বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১

সেকশন

 

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে উন্নয়ন প্রকল্প নির্ধারিত সময়ে সম্পন্নের আহ্বান ইউজিসির

আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২১, ২০:৪২

 নির্ধারিত সময়ের মধ্যে উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শেষ করতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইউজিসি। ফাইল ছবি দেশের অধিকাংশ সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ যথাসময়ে শেষ না হওয়ায় প্রকল্প বাস্তবায়নে সময় ও ব্যয় বাড়ছে। যথাযথ আর্থিক শৃঙ্খলার অভাবে ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় অডিট আপত্তির সম্মুখীন হচ্ছে। সময় ও ব্যয় বৃদ্ধির চক্র থেকে বেরিয়ে আসতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ নির্ধারিত সময়ে শুরু ও শেষ করার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। 

আজ সোমবার ইউজিসিতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ‘অডিট পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন’ শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ পরামর্শ দেওয়া হয়। ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। 

অনুষ্ঠানে অধ্যাপক দিল আফরোজা বেগম বলেন, ‘অধিকাংশ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ যথাসময়ে শেষ হচ্ছে না। ফলে প্রকল্পের মেয়াদ বৃদ্ধির সঙ্গে খরচও বেড়ে যাচ্ছে।’ অর্থের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতের জন্য উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ নির্দিষ্ট সময়ে শুরু ও শেষ করতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, রাজস্ব বাজেটে বরাদ্দ করা অর্থ সঠিকভাবে ব্যবহার না হওয়ায় প্রতি বছর বিপুল পরিমাণ অব্যয়িত অর্থ থেকে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের সক্ষমতা ও অদক্ষতা প্রমাণিত হচ্ছে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আর্থিক শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠা করে অডিট আপত্তি শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে ইউজিসির অডিট মনিটরিং সেল জোরদার করা হবে। 

অধ্যাপক আবু তাহের বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্থিক ব্যয়ে যেকোনো মূল্যে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করতে হবে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনে কোথাও আর্থিক স্বায়ত্তশাসন দেওয়া হয়নি। বিদ্যমান আইন ও বিধি-বিধানকে পাশ কাটিয়ে যারা বিধিবহির্ভূত সুযোগ-সুবিধা প্রদান করবে, তদন্ত সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

এ ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিট সেলকে স্বতন্ত্র ও স্বাধীনভাবে কাজ করার সুযোগ, বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদের অডিট সতর্কতার সঙ্গে নিষ্পন্ন করা এবং উন্নয়ন বাজেটে ব্যয় কমানোর পরামর্শ দেন অধ্যাপক আবু তাহের। 

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন, অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর, অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ এবং শিক্ষা, সংস্কৃতি ও ধর্মবিষয়ক নিরীক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এইচ এম শামসুর রহমান। ইউজিসির অর্থ ও হিসাব বিভাগের উপপরিচালক মো. মোস্তাফিজার রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কমিশনের সচিব (অতিরিক্ত দায়িত্ব) ড. ফেরদৌস জামান স্বাগত বক্তব্য রাখেন। এতে ইউজিসির বিভাগীয় প্রধান এবং অর্থ ও হিসাব বিভাগের কর্মকর্তা এবং পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিট সেলের প্রধানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অংশ নেন। 

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

    ঢাবির সুফিয়া কামাল হলে অগ্নিকাণ্ড

    ভার্চ্যুয়াল আয়োজনে নবীনদের বরণ করল গ্রিন ইউনিভার্সিটি

    ইবিতে সশরীরে ক্লাস শুরু হবে ২৫ অক্টোবর

    ইবির 'ডি' ইউনিটে আবেদন করা যাবে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত

    শিক্ষণ ঘাটতির ঝুঁকিতে ৩০% স্কুলশিক্ষার্থী

    ভেড়ামারায় গৃহবধূর ধর্ষণ মামলায় ‘মামা শ্বশুর’ গ্রেপ্তার

    বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

    নিখোঁজ নয় পরিকল্পিত আত্মগোপনের নাটক করেছিলেন ভাঙ্গারি ব্যবসায়ী

    কলিন পাওয়েল বিশ্বাসঘাতক: ট্রাম্প

    টেক্সাসে উড্ডয়নের পরই উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত

    নৌকার এমপি হয়ে লাভবান হয়েছেন: শাহজাহানকে জেলা আ. লীগ সভাপতি