Alexa
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 

ফের ৫ শতাংশ পানির দাম বাড়াল চট্টগ্রাম ওয়াসা

আপডেট : ০৪ নভেম্বর ২০২১, ২১:২৭

ফের ৫ শতাংশ পানির দাম বাড়াল চট্টগ্রাম ওয়াসা দেড় বছরের মধ্যে আবাসিক-অনাবাসিক খাতে পাঁচ শতাংশ পানির দাম বাড়িয়েছে চট্টগ্রাম ওয়াসা। আজ বৃহস্পতিবার ওয়াসা বোর্ডের ৬৪তম সভায় প্রস্তাবটি অনুমোদন পায়।

সভায় আবাসিক খাতে প্রতি ইউনিট (এক হাজার লিটার) পানির দাম ১২ টাকা ৪০ পয়সার পরিবর্তে ১৩ টাকা ২ পয়সা ও বাণিজ্যিকে ৩০ টাকা ৩০ পয়সার পরিবর্তে ৩১ টাকা ৮২ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে। যা আগামী বছরের ১ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হবে বলে বোর্ড সভার সিদ্ধান্তে বলা হয়েছে।

সভায় বলা হয়, চট্টগ্রামে ওয়াসার বিলযোগ্য সংযোগ সংখ্যা ৭৭ হাজার ২৬৫ টি। এর মধ্যে ৭১ হাজার ৯৯২টি আবাসিক ও ৫ হাজার ২৭৩টি অনাবাসিক। গত ২০২০ সালের ১ মার্চ প্রতি হাজার লিটার পানিতে আবাসিকে ১২ দশমিক ৪০ টাকা এবং অনাবাসীকে ৩০ দশমিক ৩০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল। বর্তমানে সংযোগে ৯৩ শতাংশ ব্যবহার হয় আবাসিকে এবং ৯ শতাংশ অনাবাসিকে। 

চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ কে এম ফজলুল্লাহ বলেন, পানি সরবরাহ ও পয়োনিষ্কাশন কর্তৃপক্ষ আইন-১৯৬৬ এর ২২ (২) ধারা অনুযায়ী পানির ইউনিট প্রতি দর ৫ শতাংশ বাড়ানোর ক্ষমতা রয়েছে চট্টগ্রাম ওয়াসার। সে অনুযায়ী পানির নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। 

চট্টগ্রাম ওয়াসার পানির দাম বাড়ানোর বিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংগঠন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) কেন্দ্রীয় কমিটিসহ সভাপতি এসএম নাজের হোসাইন বলেন, ‘দফায় দফায় গ্যাস, বিদ্যুৎ পানির মূল্যও বাড়ায় এমনিতে নাভিশ্বাস, এ অবস্থায় পানির দাম বাড়ানো খুবই অযৌক্তিক। কারণ আবাসিক গ্রাহকদের মধ্যে নিম্ন আয়ের মানুষও রয়েছেন। পানির দাম না বাড়িয়ে পানির অপচয় কমানো, বকেয়া বিল আদায় ও সঠিক বিল তৈরিতে ওয়াসার নজর দেওয়া উচিত।’ 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক

    ‘আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন নেই’, শিক্ষকদের অব্যাহতির চিঠি

    বিএসআরএম কারখানায় ৩ শ্রমিক বিদ্যুতায়িত

    চীনের নজর মধ্যপ্রাচ্যে বড় চ্যালেঞ্জ যুক্তরাষ্ট্র

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক

    আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিল শাবিপ্রবি প্রশাসন

    সৌদি আরবে পাওয়া গেল ৪৫০০ বছর আগের মহাসড়ক

    ‘আপনার সার্ভিসের আর প্রয়োজন নেই’, শিক্ষকদের অব্যাহতির চিঠি

    বিএসআরএম কারখানায় ৩ শ্রমিক বিদ্যুতায়িত