Alexa
মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

সেকশন

 

ভোজ্যতেলের দাম বাড়ছেই

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১৮:১৯

নিত্যপণ্যের বাজারে ঊর্ধ্বগতিতে মানুষের নাভিশ্বাস ওঠার জোগার। এর মধ্যে ভোজ্যতেলের দাম আরেক দফা বৃদ্ধির পথে। ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে দাম বাড়ানোর প্রস্তাবে সায় দিয়েছে সরকার। 

আজ রোববার ব্যবসায়ী, আমদানিকারকদের সঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বৈঠক শেষে এ তথ্য জানানো হয়। এছাড়া চিনির শুল্ক কমলেও সহসা এটির দাম কমবে না বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে। 

নিত্যপণ্যের মজুদ, আমদানি, সরবরাহ ও মূল্য পরিস্থিতি নিয়ে পরিশোধনকারী, পাইকারী ব্যবসায়ীদের নিয়ে বৈঠক করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। টানা দুই ঘণ্টার বেশি সময় বৈঠক শেষে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এএইচএম সফিকুজ্জামান সাংবাদিকদের বিফ্রিং করেন। বিফ্রিংয়ে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্যতেলের দাম বাড়ায় পরিশোধনকারী মিলগুলো প্রতি লিটার বোতলের দাম ১৬৮ টাকা করার প্রস্তাব করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেয়। ওই চিঠির বিষয়ে ট্যারিফ কমিশনকে মূল্যায়ন করার দায়িত্ব দেওয়া হয়। ট্যারিফ কমিশন মূল্যায়ন করে প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ১৬২ টাকা নির্ধারণ করে একটি প্রস্তাব বাণিজ্য মন্ত্রণালয় পাঠায়। ব্যবসায়ীদের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠকের পর মূল্য ১৬০ টাকা করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে এই দাম বাণিজ্য সচিব ও মন্ত্রী অনুমোদন করার পরই কেবল ঘোষণা করা হবে। 

সফিকুজ্জামান বলেন, প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেল ১৩৬ টাকা ও পাম তেল ১১৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ৫ লিটারের সয়াবিন তেলের বোতল ৭৬০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। বর্তমানে প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের বোতলের দাম নির্ধারণ রয়েছে ১৫৩ টাকা। অর্থাৎ প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম ৭ টাকা বাড়ছে। 

গত ১৫ সেপ্টেম্বর বৈঠকে ভোক্তা পর্যায়ে প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেল ১২৯ টাকা, বোতল ১৫৩ টাকা, পাম তেল ১১৬ টাকা ও ৫ লিটারের বোতল ৭২৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়। বর্তমানে তা ১২৯ থেকে বেড়ে ১৩৬ টাকা, পাম ১১৬ থেকে ১১৯ টাকা টাকা, এক লিটারের বোতল ১৫৩ থেকে ১৬০ টাকা এবং ৭২৮ টাকার ৫ লিটারের বোতল ৭৬০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। 

শুল্ক কমানোর পরও চিনির মূল্য না কমার বিষয়ে সফিকুজ্জামান বলেন, চিনির দাম কমতে একটু সময় লাগবে। কারণ দেশে যে চিনি রয়েছে তা বর্তমান ধার্যকৃত শুল্কে আমদানি করা। এজন্য এই পণ্যটির দাম কমতে আরও এক মাসের মতো সময় লাগবে। 

আজকের বৈঠকে চিনির দাম নির্ধারণ নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলেও জানান তিনি। 

পরিশোধনকারী মিল মালিকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দাম অনুমোদন হওয়ার পর সেটি গণমাধ্যমকে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। সেখানে মিল গেট, পাইকারী ও খুচরা পর্যায়ে দাম দেওয়া থাকবে। 

রাষ্ট্রয়াত্ত বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) হিসাব অনুযায়ী, রোববার রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি হয়েছে ১৩৫-১৪০ টাকায়। যা এক মাস আগে ছিল ১৩০-১৩৬ টাকা। প্রতি ৫ লিটারের বোতল ৬৮০-৭২০ টাকায়। এক মাস আগে ছিল ৬৭০-৭১০ টাকা। ১ লিটারের বোতল ১৪৫-১৫৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা এক মাস আগে ছিল ১৪০-১৫০ টাকা এবং প্রতি লিটার পাম তেল বিক্রি হয়েছে ১২৫-১৩০ টাকা। যা মাস খানেক আগে ছিল ১২০-১২৬ টাকা। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়লেও পুঁজিবাজারে শেয়ার লেনদেন কমেছে

    গ্রামীণফোনের স্টার গ্রাহকদের জন্য কো-ব্র্যান্ডেড ক্রেডিট কার্ড এনেছে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক

    জুম মিটিংয়েই ৯০০ কর্মীকে চাকরিচ্যুত করলেন সিইও

    দ্বৈত কর ও ব্যাংকিং চ্যানেলের জটিলতা দূর হলে রাশিয়ায় রপ্তানি বাড়বে: বাণিজ্যমন্ত্রী

    জে সি আই ঢাকা ইস্ট এর নতুন কমিটির প্রেসিডেন্ট তাহসীন আজিম

    প্রতিবন্ধকতা টপকে ইচ্ছেডানায় মৌরীর যাত্রা

    বঙ্গোপসাগরে ট্রলারডুবির ১২ ঘণ্টা পর এক জেলে উদ্ধার, নিখোঁজ ২০

    মুরাদ ময়মনসিংহ মেডিকেলে ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক ছিলেন

    ফ্যাক্টচেক

    আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ছবি নিয়ে বিভ্রান্তি

    চীনের শীতকালীন অলিম্পিকে কূটনীতিকদের পাঠাবে না যুক্তরাষ্ট্র

    বাবরকে ফিরিয়ে খালেদের প্রথম টেস্ট উইকেট

    ১৫ হাজার কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ চেয়ে ফেসবুকের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের মামলা