বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

জিম্মি করে বাড়তি ভাড়া

আপডেট : ১২ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫২

দক্ষিণ চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী যানের সংকট সৃষ্টি করে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হয়। ছবিটি মইজ্জেরটেক থেকে তোলা। আজকের পত্রিকা দক্ষিণ চট্টগ্রামে পরিবহনের ভাড়া নিয়ে চলছে নৈরাজ্য। গাড়ির সংকট সৃষ্টি করে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ যাত্রীদের।

বিশেষ করে বৃহস্পতি, শনি ও রোববার ভাড়া নিয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা।

যাত্রীরা জানান, প্রতি বৃহস্পতিবার বিকেল থেকেই শাহ আমানত সেতু এলাকায় যাত্রীবাহী গাড়ি কম পাওয়া যায়। ২০ টাকার নির্ধারিত ভাড়া ৪০-৫০ টাকা আদায় করা হয়। আর ৫০ টাকার ভাড়া ৮০-১০০ টাকা পর্যন্ত আদায় করা হয়।

যাত্রীরা আরও জানান, ট্রাফিক পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করে গাড়ির মালিক, চালক ও সহযোগীরা অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেন। এতে গাড়ির মালিক সমিতিসহ শ্রমিক সংগঠনের নেতারা জড়িত।

কর্ণফুলীর মানবাধিকারকর্মী জুনাইদ নাইম বলেন, অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ছাড়াও কয়েক দিন ধরে নতুন একটি সমস্যা যুক্ত হয়েছে। মইজ্জ্যারটেক থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় যেতে মাত্রাতিরিক্ত ভাড়া নেওয়া হয় টোল ও টোকেনের অজুহাত দেখিয়ে। এসব টাকা নাকি লাইন চার্জ দিতে হয় লাইনম্যানকে। এ ছাড়া হিজড়া বিয়ের গাড়িসহ সাধারণ যাত্রীদের কাছ থেকে জোর করে চাঁদা আদায় করা হয়। এটি রীতিমতো বিব্রতকর। এসবের প্রতিবাদ করলে লাঞ্ছিত হতে হয়।

বাস মালিক সমিতির সভাপতি ভি পি জাফর উদ্দিন চৌধুরী বলেন, আনোয়ারা-কর্ণফুলী রোডে যেসব বৈধ গাড়ি আছে, সেগুলো কখনোই যাত্রীদের হয়রানি বা অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করে না। সন্ধ্যার পর কর্ণফুলী সেতুতে যাত্রীদের চাপ বেশি থাকে। এ সুযোগে পটিয়া, চকরিয়াসহ বিভিন্ন স্থানে বাস ও বিভিন্ন যানবাহনের চালক ও সহযোগীরা যাত্রীদের হয়রানি করে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেন।

জাফর উদ্দিন আরও বলেন, ‘ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদের প্রচেষ্টায় আনোয়ারা ও কর্ণফুলী উপজেলায় গণপরিবহন সংকট নিরসনে বিশেষ বাস চালানোর অনুমতি পেয়েছি। শিগগিরই সড়কে নামবে বাসগুলো।’

কর্ণফুলী ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘সন্ধ্যার পর অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছি। অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ও যাত্রী হয়রানির ঘটনায় যাঁরা জড়িত তাঁদের চিহ্নিত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

কর্ণফুলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহিনা সুলতানা বলেন, এ বিষয়ে খোঁজখবর নিয়ে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    পঠিতআলোচিতসর্বশেষ

    এলাকার খবর

    আগাম শীতের সবজি চাষ

    হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি

    পুকুর থেকে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

    পশ্চিম তীরে ৩ হাজার বসতি স্থাপনের অনুমোদন দিল ইসরায়েল

    ব্যবসায়িক স্বার্থে দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ে, শ্রমিকদের বেতন বাড়ে না: নজরুল ইসলাম খান

    চাকরির জন্য যৌতুকের টাকা না দেওয়া অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে মারধর

    ভারতকে বিশ্বকাপ এনে দেওয়া কোচকেই নিয়ে আসছে পাকিস্তান! 

    বিধবা নারীর বাড়িতে ঢুকে হামলার অভিযোগ ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে

    আনোয়ারায় চার দিনে ৮টি গরু চুরি