Alexa
বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১

সেকশন

 

বাগাতিপাড়ায় নৌকার বিপক্ষ প্রার্থী সংসদ সদস্যের দুই ভাই

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৫:৫৫

সংসদ সদস্যের দুই ভাই জহুরুল ইসলাম ও সাইফুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত  তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে নাটোরের বাগাতিপাড়ার ৫ নম্বর-ফগুয়াড়দিয়াড় ইউনিয়নে নৌকার বিপক্ষে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন তুলেছেন তাঁরই দুই চাচাশ্বশুর আওয়ামী লীগের নাটোর-১ আসনের বর্তমান এমপির দুই ভাই। 

দলীয় সূত্র জানিয়েছেন, বাগাতিপাড়া আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা নাটোর-১ (লালপুর ও বাগাতিপাড়া) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল এবং সাবেক সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদ দুই ভাগে বিভক্ত। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত আগামী ২৮ নভেম্বরের ইউপি নির্বাচনের জন্য গত ২২ অক্টোবর (শুক্রবার) কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত তালিকায় দেখা যায়, বাগাতিপাড়ার পাঁচটি ইউনিয়নেই এমপিবিরোধীরা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সাবেক সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদের সমর্থকেরা নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন। এরই মধ্যে তাঁরা আওয়ামী লীগ সভাপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বাক্ষরিত দলের মনোনয়ন ফরমও হাতে পেয়েছেন। 

সেই মোতাবেক বাগাতিপাড়ার ৫ নম্বর ফগুয়াড়দিয়াড় ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী হিসেবে উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে নির্বাচনী ফরম তুলেছেন বর্তমান সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুলের বড় ভাইয়ের জামাই অধ্যক্ষ জহুরুল ইসলাম। অন্যদিকে ওই একই ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন তুলেছেন ওই সংসদ সদস্যের দুই ভাই সাইফুল ইসলাম ও জহুরুল ইসলাম ওরফে জাহেদুল। ফলে উপজেলাজুড়েই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে এক মিশ্র প্রতিক্রিয়া। 

এমপির বড় ভাই সাইফুল ইসলাম বলেন, রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান হিসেবে তিনি ছোটবেলা থেকেই রাজনৈতিক সব কর্মকাণ্ডের সঙ্গে ওতপ্রোত ভাবে জড়িত। এলাকার জনগণ তাঁকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চান। সে জন্য তিনি এ বছর ঠিক করেছেন ইউপি নির্বাচন করবেন। তাই উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে নির্বাচনী ফরম তুলেছেন। 

এমপির ছোট ভাই জহুরুল ইসলাম ওরফে জাহেদুল ইসলাম বলেন, এরই মধ্যে মনোনয়ন তুলে তা পূরণ করে উপজেলা নির্বাচন অফিসে জমাও দিয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে জনগণকে তিনি কথা দিয়ে আসছেন নির্বাচন করবেন। তাই এখন আর কোনোভাবেই পিছপা হওয়ার সুযোগ নেই। 

নৌকার মনোনয়ন পাওয়া অধ্যক্ষ জহুরুল ইসলাম বলেন, তিনি দলীয়ভাবে মনোনয়ন পেয়েছেন। নৌকা প্রতীকে নির্বাচনের জন্য উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে ফরমও তুলেছেন। দলীয়ভাবে তাঁরা নৌকার মনোনয়ন চাননি। এখন শুনছি উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে নির্বাচনী ফরম তুলেছেন। 

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আবুল হোসেন বলেন, গত সংসদ নির্বাচনে বর্তমান এমপি শহিদুল ইসলাম বকুলকে দল থেকে মনোনয়ন দেওয়া হলে সবাই মিলে ভোট করে তাঁকে জেতানো হয়েছে। কিন্তু তাঁর কিছুদিন পরে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনে দল থেকে উপজেলার সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার রহমানকে দল থেকে মনোনয়ন দিলে এমপি বকুল তাঁর আপন ভাইকে নৌকার বিরুদ্ধে ভোট করিয়ে তাঁকে জিতিয়েছেন। এখন আবার ফাগুয়াড়দিয়াড় ইউনিয়নে দল থেকে জহুরুল ইসলামকে মনোনয়ন দিলে এমপি আবারও নৌকার বিরুদ্ধে তারই দুই ভাইকে দিয়ে মনোনয়ন তুলিয়েছেন। আমরা এমপির একের পর এক এমন কর্মকাণ্ডে বিব্রতকর অবস্থার মধ্যে রয়েছি। 

নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল জানান, তিনি ঢাকায় আছেন। বিষয়টি নিয়ে তাঁর ভাইদের সঙ্গে এখনো কোনো কথা হয়নি। তাঁরা যদি মনোনয়ন তুলে থাকেন তাহলে বাড়ি যাওয়ার পরে সেগুলো তাঁদের দিয়ে তুলে নেওয়া হবে। নৌকার বিরুদ্ধে তাঁর ভাইদের ভোট করা কোনোভাবেই সম্ভব নয়। 

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ বলেন, উপজেলার ফাগুয়াড়দিয়াড় ইউনিয়নে মোট মনোনয়ন ফরম তুলেছেন ৯ জন। এর মধ্যে একজন নৌকা, একজন লাঙল, বাকিরা স্বতন্ত্র হিসেবে মনোনয়ন তুলেছেন। এদিকে এই ইউনিয়নে ভোটার রয়েছেন ১৩ হাজার ৫৩৪ জন। নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই ৪ নভেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ১১ নভেম্বর এবং ভোটগ্রহণ ২৮ নভেম্বর। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    ঘুমন্ত অবস্থায় এসআইয়ের ‘বিশেষ অঙ্গ’ কেটে দিলেন স্ত্রী

    'টাকা না দিয়ে ষড়যন্ত্র করায় আত্মহত্যার পথ বেছে নিলাম'

    চাটমোহরে ৪ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান

    বন্ধুর সহযোগিতায় এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছেন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী চয়ন

    ম্যানইউর জার্সিতে ইতিহাস গড়লেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত জিদান

    এই সরকার হটাতে আন্দোলনের প্রয়োজন হয় না: জিএম কাদের

    কড়াকড়িতেও ক্যাটরিনা-ভিকির বিয়ের ছবি ভাইরাল

    প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে রিজভীর ‘শেষ কথা’ 

    ওমিক্রন উদ্বেগজনক হলেও মোকাবিলা সম্ভব

    ঘুমন্ত অবস্থায় এসআইয়ের ‘বিশেষ অঙ্গ’ কেটে দিলেন স্ত্রী