রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

বাদ পড়লেন বিতর্কিতরা

আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৯

দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে কক্সবাজার সদর, রামু ও উখিয়া উপজেলার ২১ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে দলটির স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় এ নাম ঘোষণা করা হয়।

এতে সদর ও রামু উপজেলার ৯ জন বর্তমান চেয়ারম্যান বাদ পড়েছেন। দলীয় সূত্র জানা গেছে, গত নির্বাচনে বিদ্রোহী, অজনপ্রিয় ও বিতর্কিত প্রার্থীরা মনোনয়ন পাননি। বাদ পড়া ৯ জনের মধ্যে ৮ জনই রামু উপজেলার। রামু উপজেলার ১১ ইউনিয়নে মাত্র ৩ জন বর্তমান চেয়ারম্যান মনোনয়ন পেয়েছেন। এদিকে মিঠাছড়ি ইউনিয়নে প্রথম নারী প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন খোদেসতা বেগম রীনা।

কক্সবাজার সদর উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নে মনোনয়ন পেয়েছেন ভারুয়াখালীতে কামাল উদ্দিন, চৌফলদণ্ডীতে মুজিবুর রহমান, ঝিলংজায় টিপু সুলতান, খুরুশকুলে মো. শাহজাহান ছিদ্দিকী ও পিএমখালীতে সিরাজুল মোস্তফা। খুরুশকুলে বর্তমান চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন বাদ পড়েছেন।

রামু উপজেলার চাকমারকুলে নুরুল ইসলাম সিকদার, ফতেখাঁরকুলে নুরুল হক, গর্জনিয়ায় মুজিবুর রহমান, ঈদগড়ে নুরুল আলম, জোয়ারিয়ানালায় কামাল সামশুদ্দীন আহমদ, কচ্ছপিয়ায় নুরুল আমিন, খুনিয়া পালংয়ে আবদুল মাবুদ, কাউয়ারখোপে ওসমান সরওয়ার মামুন, রশিদনগরে মো. মোয়াজ্জম মোর্শেদ, রাজারকুলে সরওয়ার কামাল ও দক্ষিণ মিঠাছড়িতে খোদেসতা বেগম রীনা।

এখানে চাকমারকুলে নুরুল ইসলাম সিকাদার, খুনিয়া পালংয়ে আবদুল মাবুদ ও জোয়ারিয়ানালায় কামাল সামসুদ্দিন আহমদ ছাড়া সবাই নতুন মুখ।

উখিয়া উপজেলায় হলদিয়াপালং ইউনিয়নে মো. শাহ আলম, জালিয়াপালংয়ে এস এম ছৈয়দ আলম, রাজাপালংয়ে জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, রত্নাপাংলয়ে নুরুল হুদা ও পালংখালীতে আবুল মনজুর। এখানে হলদিয়াপালং ও রাজাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবারও দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন।

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রেজাউল করিম আজকের পত্রিকাকে বলেন, নানাভাবে যাচাই-বাছাই ও বিভিন্ন সংস্থার প্রতিবেদন দেখে দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন। এলাকায় জনপ্রিয়, যাঁদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ নেই ও দলের জন্য ত্যাগী, তাঁদের মূল্যায়ন করা হয়েছে।

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান বলেন, দল যাঁদের মনোনয়ন দিয়েছে, তাঁদের পক্ষে সবাই কাজ করবেন। কোথাও এর ব্যত্যয় ঘটলে সাংগঠনিকভাবে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ৩ উপজেলার ২১ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন ৯৮ জন প্রার্থী।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    খেতের পেঁপে খেতেই নষ্ট

    ২১ হাজারে চিকিৎসক ১

    নিজ ক্যাম্পাসে ভর্তি পরীক্ষা শুরু আজ

    অভিজ্ঞতা ছাড়া আইএফআইসি ব্যাংকে চাকরি

    রাশিয়াতে করোনায় একদিনে ৯৯৭ জনের মৃত্যু

    বৃদ্ধার লাশ দাফনের মুহূর্তে মৌমাছির হানা

    দুই যুগ পর মঞ্চে আফজাল হোসেন

    দোয়েলের চন্দ্রাবতী হয়ে ওঠা

    ৫৭৮ দিন পর খুলল রাবির আবাসিক হল