Alexa
সোমবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

খালেদাকে বিদেশে পাঠাতে আইনমন্ত্রীর কাছে বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা

আপডেট : ২৩ নভেম্বর ২০২১, ১৬:১৭

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। ফাইল ছবি  বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ পাঠানোর ব্যবস্থা করতে আইনমন্ত্রী আনিসুল হককে স্মারকলিপি দিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম। 

সচিবালয়ে আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সদস্যসচিব মো. ফজলুর রহমানের নেতৃত্বে ১৫ জন আইনজীবী আইনমন্ত্রীর হাতে তাঁদের স্মারকলিপি তুলে দেন। 

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা তুলে ধরে স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, 'বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা তাঁকে বিদেশে উন্নতমানের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য অভিমত দিয়েছেন। তিনবারের প্রধানমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটনায় আমরা উদ্বিগ্ন। আমরা মনে করি তাঁর জীবন রক্ষার্থে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে প্রেরণ অতীব জরুরি হয়ে পড়েছে।' 

যে দুই শর্তে খালেদা জিয়ার দণ্ড স্থগিত করা হয়েছে সেসব শর্ত তিনি ভঙ্গ করেননি উল্লেখ করে স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ ধারা অনুযায়ী সরকার যে কোনো সময় শর্তহীনভাবে নতুন প্রজ্ঞাপন জারি করে খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে পারে। এ ক্ষেত্রে আইনগত কোনো বাধা নেই বরং সরকারের এই সিদ্ধান্ত আইনানুগ হবে। 

আইনজীবীদের উপস্থিতিতে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘৪০১ ধারার আলোচনায় আমি এখন যেতে চাই না। আমাদের স্বাভাবিক আইনে মতপার্থক্য থাকবে। আপনারা যে স্মারকলিপি দিয়েছেন সেটা আমি অবশ্যই পর্যালোচনা করব। তবে সিদ্ধান্ত ও মতামতের ব্যাপারে আলোচনার প্রয়োজন আছে, সেটা আমরা করব।’ 

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আমি একটা কথা স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, যখন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হয় তখন কিন্তু ওনার পরিবারের যে আবেদন সেটা মানবিক দিক বিবেচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেখেছেন। তখন কিন্তু কোনো দাবি তুলতে হয়নি, প্রধানমন্ত্রী নিজেই করেছেন। সে ক্ষেত্রে মানবিকতার কমতি আমাদের নেই। আমরা মানবিকতা দেখাতে জানি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও মানবিকতা দেখাতে জানেন।’ 

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আজকে স্মারকলিপি নিলাম। কিন্তু আজকে যদি প্রিম্যাচিউর কিছু বলি সেটা সঠিক হবে না। আমাকে একটু সময় দিতে হবে। আমি এটা নিয়ে আলাপ-আলোচনা করব। কেউ জানে বেঁচে থাকুক বা জানে বেঁচে না থাকুক সেটা আমাদের উদ্দেশ্য না। বেগম জিয়ার চিকিৎসা হচ্ছে সেটা সকলেই জানেন। তাই আমি এটা নিয়ে একটু আলাপ-আলোচনা করি, পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর জানাব। এটার ফাইল আমার হাতে, আপনারা (আইনজীবী) আসবেন বলে আমি ফাইলটি ডিসপোজ করিনি। নিশ্চয়ই আমরা এই দিকটা দেখব। আমি আলাপ আলোচনা করে গুরুত্ব দিয়ে যতটুকু সিদ্ধান্ত নেওয়া যায় আমরা সেভাবেই সিদ্ধান্ত নেব।’ 

আইনজীবী মো. ফজলুর রহমান, এ জে মোহাম্মদ আলী, জয়নুল আবেদীন, নীতাই রায় চৌধুরী, আহমেদ আজম খান, এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, তৈমুর আরম খন্দকার, মো. বদরুদ্দোজা চৌধুরী, মো. রুহুল কুদ্দুস কাজল, আবেদ রাজা, মো. আব্দুল জব্বার ভূঁইয়া, গাজী কামরুল ইসলাম সজল, মোহাম্মদ আলী ও ওমর ফারুক ফারুকী আইনমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    ছাত্রলীগ সভাপতি জয় ‘ছাত্রদল’ করতেন, দাবি সহসভাপতির

    দেশকে বিরোধী দলশূন্য করতে চায় সরকার: রিজভী

    জি এম কাদের করোনায় আক্রান্ত

    জুলুমবাজ সরকারের অবসান ঘটাবে গণফোরাম

    প্রশাসনের দিকে অভিযোগের তির নৌকার ১০ প্রার্থীর

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এমপি উকিল আবদুস সাত্তার করোনা আক্রান্ত

    রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ দিতে সংসদে প্রস্তাব

    মমেক করোনা ইউনিটে ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৯৪ জন

    অতি আত্মবিশ্বাসই কি ভোগাল বাংলাদেশকে

    ফ্যাক্টচেক

    ‘ইভিএমে নৌকা ছাড়া মার্কা নেই’ দাবিতে ভাইরাল ভিডিওটি নাসিক নির্বাচনের নয়