বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

দুর্যোগ প্রশমন দিবসে প্রধানমন্ত্রী

যতই ঝুঁকি আসুক উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে হবে

আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬:০১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুর্যোগের ঝুঁকির বিষয়ে সবাইকে সতর্কতার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যতই ঝুঁকি আসুক দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে হবে।

গতকাল বুধবার ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির (সিপিপি) ৫০ বছর পদার্পণ ও আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস উদ্‌যাপন অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। তিনি গণভবন থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় আয়োজিত মূল অনুষ্ঠানে যোগ দেন। অনুষ্ঠানের অন্য প্রান্তে মুক্তিযোদ্ধা মাঠ কক্সবাজার প্রান্তও সংযুক্ত ছিল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ দুর্যোগ ঝুঁকি মোকাবিলায় সারা বিশ্বে একটি আদর্শ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে। আমাদের এই সম্মান যাতে বজায় থাকে, সে বিষয়ে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রী ’৯১ সালের ঘূর্ণিঝড়ের পর আওয়ামী লীগের সংসদে এ নিয়ে কথা তোলার পরিপ্রেক্ষিতে সে সময়কার প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার উক্তি ‘যত মানুষ মরার কথা ছিল, তত মানুষ মারা যায় নাই’ উল্লেখ করে বলেন, এ কথা জীবনে যেন আর শুনতে না হয়, সে জন্য সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মো. এনামুর রহমান এবং ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে চারটি ইউনিটেরও উদ্বোধন করেন। এগুলো হচ্ছে দ্রুত সাড়াদান ইউনিট, পানি থেকে উদ্ধার ইউনিট, অতিজোয়ার মনিটরিং ও সাড়াদান ইউনিট এবং খেলায় খেলায় দুর্যোগ প্রস্তুতি ইউনিট (স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের নিয়ে জনসচেতনতামূলক)। এ ছাড়া, ‘দুর্যোগ সহনশীল বাংলাদেশ বিনির্মাণে শেখ হাসিনা’ শীর্ষক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনাবিষয়ক একটি গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন তিনি এবং দুর্যোগ প্রশমনবিষয়ক আওয়ামী লীগ সরকারের প্রচেষ্টা-সম্পর্কিত ভিডিওচিত্র ‘দুর্যোগ প্রশমনের ৫০ বছর বঙ্গবন্ধু থেকে শেখ হাসিনা’ শীর্ষক ভিডিওচিত্র অনুষ্ঠানে প্রদর্শন করা হয়।

সিপিপির ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে তিনজন সংগঠক এবং ছয়জন স্বেচ্ছাসেবক নারী-পুরুষকে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে এনামুর রহমান আজীবন সম্মাননা প্রদান করেন।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস গণভবন প্রান্ত থেকে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, সাংসদ, তিন বাহিনী প্রধানসহ সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা, বিদেশি কূটনীতিক ও মিশনপ্রধান, উন্নয়ন সহযোগী সংস্থার প্রতিনিধি এবং আমন্ত্রিত অতিথিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

`পাটশিল্পে রাশিয়ার বিনিয়োগকে স্বাগত জানাবে বাংলাদেশ’

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে গতকাল বাংলাদেশে নবনিযুক্ত রাশিয়ান রাষ্ট্রদূত আলেক্সান্ডার ভিকেন্তিয়েভিচ ম্যান্টিটস্কি সাক্ষাৎ করেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী রাশিয়ার সঙ্গে সহযোগিতার ক্ষেত্র সম্প্রসারণের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, বাংলাদেশ পাটশিল্পে রুশ বিনিয়োগকে স্বাগত জানাবে।

প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন খাতে বিশেষ করে রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে রাশিয়ার সহযোগিতার ভূয়সী প্রশংসা করেন।

রুশ রাষ্ট্রদূত বলেন, তিনি ২০ বছর আগে ঢাকা এসেছিলেন। কিন্তু দেশের বর্তমান অগ্রগতি ও উন্নয়ন ‘ব্যাপক ও উল্লেখযোগ্য’। রুশ দূত রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের পর বাংলাদেশে দ্বিতীয় পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে তাঁর দেশের আগ্রহ ব্যক্ত করেন।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    ১৩ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

    বিলপাড়ার সুস্বাদু চমচম

    ঘাটাইলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হোটেলে ট্রাক, আহত ২

    ভেড়ামারায় গৃহবধূর ধর্ষণ মামলায় ‘মামা শ্বশুর’ গ্রেপ্তার

    বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

    নিখোঁজ নয় পরিকল্পিত আত্মগোপনের নাটক করেছিলেন ভাঙ্গারি ব্যবসায়ী

    কলিন পাওয়েল বিশ্বাসঘাতক: ট্রাম্প

    টেক্সাসে উড্ডয়নের পরই উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত

    নৌকার এমপি হয়ে লাভবান হয়েছেন: শাহজাহানকে জেলা আ. লীগ সভাপতি