Alexa
বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১

সেকশন

 

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোর আশা

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৫:০২

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের আগে অনুশীলনে বাংলাদেশের অন্যতম দুই ভরসা মুশফিকুর রহিম ও মোস্তাফিজুর রহমান। মুশফিক ছন্দে ফিরলেও মোস্তাফিজ এখনো সেভাবে আলো ছড়াতে পারেননি। ইংলিশ-বধে আজ ‘কাটার মাস্টারের’ কাছ থেকে দারুণ কিছুর আশায় থাকবেন সমর্থকেরা। ছবি: বিসিবি মাহমুদউল্লাহ-মুশফিক-নাঈমরা উড়িয়ে উড়িয়ে মারছেন; আর ঝড়ে পড়া আম কুড়ানোর মতো লং অন-লং অফের সীমানা থেকে বল কুড়িয়ে নেটে ফেরত পাঠাচ্ছেন দলের পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন, নির্বাচক হাবিবুল বাশার আর কম্পিউটার বিশ্লেষক শ্রীনিবাস চন্দ্রশেখরন।

গতকাল বাংলাদেশ দলের অনুশীলন করার কথা ছিল আবুধাবিতে। পরে সিদ্ধান্ত বদলে অনুশীলন হয়েছে আইসিসির একাডেমি মাঠে। আবুধাবিতে অনুশীলন করতে না যাওয়ার মূল কারণ, দুবাইয়ে বাংলাদেশের টিম হোটেল থেকে আবুধাবি যাওয়া-আসায় পাঁচ ঘণ্টারও বেশি বাসভ্রমণ। ভ্রমণ আর অনুশীলন মিলিয়ে প্রায় সাড়ে আট ঘণ্টার ধকল সামলে আবার একই দূরত্বে আগামীকাল ম্যাচ খেলতে হবে। খেলোয়াড়দের ক্লান্তি আর অতিরিক্ত বাসভ্রমণে পিঠের ব্যথার আশঙ্কায় ভেন্যুতে আর অনুশীলন করতে যায়নি বাংলাদেশ। তবে আইসিসি একডেমি মাঠে যতটুকু অনুশীলন করেছে, তাতেই দুঃসংবাদ পেয়েছে দল। তাসকিন আহমেদের বলে তলপেটে চোট পেয়েছেন কিপার-ব্যাটার নুরুল হাসান সোহান। তাঁর সর্বশেষ অবস্থা আজ সকালে জানা যাবে।

এতে গতকাল আবুধাবির উইকেট সম্পর্কে বাংলাদেশের খুব একটা ধারণা পাওয়ার সুযোগ ছিল না। আজ বুধবার একবারে ম্যাচ খেলতে গিয়েই উইকেট সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পাবেন মাহমুদউল্লাহরা। আবুধাবির উইকেট সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা না নিয়ে খেলাটা একটু কঠিন হবে না? অনুশীলনের ফাঁকে দলের এক খেলোয়াড়ের কাছে জানতে চাইলে তাঁর উত্তর, ‘বেশি জানলে-বুঝলেই সমস্যা! কম জেনে-বুঝে বরং বেশি ভালো করা যায়!’ কাছেই থাকা টিম ম্যানেজমেন্টের এক সদস্য অবশ্য বললেন, ‘এমনি তো জানিই, মাঠ অনেক বড়। আবুধাবির উইকেটও সাধারণত ভালো হয়। ১৭০-১৮০ রানের উইকেট।’

বড় মাঠে খেলা, অথচ বাংলাদেশ গতকাল অনুশীলন করেছে তুলনামূলক ছোট মাঠে। নেটে ব্যাটাররা শট খেললেই তাই সীমানার ওপারে ধুমধাম বল এসে পড়ছে! শিষ্যদের ‘হার্ড হিটিং’য়ে গিবসনকে তাই খুব ব্যস্ত থাকতে হলো বল কুড়ানোর কাজে! অনুশীলনে যেভাবে মারছেন ব্যাটাররা, ম্যাচে কাজটা ঠিকঠাক করতে পারলেই হয়! কথাটা শুনে গিবসন মৃদু হাসলেন। অনুশীলনের আগে অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের এই ক্যারিবীয় কোচ সুপার টুয়েলভের চ্যালেঞ্জগুলো নিয়ে বলেছেন, ‘আমরা এখানে এসেছি ভালো করতে। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে যেকোনো দলকেই হারানো সম্ভব। আমরা বিশ্বাস করি এই প্রতিযোগিতায় প্রতিটি দলকে আমরা হারাতে পারি। একটু স্নায়ুচাপ আছে, তবে এখানে দুর্দান্ত কিছু করতেই এসেছি। শুধু টুর্নামেন্টে সংখ্যা হতে নয়, আমরা এখানে এসেছি প্রতিটি দলকে হারাতে। নিজেদের দিনে যেকোনো দলকে হারাতে পারি আমরা।’

