মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে আসছে ‘বন্ধন’

  • বিবাহ ও নিকাহ ব্যবস্থা ডিজিটাল করা হবে
  • ৯৯৯ এ ফোনে কল দিয়ে বাল্যবিবাহ বন্ধ হয়েছে ১১ হাজার ৬৬৮টি 
আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২১, ২২:৪৩

 সোমবার বিকেলে রাজধানীর ব্রাক সেন্টার মিলনায়তনের সভায় বক্তব্য দিচ্ছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। ছবি: আজকের পত্রিকা বিবাহ নিবন্ধন ও বিচ্ছেদের তথ্য সংরক্ষণ করতে ‘বন্ধন’ নামে নতুন একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করছে সরকার। বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে কাজ করবে এই প্ল্যাটফর্ম। এখানে বিবাহ ও নিকাহর তথ্য দিতে হবে কাজিদের। আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ‘বাল্যবিবাহ ও শিশুশ্রম প্রতিরোধে প্রযুক্তির ভূমিকা’ শীর্ষক সভায় এসব তথ্য জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর ব্রাক সেন্টার মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বিবাহ ও নিকাহ ব্যবস্থাকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসতে কাজ করছি। এ জন্য ‘বন্ধন ডট জিওবি’ নামে একটি প্ল্যাটফর্ম আমরা তৈরি করছি। খুব শিগগিরই এই সিস্টেমটি চালু হবে। সেখানে বিবাহ ও নিকাহ হওয়ার পর কাজিদের পাত্র-পাত্রী বা বিচ্ছেদ হওয়া ব্যক্তিদের বিভিন্ন তথ্য সংযুক্ত করতে হবে।’ 

প্রতিমন্ত্রী জানান, বন্ধন প্ল্যাটফর্মে ডিজিটাল ভেরিফিকেশন আইডি থাকবে। এর মাধ্যমে বিয়ে নিবন্ধন পদ্ধতি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসা হবে। এ জন্য সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আরও আলোচনা হচ্ছে। এভাবে প্রযুক্তির মধ্য দিয়ে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ সম্ভব বলে মনে করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী। 

সভায় ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিসের ডিআইজি মোহাম্মদ তাবারক উল্লাহ জানান, এখন পর্যন্ত ৯৯৯-নম্বরে ফোনকলের মাধ্যমে ১১ হাজার ৬৬৮টি বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়েছে। তিনি বলেন, ‘সফলতার সঙ্গে আমরা বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ করছি। তবে রাতের বেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পেতে বেগ পোহাতে হয়। সে ক্ষেত্রে আমরা পুলিশ দিয়ে বিয়ে বন্ধ করাই। বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার আইন সহজ দরকার।’ 

ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ বলেন, ‘বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে আমাদের মানসিকতা পরিবর্তন জরুরি। আমাদের কন্যাশিশুকে বোঝা হিসেবে না দেখে শক্তি হিসেবে ভাবতে হবে।’ 

সভায় মূল উপস্থাপনা তুলে ধরে ব্র্যাকের কর্মকর্তা তাকবির হুদা বলেন, বাল্যবিবাহ ও শিশুশ্রম আইনত অপরাধ। কিন্তু অভিভাবকদের এ ক্ষেত্রে সম্মতি থাকায় এই অপরাধগুলো আরও বেড়ে যায়। দারিদ্র্যতা এর একটি কারণ। তিনি শিশুশ্রম ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে প্রযুক্তি ব্যবহারের গুরুত্ব তুলে ধরেন। 

এ সভায় ব্র্যাকের পরিচালক নবনীতা চৌধুরী, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক নোভা আহমেদসহ অনেকই বক্তব্য দেন। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    পূজামণ্ডপ সংশ্লিষ্ট সহিংসতায় গ্রেপ্তার ৪৫০, মামলা ৭১

    সামাজিক মাধ্যমে গুজব রটনাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ

    সাম্প্রদায়িক অপশক্তির তৎপরতা প্রতিরোধের নির্দেশ শেখ হাসিনার

    বিদ্বেষমূলক ভাষণ হিন্দুদের ওপর আক্রমণে রসদ জুগিয়েছে: মিয়া সেপ্পো

    দক্ষিণ কোরিয়া সফরে গেলেন সেনাপ্রধান

    করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু

    বাংলাদেশের সহিংসতায় পশ্চিমবঙ্গের বুদ্ধিজীবীদের উদ্বেগ

    এই অসুরকে বধ করতে হবে: মির্জা ফখরুল

    ঢাবিতে সাম্প্রদায়িক হামলার বিরুদ্ধে মশাল মিছিল 

    মহেশখালীতে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা

    খেয়াঘাটে দুই বোনকে শ্লীলতাহানি ও মারধরের ঘটনায় গ্রেপ্তার ১

    পূজামণ্ডপ সংশ্লিষ্ট সহিংসতায় গ্রেপ্তার ৪৫০, মামলা ৭১