Alexa
মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

সেকশন

epaper
 
ফ্যাক্টচেক

নেপালকে ফের হিন্দু রাষ্ট্র ঘোষণা করা হয়নি

আপডেট : ২২ মে ২০২১, ১৮:০২

ফেসবুকে অন্তত ৫৬টি গ্রুপ ও আইডিতে একই তথ্যসহ ছবি দুটি পোস্ট করতে দেখা গেছে। ছবি: সংগৃহীত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দুটি ছবি পোস্ট করে দাবি করা হচ্ছে, নেপালকে হিন্দু রাষ্ট্র ঘোষণা করা হয়েছে। ছবি দুটিতে দেখা যাচ্ছে বিপুল সংখ্যক লোক স্লোগান দেওয়ার ভঙ্গিতে দাঁড়িয়ে আছে, যা বিক্ষোভ মিছিলের ছবি বলে মনে হচ্ছে।

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, ‘আজ নেপাল কে হিন্দু রাষ্ট্র ঘোষণা করা হয়েছে। পৃথিবীর বুকে এই প্রথম হিন্দু রাষ্ট্র। ধন্যবাদ জানাই তাদেরকে যাদের পরিশ্রমে নেপাল আজ হিন্দু রাষ্ট্র। জয় শ্রীরাম’।
ফেসবুকে অন্তত ৫৬টি গ্রুপ ও আইডিতে একই তথ্যসহ ছবি দুটি পোস্ট করতে দেখা গেছে।

নেপাল, বাংলাদেশ ও ভারতের বিপুল সংখ্যক ফেসবুক ব্যবহারকারী ছবি ও তথ্য বিশ্বাস করে শেয়ার করেছেন। ছবি: সংগৃহীত

ফ্যাক্টচেক
প্রথম ছবি: রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখা যায়, প্রথম ছবিটি দ্য ডিপ্লোম্যাট সাময়িকীর ওয়েবসাইটে ২০১৫ সালে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ব্যবহার করা হয়েছিল। ২০১৫ সালে নেপালকে ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র ঘোষণা করার প্রতিবাদে এবং নেপালকে হিন্দু রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার দাবিতে ভারতের দিল্লিতে বিক্ষোভ করেন নেপালিরা। সংবাদমাধ্যম ডেকান ক্রনিকেল-এর ওয়েবসাইটেও এই প্রতিবাদ সভার ছবি খুঁজে পাওয়া যায়।

‘দ্য ডিপ্লোম্যাট’ সাময়িকীর ওয়েবসাইটে ২০১৫ সালে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। ছবি: সংগৃহীত দ্বিতীয় ছবি: এ ছবিটি ‘পিপলস রিভিউ’ সাময়িকীর ওয়েবসাইটে ২০২০ সালের ৫ ডিসেম্বরে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘গণতন্ত্র বাদ দিয়ে রাজতন্ত্রে ফেরার দাবিতে আন্দোলন শুরু হয়েছে নেপালে। রাজপরিবারের সমর্থকরা রাজধানী কাঠমান্ডুতে বিশাল বিক্ষোভ করেন’।

বিভিন্ন গণমাধ্যম থেকে আরও জানা যায়, গণতন্ত্রের পথে যাত্রা শুরুর পর নেপালে রাজতন্ত্রের পক্ষে এটাই সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ। ধর্মনিরপেক্ষ পরিচয় বাদ দিয়ে নেপালকে আবার হিন্দু রাষ্ট্র ঘোষণার দাবি জানান বিক্ষোভকারীরা।

‘পিপলস রিভিউ’ সাময়িকীর ওয়েবসাইটে ২০২০ সালের ৫ ডিসেম্বরে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। ছবি: সংগৃহীত

এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানার জন্য কি–ওয়ার্ড সার্চ করে বিভিন্ন প্রতিবেদন পাওয়া যায়। সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালে নেপালকে ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ২০০৭ সাল পর্যন্ত রাজতন্ত্র শাসিত নেপাল বিশ্বের একমাত্র হিন্দু রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত ছিল। ২০১৫ সালে গৃহীত সংবিধানে নেপালকে একটি ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র ঘোষণা করা হয়।

২০১৫ সালে গৃহীত সংবিধানে প্রথম অধ্যায়ের চার নম্বর ধারায় নেপালকে ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র হিসেবে উল্লেখ করা আছে।

২০১৫ সালে নেপালের নতুন সংবিধান গৃহীত হয়। ছবি: সংগৃহীত

নেপালের নতুন সংবিধান প্রণয়নের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৫ সালের ২০ সেপ্টেম্বর বিবিসি বাংলায় ‘আর হিন্দু রাষ্ট্র থাকছে না নেপাল’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

সিদ্ধান্ত:
ছড়িয়ে পড়া ছবি দুটি পুরোনো এবং প্রকাশিত তথ্যটি অসত্য। নেপাল এখনও ধর্মনিরেপক্ষ রাষ্ট্রই, ফের হিন্দু রাষ্ট্র ঘোষণার তথ্য সঠিক নয়।

মন্তব্য

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।
Show
 
    সব মন্তব্য

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    এলাকার খবর

     
     
    ফ্যাক্টচেক

    এই ছবি মুরাদ হাসানের নয়

    ফ্যাক্টচেক

    সেই ‘ফাতেমা আক্তার’ কি ভালো হয়ে গেছে?

    ফ্যাক্টচেক

    কী করে বুঝবেন সংবাদটি ভুয়া

    ফ্যাক্টচেক

    পরীমণির কল রেকর্ড ফাঁস হয়নি, এটি টেলিফোনে দেওয়া সাক্ষাৎকার

    ফ্যাক্টচেক

    ‘বিয়ের জন্য পাত্র খুঁজছেন’ এমন টুইট করেননি তসলিমা

    ফ্যাক্টচেক

    পরীমণি–অমির সঙ্গে মডেল রথিকে জড়িয়ে বিভ্রান্তিকর সংবাদ

    উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ফের আগুন

    মেসিকে টপকে টানা দ্বিতীয়বার ফিফার বর্ষসেরা খেলোয়াড় হলেন লেভানডফস্কি

    করোনার সঙ্গে ইনফ্লুয়েঞ্জা ইউরোপে ‘টুইন্ডেমিক’

    অভিনয়শিল্পী শিমুর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার

    চীনের নজর মধ্যপ্রাচ্যে বড় চ্যালেঞ্জ যুক্তরাষ্ট্র

    নীলফামারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক আটক