রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

জলবায়ু পরিবর্তন: চলতি বছর কার্বন নিঃসরণ বাড়ার শঙ্কা

আপডেট : ১৫ অক্টোবর ২০২১, ০২:৩১

কার্বন নিঃসরণ আরও বাড়ার শঙ্কা। ছবি: রয়টার্স করোনার কারণে গত বছর জলবায়ু কিছুটা স্বস্তিতে ছিল। কার্বনসহ অন্যান্য গ্রিনহাউস গ্যাস নিঃসরণ কমে যাওয়ায় পৃথিবীর তাপমাত্রা বাড়ার শঙ্কা ছিল না বললেই চলে। রাস্তায় গাড়ি কম, কারখানায় নেই উৎপাদন আর মানুষের ভোগ্যপণ্যের জোগানও তেমন বেশি দেখা যায়নি। 
 
কিন্তু চলতি বছর সেই চিত্রটা পাল্টে গেছে। অর্থনৈতিক ক্ষতি পুষিয়ে নিতে উঠেপড়ে লেগেছে বিশ্বের ধনী দেশগুলো। রাস্তায় বেড়েছে গাড়ি আর মানুষ, কারখানায় উৎপাদন এখন আগের চেয়ে কয়েকগুণ। এরই প্রভাব পড়তে শুরু করেছে গ্রিনহাউস গ্যাস নিঃসরণেও। ক্লাইমেট ট্রান্সপারেন্সির একটি প্রতিবেদন বলছে, চলতি বছর বিশ্বের ২০ ধনী দেশ থেকে কার্বন নিঃসরণ ৪ শতাংশ বেড়ে যাবে। গত বছর জি২০ জোটের এ সদস্য দেশগুলো ৬ শতাংশ কম কার্বন নিঃসরণ করেছিল। 
 
পরিবেশবাদী দলগুলোর বিক্ষোভ। ছবি: রয়টার্স বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, এখন বিশ্বে যে পরিমাণ কার্বন নিঃসরণ হয় এর ৭৫ শতাংশ আসে এসব ধনী দেশ থেকে। আর এর অন্যতম কারণ চীনের কয়লা (৬০ শতাংশ) ব্যবহার। বছর শেষে এর ব্যবহার ৫ শতাংশ বেড়ে যেতে পারে। চীন, ভারত আর আর্জেন্টিনা ২০১৯ সালের নিঃসরণকেও ছাড়িয়ে যাবে। আর যুক্তরাষ্ট্রতো এ তালিকায় আছেই। 
 
জলবায়ু নিয়ে ব্রিটেনের গ্ল্যাসগোতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া কপ ২৬ সম্মেলনের আর কয়েক সপ্তাহ বাকি। এরই মধ্যে কার্বনের এ চিত্র দেখিয়েছে ক্লাইমেট ট্রান্সপারেন্সি। ফলে বৈশ্বিক তাপমাত্রা ১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রাখা নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়। সর্বশেষ শিল্প বিপ্লবের পর থেকে তাপমাত্রা বেড়েছে ১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সম্মেলনে তাই কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে ধনী দেশগুলোকেই। 

বিবিসি বলছে, বিজ্ঞানীরা মনে করেন, শিল্প বিপ্লব শুরুর আগে বিশ্বের যে তাপমাত্রা ছিল তার থেকে বৃদ্ধির মাত্রা ১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রাখা গেলে বড় ধরনের বিপদ এড়ানো যাবে। তা না পারলে বিপজ্জনক হয়ে পড়বে প্রকৃতি, পরিবেশ এবং মানুষের জীবন।  

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    দেশের কয়েক জায়গায় বৃষ্টি হতে পারে

    বিলীনের পথে ইউরোপের পাখি

    সাপুড়ের কাছ থেকে ২৫ সাপ উদ্ধার করে বনে অবমুক্ত

    বালু নদী দূষণ, বিপাকে বারো গ্রামের মানুষ

    মাছ ধরার জালে ধরা পড়া দ্বিতীয় গন্ধগোকুলটিও মারা গেছে

    আসছে লঘুচাপ, নামবে স্বস্তির বৃষ্টি

    চট্টগ্রাম কমনওয়েলথ যুদ্ধ সমাধিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছে ভারত

    দেড় বছর পর শ্রেণিকক্ষে ফিরল ঢাবি শিক্ষার্থীরা

    অনেক কিছু দেখছি, প্রমাণের অপেক্ষায় আছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

    মেসিকে ছুঁলেন ছেত্রী

    সরকারি চাকরি

    ২২ অক্টোবর একদিনেই ১৭টি চাকরির পরীক্ষা

    ভোলায় যুবকের ছুরির আঘাতে চা দোকানি নিহত