Alexa
মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২

সেকশন

epaper
 

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা প্রতিরোধের ডাক

আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৭

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গতকাল সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ করে ৬৮টি নারী, মানবাধিকার ও উন্নয়ন সংগঠন। ছবি: আজকের পত্রিকা সম্প্রতি শারদীয় দুর্গাপূজায় কুমিল্লা ও রংপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মন্দির-পূজামণ্ডপে হামলা, প্রতিমা ভাঙচুরসহ সাম্প্রদায়িক সহিংসতার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার ও যথাযথ শাস্তির দাবি জানিয়েছে নারী সংগঠনগুলো।

গতকাল সোমবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির ব্যানারে দেশের ৬৮টি নারী, মানবাধিকার ও উন্নয়ন সংগঠন আয়োজিত সমাবেশে এ দাবি জানানো হয়। ‘সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াও’ স্লোগানে সমাবেশে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার পুনরাবৃত্তি রোধে ১২ দফা দাবি তুলে ধরা হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক সহিংসতার সময় প্রশাসনের উদাসীনতা ও শৈথিল্য ছিল, যা আমাদের উদ্বেগকে আরও বাড়িয়ে দেয়। সহিংসতা চিহ্নিত করে তা প্রতিরোধ করতে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। সাম্প্রদায়িক সহিংসতা প্রতিরোধ করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ গড়তে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৫৭ ধারা বাতিল করতে হবে। শিক্ষাব্যবস্থার পরিবর্তন আনতে হবে, সব ধর্মের মানুষকে সমান মর্যাদা দিতে হবে।’

সভায় সংহতি প্রকাশ করে বক্তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী, সাম্প্রদায়িক সহিংসতায় জড়িতদের এ দেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার আহ্বান জানান।

সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম। সভায় গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে সাম্প্রদায়িকতার ভাইরাস ঢুকে গেছে। এই ভাইরাসের টিকা কোথায়? এর টিকা হচ্ছে সুষ্ঠু সংস্কৃতিচর্চা।’

বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সালমা আলী বলেন, ‘পূজার সময় যে ঘটনা ঘটল, প্রশাসন তখন কোথায় ছিল? বেগমগঞ্জ থেকে সিলেটের এমসি কলেজ—এ রকম কিছু ঘটনা যেগুলো আমরা পর্যবেক্ষণ করি, শুধু সেগুলোরই ফল আসে, বাকিগুলো হারিয়ে যায়।’

হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের উপদেষ্টা কাজল দেবনাথ বলেন, ‘মুজিব নাম নিতে নিতে অনেকের মুখের ফেনা বেরিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু মুজিবের আদর্শ কি আমরা ধারণ করি? বঙ্গবন্ধু আওয়ামী মুসলিম লীগ থেকে আওয়ামী লীগ করেছিলেন, আমরা কি আবার সেই জায়গায় ফিরে যেতে চাই?’

বাংলাদেশ আদিবাসী নারী নেটওয়ার্কের নেত্রী ফাল্গুনী ত্রিপুরা বলেন, ‘আমার শৈশব কেটেছে ভয়, অনিশ্চয়তা ও আতঙ্কে। আমাদের এমন একটি সমাজ গড়ে তুলতে হবে, যাতে পরবর্তী প্রজন্মকে এমন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে না হয়।’

সমাবেশের শুরুতে প্রতিবাদী গান পরিবেশন করে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। সভায় সংহতি জানান ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির উপদেষ্টা বিচারপতি শামসুদ্দীন আহমেদ মানিক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন সাদেকা হালিম, বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সালমা আলী, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, রাজনীতিবিদ পঙ্কজ ভট্টাচার্য, প্রজন্ম একাত্তরের আসিফ মুনীর, স্টেপস টুওয়ার্ডস ডেভেলপমেন্টের নির্বাহী পরিচালক রঞ্জন কর্মকার প্রমুখ।

সমাবেশে ঘোষণাপত্র পাঠ করেন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের পরিচালক নিনা গোস্বামী। তিনি সাম্প্রদায়িক সহিংসতা প্রতিরোধে ১২ দফা দাবি তুলে ধরেন।

সভা শেষে শহীদ মিনার থেকে স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বর পর্যন্ত শোভাযাত্রা হয়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     

    পণ্য নিয়ে জাহাজ আটকা

    যমুনায় বাড়ছে পানি, তলিয়ে যাচ্ছে নিম্নাঞ্চলের ফসলি জমি

    শত মিটারের যত ভোগান্তি

    দোকানে দখল আশ্রয়ণের জমি

    বৃদ্ধকে শিকলে বেঁধে ঘরবন্দী, গ্রেপ্তার ২

    বোরো ধানে লোকসানের শঙ্কা

    মাদারগঞ্জে তিন সহোদরকে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় মামলা দায়ের

    স্বামী-সতিনকে ফাঁসাতে শিশু সন্তানকে হত্যার অভিযোগ, আদালতে মামলা

    কিশোরের বিরুদ্ধে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

    ফেসবুক-টিকটক সূত্রে পরিণয়, তরুণীকে ভারতে পাচার

    ফজলি আমের জিআই পেল রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ দুই জেলায়

    নেত্রকোনায় কুপিয়ে জখম করা সেই স্কুলছাত্রীর বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা