বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

তফসিলের আগেই সরগরম

আপডেট : ১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৩:১১

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দিন দিন জমজমাট হয়ে উঠছে এলাকা। সম্ভাব্য প্রার্থীরা আগেভাগেই ভোটারদের মন জয় করতে আটঘাট বেঁধে নেমে পড়েছেন। দেশের অনেক উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়েছে। ফুলপুর উপজেলার দশটি ইউনিয়নে এখনো নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়নি। তবে শুরু হয়ে গেছে ক্ষমতাসীন দলের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান ও সদস্য পদের প্রার্থীদের গণসংযোগ। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দিন দিন জমজমাট হয়ে উঠেছে এই জনপদ। তবে এবার বিএনপির প্রার্থীরা এখনো প্রচারণায় সক্রিয় নন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সম্ভাব্য প্রার্থীরা আগেভাগেই ভোটারদের মন জয় করতে আটঘাট বেঁধে নেমে পড়েছেন। বাজারে চায়ের দোকানগুলো দিন দিন সরগরম হয়ে উঠছে নির্বাচনী আলোচনায়। তা ছাড়া কে পাবেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সমর্থন বা মনোনয়ন, এ নিয়েও চলছে ভোটারদের মাঝে আলোচনা। চলছে নানা হিসাব-নিকাশও।

আওয়ামী লীগ দলীয় সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা বেশির ভাগই স্থানীয় পর্যায়ের নেতা-কর্মী। তারা গণসংযোগের পাশাপাশি দলীয় মনোনয়ন পেতেও নানামুখী চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানান, উপজেলার দশ ইউনিয়নেই রয়েছে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী একাধিক চেয়ারম্যান প্রার্থী। তাঁরা এলাকায় গণসংযোগের পাশাপাশি দলীয় মনোনয়ন পেতে উপজেলা ও জেলা পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গেও যোগাযোগ রক্ষা করে যাচ্ছেন। আবার কেউ কেউ কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গেও যোগাযোগ করছেন। তা ছাড়া স্থানীয় সাংসদ এলাকায় এলে তাঁর সঙ্গেও দেখা করছেন।

ফুলপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, ‘বিভিন্ন ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বর্তমান চেয়ারম্যানসহ অনেকেই নির্বাচন করতে এবং মনোনয়ন পেতে আগ্রহ প্রকাশ করে গণসংযোগ ও মিটিং করে যাচ্ছেন।’

উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা জানান, বওলা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশিদ, যুবলীগ নেতা ফরিদ মিয়া, কাজি নাসিমুল গণি নাসিম, আনিসুর রহমান বাবুল, হামিদুল্লাহ খান মিন্টু, মাহবুবুল আলম ডালিম এবং বালিয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রহমান, রফিকুল ইসলাম দেওয়ান মোতালেব, দিলোয়ার মোজাহিদসহ কয়েকজন মনোনয়ন পেতে নানা ধরনের তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন। এভাবে সব ইউনিয়নেই একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন পেতে কাজ করে যাচ্ছেন।

রহিমগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আবু সাঈদ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে ইতিমধ্যে মতবিনিময় সভা করেছেন। তিনি বলেন, ‘গতবারের মতো এবারও দল থেকে আমাকে মনোনয়ন দিলে চেয়ারম্যান হিসেবে নিশ্চিত জয়ী হব।

এদিকে অনেক নেতা-কর্মী বিএনপি থেকে নির্বাচন করতে চাইলেও তা আলোর মুখ দেখছে না। বিএনপি এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না-এমন খবরে অনেক নেতা-কর্মী দলীয়ভাবে নির্বাচন থেকে সরে যাচ্ছেন।

বালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের বিএনপি দলীয় বর্তমান চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম মোজাহিদ বলেন, বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে না। তাই তিনিও এবার নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

কয়েকটি ইউনিয়ন ঘুরে জানা গেছে, সম্ভাব্য প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে টানতে বৈঠক করছেন। হাজির হচ্ছেন বিয়ে, জন্মদিনসহ নানা সামাজিক অনুষ্ঠানে।

বাবুল মিয়া, সাহেব হাসান, রফিকসহ কয়েকজন ভোটার বলেন, ‘নির্বাচন কাছে আসায় আমাদের কদর দিন দিন বাড়ছে। প্রার্থীরা এখন চা পান খাওয়ার জন্য ডাক দেয়, সালাম দেয়। কেউ কেউ কুশলাদিও জিজ্ঞেস করে।’ সৎ ও যোগ্য প্রার্থী ছাড়া কাউকে ভোট দেবেন না বলেও জানান তাঁরা।

দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের কয়েকজন নেতা বলেন, যারা সৎ, যোগ্য, ত্যাগী এবং দলের জন্য নিবেদিত-এমন নেতা-কর্মীদেরই তারা মনোনয়ন দেওয়ার ব্যাপারে অগ্রাধিকার দেবেন।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সৈয়দা আশুরা আক্তার খাতুন বলেন, ইউপি নির্বাচনের তফসিল এখনো ঘোষণা করা হয়নি। তবে আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে সব প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। এবার ফুলপুর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ১০৩টি ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ করা হতে পারে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    সেনবাগে নৌকার ৬ মাঝি

    খালে আবর্জনার স্তূপ ঝুঁকিতে জনস্বাস্থ্য

    চট্টগ্রাম বিভাগে দ্বিতীয় চাটখিল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

    সুখবর

    ভুলে যাওয়া লটারি থেকে ২০ মিলিয়ন ডলারের মালিক

    ‘অপমানে’ সরাসরি অনুষ্ঠান থেকে শোয়েবের পদত্যাগ 

    প্রতারণা ছেড়ে বাবলি এবার ফ্যাশন ডিজাইনার

    ফেসবুকে জনপ্রিয় বা ভাইরাল হওয়াই সব নয়

    সজল-মাহির দ্বিতীয় ছবি ড্রাইভার

    শহরে আবার আসছে রকফেস্ট