রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

মন্ত্রণালয়ের বৈঠকের পর দাম কমলো পেঁয়াজ-চিনি-তেলের

আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২১, ২২:৩৮

পেঁয়াজ, চিনি ও ভোজ্যতেলের শুল্ক কমানোর প্রস্তাব করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। গতকাল অনুষ্ঠিত বৈঠকে ব্যবসায়ী প্রতিনিধি ও সরকারের বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে বৈঠকে শুল্ক কমানোর বিষয়টি ওঠে আসে। আর এতেই বাজারে তেল, চিনি ও পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে।

পুরান ঢাকার শ্যামবাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা জানান, গত রোববার প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজের দাম ছিল ৬০-৬১ টাকা। গতকাল সোমবার দুপুরের পর থেকে তা বিক্রি হচ্ছে ৫৫-৫৬ টাকায়। কেজিপ্রতি দাম কমেছে ৫ টাকা। পেঁয়াজের ওপর ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার করা হলে বাজারে পেঁয়াজের দাম আরও কমবে। এমন বার্তা পেয়ে আগেই দাম কমিয়ে বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। তবে ব্যবসায়ীদের দাবি, প্রতিকেজি পেঁয়াজ তাদের ৬০ টাকার ওপরে কেনা।

মৌলভীবাজারের চিনি ব্যবসায়ীরা জানান, চিনি-তেলের আমদানি শুল্ক কমানোর হচ্ছে-এমন খবর টিভিতে প্রচার দেখে চিনির দাম মণপ্রতি ৩০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। একইভাবে ভোজ্যতেলের দামও কমছে।

চিনি, ভোজ্যতেল, ডাল ও পেঁয়াজের আমদানি; মজুত, সরবরাহ, দাম স্থিতিশীল রাখার বিষয়ে গতকাল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে আমদানিকারক, পাইকারি ও খুচরা ব্যবসায়ীদের নিয়ে বৈঠক করা হয়। বৈঠকে ব্যবসায়ীরা আমদানি শুল্ক কমানোর বিষয়ে মতামত দেন।

বৈঠক শেষে বাণিজ্যসচিব বলেন—পেঁয়াজ, তেল ও চিনিতে আমদানি শুল্ক কমানোর বিষয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে লিখিতভাবে অনুরোধ করা হয়েছে। পেঁয়াজের ওপর ৫ শতাংশ শুল্ক চার মাসের জন্য এবং তেল-চিনির ওপর শুল্ক কমানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। তবে এই পণ্যের ক্ষেত্রে সময় চাওয়া হয়নি।

বৈঠকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, দেশ যে পরিমাণ পেঁয়াজ মজুত রয়েছে এতে আগামী আড়াই-তিন মাস কোনো সংকট হবে না। পেঁয়াজের আমদানি সহজ ও দ্রুত করার জন্য এরই মধ্যে বিদ্যমান ৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার এবং বন্দরে দ্রুত পেঁয়াজ খালাসের বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে অনুরোধ করা হয়েছে। পেঁয়াজ আমদানির অনুমতিপত্র দ্রুত প্রদানে কৃষি বিভাগকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে ৫ লাখ মেট্রিক টন পেঁয়াজ মজুত আছে। ভারত ও মিয়ানমার থেকে আমদানি অব্যাহত রয়েছে। টিসিবি মাধ্যমে ৩০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি অব্যাহত রয়েছে। বাজার অভিযান জোরদার করা হয়েছে।

বাণিজ্যসচিব তপন কান্তি ঘোষের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপারসন মো. মফিজুল ইসলাম,  টিসিবির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আরিফুল হাসান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (রপ্তানি) মো. হাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত সচিব (আইআইটি) এএইচএম সফিকুজ্জামান, বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশনের সদস্য শাহ মো. আবু রায়হান আলবেরুনী, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া, বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর কবীর, কৃষি মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ফয়েজ আহম্মদ, গোয়েন্দা সংস্থা ডিজিএফআই, এনএসআই এবং এসবির প্রতিনিধি, মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিনিধিগণ, ক্যাবের সহসভাপতি এসএম নাজির হোসেন, এফবিসিসিআই এর সিনিয়র সহসভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন, মৌলভীবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. গোলাম মওলাসহ সংশ্লিষ্ট আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীরা। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    হুন্ডির ঝুঁকিতে প্রবাসী আয়

    চালের দাম কেজিতে আবারও ২ টাকা বেড়েছে

    নীতিমালা না মেনে আইসিডি

    বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম ৭ বছরে সর্বোচ্চ

    আমদানির চাল ৩০ অক্টোবরের মধ্যে বাজারজাত করতে হবে

    এক যুগের আইনি লড়াই শেষে স্বপদে ফিরলেন অধ্যক্ষ

    পেশার স্বীকৃতি চান মোবাইল ফোন মেরামতকারীরা

    চোখ থাকবে যাঁদের ওপর

    একসময়ের ‘বেকার’ গোলরক্ষকই বাঁচালেন চেলসিকে

    নবরূপে এল আলতাফ শাহনেওয়াজের ‘আলাদিনের গ্রামে’

    সরকারের এজেন্টরাই পূজামণ্ডপের ঘটনা ঘটিয়েছে: মির্জা ফখরুল