Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১

সেকশন

 

পটিয়ার ইউনুস হত্যা মামলার ৩ আসামি আটক

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৭:২৮

এ মামলায় আরও ৩ আসামি পলাতক রয়েছে। ছবি: আজকের পত্রিকা চট্টগ্রামের পটিয়ার আলোচিত ইউনুস হত্যা মামলায় একদিন পর তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পটিয়া থানা-পুলিশ।  

গতকাল বুধবার রাত বারোটার দিকে পটিয়া থানা-পুলিশ একটি চৌকস টিম পটিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিক রহমান ও পরিদর্শক (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদারের নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন আসামিরা কর্ণফুলী উপজেলার জামালপাড়া এলাকায় অবস্থান করছেন সে সূত্র ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাঁদের আটক করা হয়।  

আটককৃতরা হলেন মামলার প্রধান আসামি এরশাদ (৩০), নুরুল আজিম (৪০) ও তাঁর স্ত্রী ছেমন আরা বেগম (৩২)। 

অপরদিকে পটিয়ার আলোচিত ইউনুস হত্যা মামলাটি তাঁর স্ত্রী লাভলী আক্তার বাদী হয়ে ছয় জনকে আসামি করে পটিয়া থানায় মামলাটি করেন মঙ্গলবার রাতে। এই মামলার অপর আসামিরা হলেন নুরুল কবির, সালমা খাতুন ও সাদিয়া আকতার পপি।  

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পটিয়া থানা-পুলিশের উপপরিদর্শক আহসান হাবীব জানান, এসপি এবং ওসি স্যারের নেতৃত্বে মামলা হওয়ার পর থেকেই আসামিদের ধরতে প্রচেষ্টা চালিয়ে অবশেষে তিন আসামিকে আটক করা হয়। তাদেরকে আজ দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের ধরতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।  

মঙ্গলবার রাতে নিহত ইউনুস তাঁর চাচাতো ভাই নুরুল আজিমের মেয়ে সাদিয়া আকতার পপি কর্ণফুলীর দৌলতপুর এলাকার সৈয়দ মোহাম্মদের ছেলে মো. বেলাল নামের এক যুবকের সঙ্গে প্রায়ই অনৈতিকভাবে মেলামেশা করত। 

গত সোমবার সন্ধ্যায় তাদের দুই জনকে হাতে নাতে ধরে এলাকার মানুষ। এই সময় মেয়ের বাবা নুরুল আজিমকে ঘটনাটি লোক লজ্জার জন্য কাকে না জানিয়ে ছেলেমেয়ে দুইজনকে বিয়ে দিতে বলেন ইউনুস। পরদিন মঙ্গলবার এ বিষয়ে কথা বলতে নুরুল আজিমদের ঘরে যান ইউনুস। এ সময় নুরুল কবির, এরশাদ বলতে থাকেন কোন বিয়েশাদি  হবে না, মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এখন আমাদের ৫ লাখ টাকা নিয়ে দিতে হবে, না হলে আমরা মামলা করব।  

তখন নিহত  ইউনুস বলেন, তাহলে আমি আর এই ঝামেলায় নেই। এ কথা বলার পর মেয়ের বাবা আজিম, কবির ও এরশাদ বলে ওঠেন, ‘তাহলে তখন সমাধানের কথা বললি কেন?’ এ কথা বলেই ইউনুছের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন তারা। তখন আজিম অণ্ডকোষ চেপে ধরলে ইউনুছ ঘটনাস্থলে মারা যান।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    ঘুমন্ত অবস্থায় এসআইয়ের ‘বিশেষ অঙ্গ’ কেটে দিলেন স্ত্রী

    টেকনাফে নবজাতকের পরিত্যক্ত মরদেহ উদ্ধার

    ৪ শিক্ষার্থীকে অপহরণের অভিযোগ ‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের’ বিরুদ্ধে, ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

    শাহরাস্তিতে সংবর্ধনা পেলেন ৫ জয়িতা

    কর্ণফুলীতে আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের ৪ নেতা বহিষ্কার

    ওমিক্রন উদ্বেগজনক হলেও মোকাবিলা সম্ভব

    ঘুমন্ত অবস্থায় এসআইয়ের ‘বিশেষ অঙ্গ’ কেটে দিলেন স্ত্রী

    'টাকা না দিয়ে ষড়যন্ত্র করায় আত্মহত্যার পথ বেছে নিলাম'

    টেকনাফে নবজাতকের পরিত্যক্ত মরদেহ উদ্ধার

    করোনায় আরও একটি মৃত্যুশূন্য দিন

    স্বামী বদলানো যায় কিন্তু প্রতিবেশী না—ভারত সম্পর্কে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী