বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

ব্যক্তিমালিকানার গুদাম থেকে জব্দ চাল-গম ফেরত দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ

আপডেট : ১২ অক্টোবর ২০২১, ১৫:৫৪

২০২০ সালের জুলাই জব্দ করার ১১৫ টন চাল ও গম ফেরত দিতে বলেছেন হাইকোর্ট। ফাইল ছবি লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে ব্যক্তিমালিকানাধীন গুদাম থেকে জব্দ করা আড়াই হাজার বস্তা (১১৫ টন) সরকারি চাল ও গম ফেরত দিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মো. মজিবর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার বেঞ্চ আজ মঙ্গলবার এ নির্দেশ দেন। 

এর আগে কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও এনএসআইয়ের যৌথ অভিযানে জব্দ সরকারি সিল লাগানো ৯৫ টন চাল ও ২০ টন গমের নিলামে স্থগিতাদেশ দিয়ে রুল জারি করা হয়েছিল। গত ২১ মার্চ এ আদেশ দেন হাইকোর্ট। ওই রুল নিষ্পত্তি করে আজ রায় দিলেন হাইকোর্ট। রায় পাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে মালিককে এসব চাল ও গম ফেরত দিতে বলা হয়েছে। 

রিটকারীর আইনজীবী আবদুস সাত্তার পালোয়ান বলেন, ওই চাল ও গম খাদ্য অধিদপ্তরের বস্তায় পাওয়ায় তাঁদের (অভিযান পরিচালনাকারী) মনে হয় সেগুলো সরকারি বিভিন্ন বরাদ্দের খাদ্যশস্য। আসলে তা ছিল কাজের বিনিময়ে খাদ্য (কাবিখা) প্রকল্পের, যা প্রকল্প সভাপতিরা আবেদনকারীর কাছে বিক্রি করে ১৯টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করেন। 

২০২০ সালের ২ জুলাই কমলনগরের আব্দুর রবের মালিকানাধীন গোডাউনে ইউএনও এবং গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআই যৌথ অভিযান চালায়। অভিযানে গুদাম থেকে ৯৫ টন চাল ও ২০ টন গম জব্দ করা হয় এবং গোডাউনটি সিলগালা করে দেওয়া হয়। 

ওই সময় প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সরকারি বিভিন্ন বরাদ্দের চাল খাদ্য অধিদপ্তরের সিলযুক্ত বস্তায় করে স্থানীয় ব্যবসায়ী আব্দুর রব তাঁর গুদামে অবৈধভাবে মজুত করে রেখেছেন এমন সংবাদ পান জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) জেলা কর্মকর্তারা। পরে সংস্থার লক্ষ্মীপুরের পরিচালক মানিক চন্দ্র দে স্থানীয় ইউএনও মোবারক হোসেন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। 

অভিযানের সময় আব্দুর রবের গুদামের সামনে ট্রাকে ভর্তি ২০ টন গম ও গুদামের ভেতরে ৯৫ টন সরকারি চাল পেয়ে তাঁর দুটি গুদাম সিলগালা করা হয়। তবে এ সময় কাউকে আটক করা যায়নি। 

এ নিয়ে পরে উপজেলা প্রশাসন নিলামের জন্য গত ৮ মার্চ দরপত্র আহ্বান করে। পরে নিলামের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন গুদাম মালিক। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতআলোচিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

    চাকরির জন্য যৌতুকের টাকা না দেওয়া অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে মারধর

    আনোয়ারায় চার দিনে ৮টি গরু চুরি

    বাগাতিপাড়ায় নৌকার বিপক্ষ প্রার্থী সংসদ সদস্যের দুই ভাই

    যশোরে রাজাকারের ছেলেকে মনোনয়ন দেওয়ার অভিযোগ, নেতা-কর্মীদের ক্ষোভ

    দুই দফা চুক্তি ভঙ্গ, পাওনার জন্য শ্রম ভবনের সামনে শ্রমিকদের অবস্থান

    প্রতিবন্ধী মেয়ের লাঠির আঘাতে প্রাণ গেল বাবার 

    ব্যবসায়িক স্বার্থে দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ে, শ্রমিকদের বেতন বাড়ে না: নজরুল ইসলাম খান

    চাকরির জন্য যৌতুকের টাকা না দেওয়া অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে মারধর

    ভারতকে বিশ্বকাপ এনে দেওয়া কোচকেই নিয়ে আসছে পাকিস্তান! 

    বিধবা নারীর বাড়িতে ঢুকে হামলার অভিযোগ ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে

    আনোয়ারায় চার দিনে ৮টি গরু চুরি

    বাগাতিপাড়ায় নৌকার বিপক্ষ প্রার্থী সংসদ সদস্যের দুই ভাই