Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২

সেকশন

epaper
 

চুরির অভিযোগে স্কুলছাত্রকে মারধর, ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ায় আত্মহত্যা

আপডেট : ০৫ নভেম্বর ২০২১, ২৩:০৯

চুরির অপরাধে মারধরের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ায় আত্মহত্যা করেছে স্কুলছাত্র ইসমাইল। ছবি: ইসলামাইলের ফেসবুক টাইমলাইন কবুতর চুরির অভিযোগে ইসমাইল হোসেন নামে ১৭ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করা হয়। সেই ভিডিও পরে ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়া হলে অপমানিত কিশোর গ্যাস ট্যাবলেট (বিষাক্ত অ্যালুমিনিয়াম ফসফাইড ৫৭ %) সেবন করে আত্মহত্যা করেছে। 

এ ঘটনা ঘটেছে বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনিয়নের বনতেঁতুলিয়া গ্রামে। ইসমাইল ওই গ্রামের বুলু প্রামাণিকের ছেলে। তার এবার এসএসসি পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল। 

বৃহস্পতিবার বিকেলে গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করে ইসমাইল। রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বনতেঁতুলিয়া গ্রামে বাসিন্দা আলাউদ্দিন। শখে কবুতর পালন করেন। পেশায় ঝালমুড়ি বিক্রেতা। বৃহস্পতিবার সকালে তার বাড়ি থেকে তিন জোড়া কবুতর হারিয়ে যায়। হারানো কবুতরগুলোর খোপের সামনে রক্তের দাগ ছিল। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও কবুতরের সন্ধান পাননি আলাউদ্দিন। তিনি কবুতর চুরির জন্য ইসমাইলকে সন্দেহ করেন। ওই দিন সকালে আলাউদ্দিনের ছেলে মেহেদী তাঁর চাচাতো-ফুফাতো ভাই শাকিল ও মানিককে সঙ্গে নিয়ে ইসমাইলের বাড়িতে যান। বাড়ি থেকে ইসমাইলকে তুলে নিয়ে স্থানীয় একটি পরিত্যক্ত দোকানে নিয়ে যান তাঁরা। সেখানে চুরির অপবাদ দিয়ে ইসমাইলকে বেধড়ক মারধর করেন। 

জানা গেছে, ছেলেকে মারধরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান ইসমাইলের মা ফাতেমা বেগম ও স্বজনেরা। তাঁরা অনেক অনুরোধ করে ইসমাইলকে উদ্ধার করেন। পরে কবুতর চুরির বিষয়ে বেলা ১২টার দিকে আলাউদ্দিনের বাড়িতে সালিস বসানো হয়। সালিসে ইসমাইলের পরিবারের সবাই উপস্থিত ছিলেন। সেখানে আলাউদ্দিন কবুতর চুরির ক্ষতিপূরণ হিসেবে ২০ হাজার টাকা দাবি করেন। একপর্যায়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য মনসুর আলীর মধ্যস্থতায় ১২ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণের সিদ্ধান্ত হয়। এতে দুই পক্ষই রাজি হয়। ওই সময় ইসমাইলের মা বিকেলের মধ্যে টাকা দেওয়ার অঙ্গীকার করেন। 

সালিসে বিষয়টি ফয়সালা হওয়ার পরও আলাউদ্দিনের ছেলে মেহেদীসহ শাকিল ও মানিক চুরির অপবাদে ইসমাইলকে মারধরের ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করেন। এতে অপমানিত ইসমাইল বিকেলেই গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করে। বাড়িতে গিয়ে বমি করতে থাকলে পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি বুঝতে পারেন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে ইসমাইলের মৃত্যু হয়। 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্থানীয় ইউপি সদস্য মনসুর আলী বলেন, দুই পক্ষের সম্মতিতে সালিসে ফয়সালা করে দিয়েছিলাম। কিন্তু ইসমাইলকে মারধরের বিষয়টি আমার জানা নেই। 

দুপচাঁচিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সনাতন চন্দ্র সরকার বলেন, এই ঘটনায় থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি। অভিযোগ পাওয়া গেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    পাবনায় স্বামীর বিরুদ্ধে ছুরিকাঘাতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

    এবার পরীমণির বিরুদ্ধে মামলা করলেন নাসির

    কক্সবাজারে ছাত্রলীগ নেতা হত্যা: ১০ মিনিটের মধ্যে হত্যা করেছেন ১৫-২০ জন

    হেনোলাক্সের নুরুল আমিন ও ফাতেমা ২ দিনের রিমান্ডে

    মেয়েকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ায় ছেলের মাকে পুড়িয়ে হত্যা: পিবিআই

    মামাশ্বশুরের বাড়ি থেকে জামাইয়ের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার 

    বিএম ডিপো থেকে পণ্যভর্তি অক্ষত কনটেইনার সরানো শুরু

    পতেঙ্গা কনটেইনার টার্মিনাল চালু হচ্ছে এ মাসেই

    কিশোরী নেতৃত্ব এবং কর্মশালাবিষয়ক সেমিনার

    পুলিশের গুলিতে নিহত জেল্যান্ড ওয়াকারের মরদেহে পরানো হয়েছিল হাতকড়া

    পাবনায় স্বামীর বিরুদ্ধে ছুরিকাঘাতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

    সিলেটে ব্লগার অনন্ত হত্যা: বেঙ্গালুরুতে গ্রেপ্তার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ফয়সাল