Alexa
সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১

সেকশন

 

আ.লীগের অধীনে নির্বাচনে যাচ্ছি না: ফখরুল

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ২১:৪৮

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ছবি: আজকের পত্রিকা  বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আমরা আর আওয়ামী লীগের অধীনে কোনো  নির্বাচনের ফাঁদে পা দিচ্ছি না। এ দেশের মানুষ ভালো করেই জানে আওয়ামী লীগের অধীনে যদি কোনো  নির্বাচন হয়, তাহলে সে নির্বাচন কোনো দিনই সুষ্ঠু, অবাধ ও গ্রহণযোগ্য হবে না।’ 

আজ শনিবার বিকেলে নগরীর কাজীর দেউড়ির একটি কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

ফখরুল বলেন, ফেসবুকে ছবি দিয়ে আন্দোলন করবেন, ‘এ ধরনের আন্দোলন কখনো সফল হবে না। আমার বয়স এখন ৭৬। আমি অনেক আন্দোলন দেখেছি। যদি গণতন্ত্র ফিরিয়ে ফেরাতে চায়, তাহলে সত্যিকারে আন্দোলন করতে হবে। কষ্ট করতে হবে। এ জন্য সেনাপতির নির্দেশ পালন করতে হবে। অমুক দল, তমুক দল, উত্তর-পশ্চিম, দক্ষিণ-পূর্ব স্লোগান দিয়ে আন্দোলন সফল হবে না।’ 

ফখরুল বলেন, ‘পঁয়ত্রিশ লাখ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে এক লাখ মামলা। পাঁচ শর অধিক মানুষ গুম হয়ে গেছে। এক হাজার মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। আমাদের সামনে অনেক বিপদ। আমাদের একেবারে বন্দী করে রাখা হয়েছে। কথা বলতে দেওয়া  হয় না, লিখতে দেওয়া  হয় না। যারা কথা বলেন তাঁদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দেওয়া হচ্ছে।’
 
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বিএনপি সব সময় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে বিশ্বাসী এবং তা রক্ষা করে চলে। হিন্দু–বৌদ্ধ–খ্রিষ্টানদের কল্যাণে কাজ করে এবং সব সময় তাদের পাশে ভাইদের মতো দাঁড়ায়। 

কুমিল্লার ঘটনা নিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগের এজেন্ট আছে। তাদের এজেন্টরাই কুমিল্লায় এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তথ্যমন্ত্রী বারবার বলছেন, এটার পেছনে বিএনপি দায়ী। আরে করাচ্ছ তোমরা। তোমরা যদি এই ঘটনা না ঘটাও তাহলে জনগণ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নিয়ে আন্দোলন করবে, তার অধিকার নিয়ে আন্দোলন করবে। জনগণের দৃষ্টি অন্যদিকে ফিরিয়ে নিতে এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে।’ 

ফখরুল বলেন, বিরোধী দল মিটিং-মিছিল করতে গেলে পুলিশ মারে। মিথ্যা মামলা দেয়। এই ঘটনায়ও মিথ্যা মামলা দেওয়া শুরু করেছে। নোয়াখালীর বিএনপির নেতারা জানিয়েছেন, পুলিশ-র‍্যাবের সামনে সন্ত্রাসীরা মন্দির-মণ্ডপ ভাঙচুর করেছে। কিন্তু মামলা দেওয়া হচ্ছে বিএনপির নেতা-কর্মীদের নামে। 

সার্চ কমিটি নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, কিসের সার্চ কমিটি। নিজেদের পছন্দের লোকদের নিয়ে সার্চ কমিটি গঠন করা হবে। আবার তারা হুদা মার্কা কমিশন গঠন করবে। যারা দিনের ভোট আগের রাতে নিয়ে নেয়। বিএনপি এই ফাঁদে পা দেবে না। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে চিকিৎসকেরা যা বললেন

    জনপ্রতিনিধিরা আমলার নিচে থাকবেন এটা অসুন্দর লাগে, সংসদে চুন্নু

    পাকি প্রেমটা দূরে রাখুন, বিএনপিকে মেনন

    বাংলাদেশের সবচেয়ে কমনসেন্সওয়ালা দল গণ অধিকার পরিষদ: আসিফ নজরুল

    ধুনটে ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হলেন যারা

    দেশে তামাক কোম্পানির হস্তক্ষেপ বেড়েছে

    ডিএসইতে সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন

    চলতি বছরে ঢাকার সড়কে প্রাণ ঝরেছে ১১৯টি

    নরসিংদীতে নির্বাচনী সহিংসতায় আরও একজনের মৃত্যু  

    উত্তরখানে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ও পুলিশ ক্যাম্প তৈরির নির্দেশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর