Alexa
মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১

সেকশন

 
সুখবর

দাবানল থেকে বাঁচতে স্বয়ংক্রিয় অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র উদ্ভাবন তরুণের

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৫:৩০

স্বয়ংক্রিয় অগ্নি নির্বাপণ যন্ত্র। ছবি: সংগৃহীত দাবানলে গত তিন বছরে শুধু ক্যালিফোর্নিয়ারই ৭৫ লাখ একর বনভূমি পুড়ে গেছে। ছাই হয়েছে অন্তত ৫০ হাজার ঘর। বাড়ি ছাড়তে হয়েছে অনেককে। এ দৃশ্য মানতে কষ্ট হয়েছে একাদশ শ্রেণির ছাত্র অরুল মাথুরের। দাবানল থেকে বাঁচতে ২০১৯ সালে নিজেকেও সপরিবারে নিউজার্সি থেকে সান ফ্রান্সিসকো, ক্যালিফোর্নিয়ায় চলে আসতে হওয়ায় এই ক্ষত আরও গভীর হয়েছে।

এরই ধারাবাহিকতায় স্বয়ংক্রিয় অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র উদ্ভাবন করেছে এই তরুণ। তার এই উদ্ভাবনের নাম দেওয়া হয়েছে ফায়ার-অ্যাক্টিভেটেড-ক্যানিস্টার-এক্সটিংগুইশার (এফএসিই)। যন্ত্রটি একটি সেন্সরের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে কাজ করে, যা একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় উত্তপ্ত হলে ভেতরে থাকা গ্লিসারিন উপাদান ফেটে পরিবেশবান্ধব অগ্নিনিরোধক স্প্রে ছড়িয়ে দেয়। এই স্প্রে চারদিকে কমপক্ষে পাঁচ থেকে ছয় ফুট ছড়িয়ে পড়ে।

রান্নাঘর, শোওয়ার ঘর ও মূল্যবান সম্পদের নিরাপত্তায় যন্ত্রটি ব্যবহার করা যায়। এতে ঘুমিয়ে থাকলে বা বাসায় কেউ না থাকলেও অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকি কমে আসবে। এই সিলিন্ডারের সুবিধা হলো, একাধিকবার রিফিল করা যায়। প্রয়োজনে ওপরে থাকা ভাল্‌ভ ব্যবহার করে নিজের প্রয়োজনমতোও ব্যবহার করা যায়। এতে অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে দমকল বাহিনী ভারী যন্ত্রপাতি নিয়ে হাজির হওয়ার আগ পর্যন্ত নিরাপত্তার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

বাণিজ্যিকভাবে বিক্রি করলে প্রতিটি সিলিন্ডার বানাতে খরচ পড়বে ৯৯ ডলার। উৎপাদন শুরু হলে খুচরা বিক্রি হবে ১২০ ডলারে। এ প্রক্রিয়ায় প্রতি বর্গফুটের নিরাপত্তা বাবদ খরচ পড়বে ১ থেকে ৩ ডলার। ১০ হাজার ডলার বিনিয়োগে সে এই কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল। তবে এ ঘোষণা দেওয়ার এক দিনের মধ্যেই টার্গেটের চেয়ে বেশি অর্থের জোগাড় হয়েছে।

এই উদ্ভাবনের অনুপ্রেরণা প্রসঙ্গে মাথুরের বক্তব্য, 'দাবানল থেকে বাঁচতে লাখ লাখ মানুষের পালিয়ে যাওয়ার কথা শুনেছি। কিন্তু কখনো ভাবিনি যে আমিও সেই মানুষ হতে পারি। অবশেষে ২০১৯ সালের গ্রীষ্মে আমার পরিবারকেও বাড়ি খালি করতে হয়েছে। বিষয়টি ব্যক্তিগত হয়ে ওঠার পর থেকেই মনে হচ্ছিল, আমার এ বিষয়ে কিছু করা দরকার।'

তাঁর এই উদ্ভাবনকে অনেকেই ইতিবাচকভাবে দেখছেন। মাথুর তাঁর পেজে লেখেন, অর্জিত সমস্ত অর্থ দান করার পরিকল্পনা করছেন। এর স্প্রে করার পরিসীমা বাড়িয়ে তোলার চেষ্টাও করা হচ্ছে। বিভিন্ন পাড়া ও সম্প্রদায়ের মধ্যে এই উদ্ভাবন ছড়িয়ে দেওয়ার প্রত্যাশা তার।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    লকডাউন নয়, টিকা ও মাস্ক পরার ওপর গুরুত্বারোপ বাইডেনের

    বিশ্বে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু বেড়েছে

    বিশ্বে ওমিক্রনে শনাক্ত ১৫০, আফ্রিকার দেশগুলোর ওপর ৭০ দেশের নিষেধাজ্ঞা

    ওমিক্রন

    ভারতের করা ‘ঝুঁকির’ তালিকায় বাংলাদেশ

    ওমিক্রন উচ্চঝুঁকির, বিশ্বকে প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বান ডব্লিউএইচওর

    সাঁতার শিখতে গিয়ে সদ্য নিয়োগ পাওয়া সেনাসদস্যের মৃত্যু

    ডিআরইউ সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব

    ১৭ মিলিয়নের গাড়িতে চড়া হবে না রোনালদোর!

    নিরাপদ সড়কের দাবিতে খুবিতে মোমবাতি প্রজ্বালন

    রাবিতে জিল্লুর রহিম রিসার্চ ল্যাবরেটরি উদ্বোধন

    ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ নিহতদের এলাকায় দাফন না করার দাবিতে ঝাড়ুমিছিল