Alexa
মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১

সেকশন

 

সাম্প্রদায়িক হামলায় তারকাদের ক্ষোভ

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৩:২৭

দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির, বাড়িঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা চালানো হচ্ছে। গত রোববার (১৭ অক্টোবর) রাতে ফেসবুকে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ তুলে রংপুরের পীরগঞ্জের মাঝিপাড়ার জেলেপল্লিতে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় আগুনে পুড়েছে ২০টির বেশি ঘর। ভাঙচুর চালানো হয়েছে বেশ কয়েকটি বাড়িতে। লুট করা হয়েছে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকারসহ গবাদিপশু। এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন শোবিজ অঙ্গনের তারকারা, ফেসবুকে জানিয়েছেন ক্ষোভ। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিচারের আওতায় আনার কথাও বলেছেন অনেকেই।

নাট্যজন ও নির্মাতা নাসির উদ্দিন ইউসুফ। ছবি: ফেসবুক থেকে কী কথা বলে বাংলাদেশ!

ধর্ম-বর্ণ-জাতিনির্বিশেষে সব মানুষের সম-অধিকারের বাংলাদেশ, এই ছিল ৩০ লাখ শহীদের জীবনোৎসর্গের কারণ। আর আজ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে কোথায় এসে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ! রামু থেকে কুমিল্লা, কী কথা বলে বাংলাদেশ!

—নাসির উদ্দিন ইউসুফ, নাট্যজন ও নির্মাতা

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপনে যেন

অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা। ছবি: ফেসবুক থেকে কালো একটা পর্দা পড়ে গেল

কয়েক দিন ধরে এক বিশ্রী অনুভূতির মধ্যে বসবাস করছি। গ্লানি, দুঃখ, ক্ষোভ—সবকিছু মিলেমিশে একাকার। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপনে যেন কালো একটা পর্দা পড়ে গেল। যারা ষড়যন্ত্র করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চাইছে, দেশকে অস্থিতিশীল করতে চাইছে, তাদের বলছি, ‘বারে বারে ঘুঘু তুমি খেয়ে যাও ধান, এবার ঘুঘু তোমার বধিব পরাণ।’

—সুবর্ণা মুস্তাফা, অভিনেত্রী

নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। ছবি: ফেসবুক থেকে আমাদের হৃদয় যেন একইভাবে উপলব্ধি করতে পারে

আমরা প্রত্যেকেই কোনো না কোনোভাবে সংখ্যালঘু। কেউ রাজনৈতিক সংখ্যালঘু, কেউ সামাজিক সংখ্যালঘু, কেউ অর্থনৈতিক সংখ্যালঘু। অন্য দেশে সংখ্যালঘু মুসলমানকে অত্যাচার করলে আমাদের হৃদয় যেমন ব্যথিত হয়, নিজের দেশে সংখ্যালঘু হিন্দু বা অন্য কেউ অত্যাচারিত হলেও আমাদের হৃদয় যেন একইভাবে উপলব্ধি করতে পারে।

—মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, নির্মাতা

অভিনেত্রী তারিন জাহান। ছবি: ফেসবুক থেকে উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানাচ্ছি

প্রকৃতি তার সময়-সুযোগমতো এসব অন্যায়, ধর্মান্ধতার আঘাতের প্রতিশোধ ঠিকই নেবে সাম্প্রদায়িক চিন্তাধারার অমানুষদের ওপর। একমাত্র সন্ত্রাসী, বিকৃত মানসিকতার জীব ছাড়া কোনো ধার্মিক অন্যের ধর্মের ওপর আঘাত করতে পারে না। তীব্র ঘৃণা আর নিন্দা জানাই, সেই সঙ্গে দ্রুত এদের চিহ্নিত করে উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানাচ্ছি সরকারের কাছে।

—তারিন জাহান, অভিনেত্রী

অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওন। ছবি: ফেসবুক থেকে আমার সন্তানদের আমি এই

বাংলাদেশ দিয়ে যেতে চাই না

আজ এ কোন বাংলাদেশে আছি আমরা! কী শেখাচ্ছি আমাদের সন্তানদের! কোন বাংলাদেশ দিয়ে যাচ্ছি পরবর্তী প্রজন্মের হাতে। আমার সন্তানদের আমি এই বাংলাদেশ দিয়ে যেতে চাই না। কী করব, কীভাবে হবে জানি না। কিন্তু করতে হবে… কিছু একটা, করতেই হবে।

—মেহের আফরোজ শাওন, অভিনেত্রী

অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। ছবি: ফেসবুক থেকে আজ পুড়ছে অসহায় কেউ,

কাল পুড়বে তুমি

রংপুর নয়, পুড়ছে স্বদেশ,

পুড়ছে মাতৃভূমি...

আজ পুড়ছে অসহায় কেউ,

কাল পুড়বে তুমি।

—চঞ্চল চৌধুরী, অভিনেতা

অভিনেত্রী নাজনীন হাসান চুমকি। ছবি: ফেসবুক থেকে আমরা কী করছি? লজ্জা লাগে..

ভীষণ লজ্জা..

দশমীতে দেবী গমন করেছেন ‘দোলায় বা পালকিতে’, যার অর্থ মহামারি বা মড়ক। ভয় পেয়েছিলাম, আবার কোথায় কী হবে? এত দ্রুত উত্তর পেয়ে যাব বুঝি নাই। মগজটাকে কাজে লাগালেই বোধগম্য হয় ‘সনাতন ধর্মাবলম্বীরা শুধু নিজেদের জন্য প্রার্থনা করেনি, করেছে সমগ্র বিশ্বের জন্য, মানুষের জন্য। আর আমরা কী করছি? লজ্জা লাগে.. ভীষণ লজ্জা..

—নাজনীন হাসান চুমকি, অভিনেত্রী

অভিনেতা সিয়াম আহমেদ। ছবি: ফেসবুক থেকে আমাদের সাম্প্রদায়িকতা তো এমন না!

আমাদের বন্ধুরা ঈদের দিন বাসায় আসে। আমাদের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয়। বিপদে পড়লে তারাও ছুটে আসে। একবারের জন্যও মনে হয় না ওরা হিন্দু না মুসলমান। ২০২১ সালে এসে আমরা কী প্রমাণ করতে চাইছি? আমরা তো এমন দেখিনি! আমাদের সাম্প্রদায়িকতা তো এমন না! আমার দেশ জ্বলছে, আমাদের দেশ জ্বলছে!

—সিয়াম আহমেদ, অভিনেতা

আরও তারকার ক্ষোভ

অভিনেত্রী জয়া আহসান সাম্প্রদায়িক হামলার বিচার চেয়ে নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে কালো ব্যাজ ঝুলিয়েছেন। রংপুরের পীরগঞ্জে হামলার ছবি পোস্ট করে জুড়ে দিয়েছেন কবি নবারুণ ভট্টাচার্যের কয়েক লাইন, ‘এই মৃত্যু উপত্যকা আমার দেশ না, এই জল্লাদের উল্লাসমঞ্চ আমার দেশ না’।

এমন ন্যক্কারজনক ঘটনায় ক্ষুব্ধ নির্মাতা শিহাব শাহিন। তিনি লিখেছেন, ‘গভীর রাতে ঘুমন্ত মানুষের বাড়িঘরে আগুন দিয়ে নারী-শিশু হত্যার চেষ্টাকারী ধর্মান্ধদের কঠিনতম শাস্তি চাই।’

অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশীদ মিথিলা শুরু থেকেই সরব এ ঘটনায়। তিনি লিখেছেন, ‘ধর্মের নামে রাহাজানি বন্ধ হোক। ঘৃণার ব্যবসা বন্ধ হোক। সবার ওপর মানুষ, মানবতা সত্য হোক। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের সুন্দর জীবনের জন্য একটা শান্তিপূর্ণ পৃথিবী গড়া আমাদের দায়িত্ব।’

এ ছাড়া প্রতিবাদের আওয়াজ তুলেছেন অভিনেতা সাজু খাদেম, অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মম, দীপা খন্দকার, অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, সংগীতশিল্পী বাপ্পা মজুমদারসহ বিনোদন অঙ্গনের অনেকেই। সবার দাবি, সাম্প্রদায়িক এসব হামলায় জড়িত ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    কপিল দেব হয়ে প্রকাশ্যে এলেন রণবীর

    ‘টিকাটুলীর মোড়’-এর পর ‘পান্থপথের মোড়ে’

    দল বদলালেন শ্রাবন্তী

    হেসে খুন অভিষেক বচ্চন

    ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ দেখে প্রতিমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা

    নতুনদের সঙ্গে কাজ না করলে ওরা কীভাবে দাঁড়াবে

    ওমিক্রন

    ‘কূটনৈতিক প্রচেষ্টায়’ ভারতের লাল তালিকা থেকে বাদ পড়ল বাংলাদেশ

    কপিল দেব হয়ে প্রকাশ্যে এলেন রণবীর

    ১০ কেজি গাঁজাসহ স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

    বাংলাদেশে বেগম খালেদা জিয়া একটা অভিশপ্ত নাম: প্রতিমন্ত্রী খালিদ

    ৪৪তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

    ‘টিকাটুলীর মোড়’-এর পর ‘পান্থপথের মোড়ে’