপন করেছেন। শিক্ষার্থীদের সংখ্যা অনুযায়ী ভাগ করে তিন দিনে মোট ২ হাজার ৭০ জনকে টিকা দেওয়া হচ্ছে। টিকা দেওয়ার পর তাদের আধা ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হয়।

বাগেরহাটের মোল্লাহাটে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের গতকাল করোনা প্রতিরোধী টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে উপজেলা পরিষদের অপরাজিতা মিলনায়তনে আসা শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হয়। এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকা দেওয়া হচ্ছে। শুধু শিক্ষার্থীদের জন্যই এই প্রথম ফাইজারের টিকা দেওয়া হয়েছে।

প্রথম দিনে মোল্লাহাটের ৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১ হাজার ৬৭৯ জনকে টিকা দেওয়া হয়। মোল্লাহাট কে আর কলেজের ৬০৯ জন, জাতির জনক মহিলা কলেজের ৫৩ জন, লায়লা আজাদ কলেজের ১৬৮ জন, কাহালপুর আলিম মাদ্রাসার ৬৭ জন, নতুন ঘোষগাতী আলিম মাদ্রাসার ৩৬ জন, কে আর কলেজ কারিগরি বিভাগের ১৬২ জন, লুৎফুর রহমান টেকনিক্যাল কলেজের ২৭৪ জন, নুর জাহান মহিলা বি এম কলেজের ৯৫ জন, সি এস টেকনিক্যাল অ্যান্ড বি এম কলেজের ২৯৫ জন পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষা শুরুর আগেই দেওয়া হবে ফাইজারের টিকার প্রথম ডোজ।

মোল্লাহাট কে আর কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী মাফিজুর আলম বলে, ‘পরীক্ষার আগে টিকা নিতে পারব ভাবতে পারিনি। টিকা নেওয়ার পর আমার কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়নি। আমি টিকা নিয়েছি এবং অন্য পরীক্ষার্থীদের টিকা নেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।’

মোল্লাহাট সরকারি জাতির জনক মহিলা কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী মুনজিলা খানম বলেন, ‘আমি ভাবতে পারিনি এত দ্রুত করোনা প্রতিরোধী টিকা নিতে পারব। পরীক্ষা শুরুর আগে টিকা নিতে পারায় আমি সরকারকে ধন্যবাদ জানাই।’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. বিপ্লব কান্তি বিশ্বাস বলেন, শুধুমাত্র এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকা দেওয়া হচ্ছে। প্রথম দিনে ১ হাজার ৬৭৯ জনকে এ টিকা দেওয়া হয়। পর্যায়ক্রমে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা টিকা পাবেন।

এ সময় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিনুল আলম ছানা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওয়াহিদ হোসেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. সেলিম রেজা, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোমেন দাশসহ স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে গতকাল পরীক্ষার্থীরা উৎসবমুখর পরিবেশে টিকা নিতে ভিড় করে। এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষার্থীদের করোনা টিকা নেওয়া বাধ্যতামূলক করায় উপজেলা চত্বরে বিভিন্ন কলেজের শত শত শিক্ষার্থী ফাইজারের টিকা নেয়।

উপজেলার ৯টি কলেজসহ উচ্চমাধ্যমিক স্তরের ৩১টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্য ২ হাজার ৩০৫ জন শিক্ষার্থীর নিবন্ধন করে। এর মধ্যে প্রথম দফার প্রথম দিনে ১ হাজার ৫০০ পরীক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া প্রস্তুতি নেওয়া হয়। তবে প্রথম দিনের শেষ সময় দুপুর ২টা পর্যন্ত প্রায় ১ হাজার ২০০ শিক্ষার্থী টিকা নিয়েছে বলে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কামাল হোসেন মুফতি জানান। বাকি শিক্ষার্থীদের আজ বুধবার টিকা দেওয়া হবে।

টিকা দিতে প্রত্যেক শিক্ষার্থীদের জন্মনিবন্ধন সনদ, উচ্চ মাধ্যমিকের নিবন্ধন ও মোবাইল নম্বর নেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় দফার টিকার নেওয়ার তারিখ মোবাইলে এসএমএস-এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিদ্যালয় চালু রাখার দাবি

    কবর খুঁড়ে কঙ্কাল চুরি

    এ যুগের কুম্ভকর্ণ

    এমপির বিরুদ্ধে গরু চুরির অভিযোগ তুললেন যুবলীগ নেতা

    রামেকের করোনা ইউনিটে ৩ জনের মৃত্যু

    গত ২০ দিনে সাফারি পার্কে ৯ জেব্রার মৃত্যু

    দুর্নীতির ধারণা সূচকে ‘উন্নতি নেই’ বাংলাদেশের

    ফাইনাল খেলার প্রস্তুতি নেন: গয়েশ্বর 

    এক বছরের বেশি সময় পর মাঠে ফিরলেন মাশরাফি