নিজেদের সেই ‘দিন’টা কি আজ আবুধাবিতে দেখা যাবে? যে প্রতিপক্ষের সঙ্গে খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ, টি-টোয়েন্টিতে কখনো তাদের মুখোমুখি হননি মাহমুদউল্লাহরা। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম সংস্করণে ইংলিশদের বিপক্ষে কখনো না খেলা হলেও প্রতিপক্ষ তো একেবারে অজানা নয়। টুর্নামেন্টে ইংল্যান্ডের শুরুটাও হয়েছে দুর্দান্ত। নিজেদের প্রথম ম্যাচেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫৫ রানে অলআউট করে ম্যাচটা তারা জিতেছে ৬ উইকেটে। এ ম্যাচে ক্যারিবীয়দের দেওয়া সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ইংল্যান্ডকে যে ৪ উইকেট হারাতে হয়েছিল—এ থেকে ইতিবাচক দিকও খুঁজে পাচ্ছেন গিবসন।

শারজায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একজন পেসার বসিয়ে একজন বাড়তি বাঁহাতি স্পিনারকে (নাসুম আহমেদ) খেলিয়েছিল বাংলাদেশ। আজ ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও একাদশে পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা আছে। এই ম্যাচেও বোলিংয়ে পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা বেশি। তরুণ বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলামকে গতকাল অনুশীলনে যেভাবে ব্যস্ত দেখা গেছে, আজ তিনি একাদশে সুযোগ পেলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। একাদশে পরিবর্তন নিয়ে বাংলাদেশ পেস বোলিং কোচ গতকাল এতটুকুই বলেছেন, ‘আগে কন্ডিশন দেখতে হবে। মোস্তাফিজের স্কিল, কাটার আছে। পেস বোলিং আক্রমণে গভীরতা বাড়াতে সাইফউদ্দিন আছে। তাসকিনের গতি আছে। গতি ও বাঁহাতি বৈচিত্র্য হিসেবে শরিফুলও আছে।’

টি-টোয়েন্টি সংস্করণে আগে কখনো দুই দলের খেলা না হলেও জস বাটলার যথেষ্ট শক্ত প্রতিপক্ষই মানছেন বাংলাদেশকে। বলেছেন, ‘মনে হচ্ছে, কঠিন চ্যালেঞ্জই ছুড়ে দেবে তারা।’ 
বাটলার যাই বলুন, লঙ্কানদের বিপক্ষে পরাজয়ের স্বাদ ভুলতে মাহমুদউল্লাহর দল আজ কতটা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে পারে, সেটিই দেখার।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    ওয়ানডেতে কোহলির নেতৃত্ব থাকবে তো!

    ঘর ছেড়েছেন স্ত্রী, নেতৃত্ব হারিয়ে সংসার সামলাচ্ছেন পেইন

    বিশ্বকাপ ও বাংলাদেশে সাফল্যের পুরস্কার পেলেন সাকলায়েন

    জটিল যাত্রা শেষে দেশে ফিরলেন নিগার-সালমারা 

    যে কারণে স্টোকস-আর্চারকে দলে রাখেনি রাজস্থান 

    এখনই জাতিসংঘে দেখা যাবে না তালেবান-মিয়ানমারের প্রতিনিধিদের

    জাককানইবি এলাকায় লাগামহীন ভাড়ায় ভোগান্তিতে শিক্ষার্থীরা

    আমিনবাজারে ছয় শিক্ষার্থীকে হত্যা মামলায় ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

    আলীকদমে নির্বাচনী সহিংসতা মামলায় ১৫ জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

    আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

    লালপুরে দুই দিনে ট্রেনে কাটা পড়ে ২ জনের মৃত্যু